রাশিয়ার ওপর দিয়ে গোয়েন্দা বিমান উড়াতে অনুমতি চেয়েছে যুক্তরাজ্য
jugantor
রাশিয়ার ওপর দিয়ে গোয়েন্দা বিমান উড়াতে অনুমতি চেয়েছে যুক্তরাজ্য

  অনলাইন ডেস্ক  

১৬ আগস্ট ২০২২, ২৩:২৩:৪১  |  অনলাইন সংস্করণ

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বুধবার জানিয়েছে, যুক্তরাজ্য রাশিয়ার বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের কাছে তাদের গোয়েন্দা বিমান আরসি-১৩৫ বিমান উড়িয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য অনুমতি চেয়েছে। খবর রয়টার্সের।

বিষয়টিকে যুক্তরাজ্যের ‘ইচ্ছাকৃত উস্কানি’ বলে উল্লেখ করেছে রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।

রাশিয়ার ওপর দিয়ে গোয়েন্দা বিমান উড়ানোর অনুমতি চাওয়ার ব্যাপারে জানতে যুক্তরাজ্যের কর্মকর্তাদের দারস্থ হয়েছিল সংবাদ সংস্থা রয়টার্স। কিন্তু তাৎক্ষণিকভাবে এ ব্যাপারে রয়টার্সকে কোনো কিছু জানায়নি যুক্তরাজ্যের কর্মকর্তারা।

তবে যুক্তরাজ্যের এমন অনুমতি চাওয়ার বিষয়টিকে বেশ গুরুত্ব সহকারে নিয়েছে রাশিয়া।

দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, রাশিয়ার বিমান বাহিনীকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, কোনো বিমান যেন রাশিয়ার আকাশ সীমা ভঙ্গ না করতে পারে।

এদিকে ইউক্রেনে হামলা করার পর ইউরোপের যে কয়েকটি দেশ সবচেয়ে বেশি প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে- তার মধ্যে সবার চেয়ে এগিয়ে আছে যুক্তরাজ্য। দেশটির প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিস ট্রাস উভয়েই রাশিয়ার বিরুদ্ধে কঠোর সব পদক্ষেপ নিয়েছেন এবং খোলাখুলিভাবে প্রেসিডেন্ট পুতিনের সমালোচনা করেছেন।

সূত্র: আল জাজিরা, রয়টার্স

রাশিয়ার ওপর দিয়ে গোয়েন্দা বিমান উড়াতে অনুমতি চেয়েছে যুক্তরাজ্য

 অনলাইন ডেস্ক 
১৬ আগস্ট ২০২২, ১১:২৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বুধবার জানিয়েছে, যুক্তরাজ্য রাশিয়ার বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের কাছে তাদের গোয়েন্দা বিমান আরসি-১৩৫ বিমান উড়িয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য অনুমতি চেয়েছে। খবর রয়টার্সের।

বিষয়টিকে যুক্তরাজ্যের ‘ইচ্ছাকৃত উস্কানি’ বলে উল্লেখ করেছে রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। 

রাশিয়ার ওপর দিয়ে গোয়েন্দা বিমান উড়ানোর অনুমতি চাওয়ার ব্যাপারে জানতে যুক্তরাজ্যের কর্মকর্তাদের দারস্থ হয়েছিল সংবাদ সংস্থা রয়টার্স। কিন্তু তাৎক্ষণিকভাবে এ ব্যাপারে রয়টার্সকে কোনো কিছু জানায়নি যুক্তরাজ্যের কর্মকর্তারা। 

তবে যুক্তরাজ্যের এমন অনুমতি চাওয়ার বিষয়টিকে বেশ গুরুত্ব সহকারে নিয়েছে রাশিয়া।

দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, রাশিয়ার বিমান বাহিনীকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, কোনো বিমান যেন রাশিয়ার আকাশ সীমা ভঙ্গ না করতে পারে। 

এদিকে ইউক্রেনে হামলা করার পর ইউরোপের যে কয়েকটি দেশ সবচেয়ে বেশি প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে- তার মধ্যে সবার চেয়ে এগিয়ে আছে যুক্তরাজ্য। দেশটির প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিস ট্রাস উভয়েই রাশিয়ার বিরুদ্ধে কঠোর সব পদক্ষেপ নিয়েছেন এবং খোলাখুলিভাবে প্রেসিডেন্ট  পুতিনের সমালোচনা করেছেন।

সূত্র: আল জাজিরা, রয়টার্স

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : রাশিয়া-ইউক্রেন উত্তেজনা