রান্নাঘরের নিচে মিলল পৌনে তিন কোটি টাকার সোনার মোহর
jugantor
রান্নাঘরের নিচে মিলল পৌনে তিন কোটি টাকার সোনার মোহর

  যুগান্তর ডেস্ক  

০২ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২১:৩৪:২১  |  অনলাইন সংস্করণ

বাড়ি মেরামত করতে গিয়েই কপাল খুলল এক দম্পতির। রান্নাঘরের মেঝে খুঁড়তেই বেরিয়ে এলো ২৬৪টি সোনার মোহর!

যুক্তরাজ্যের নর্থ ইয়র্কশায়ারে এই ঘটনা ঘটেছে বলে মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন শুক্রবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে।

বর্তমান বাজারদর অনুযায়ী ওই সোনার কয়েনগুলোর মূল্য আড়াই লাখ ব্রিটিশ পাউন্ড, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় পৌনে তিন কোটি টাকার বেশি।

ওই দম্পতি আগামী মাসে নিমালে কয়েকগুলো বিক্রি করবেন। বৃহস্পতিবার সিএনএনকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে নিলাম হাউস স্পিংক অ্যান্ড সন জানিয়েছে, এটা ব্রিটেনে ১৮ শতকের ইংলিশ সোনার মুদ্রার সবচেয়ে বড় এই আবিষ্কারের মধ্যে অন্যতম।

১০ বছর ধরেই ওই বাড়িতে বাস করছেন বলে জানিয়েছেন ওই দম্পতি।

চারশ’ বছরের পুরনো ওই সোনার মোহরগুলো ২০১৯ সালে আবিষ্কৃত হয়।

১৮ শতকে তৈরি বাড়িটির রান্নাঘরের মেঝের বোর্ড সারতেই এই আবিষ্কার করেন ওই দম্পতি।

কংক্রিটের নিচে মাত্র ছয় ইঞ্চি পুঁতে রাখা একটি ধাতুর পাত্রের ভেতরে কয়েনগুলো রাখা ছিল।

ওই দম্পতি প্রাথমিকভাবে ভেবেছিল যে তারা একটি বৈদ্যুতিক তারে আঘাত করেছেন। কিন্তু যখন তারা মেঝে তুলেছিল, তখন তারা একটি কোক ক্যানের সমান পাত্রের মধ্যে মুদ্রার স্তূপ দেখতে পান।

মুদ্রাগুলো ভালো করে পর্যবেক্ষণ শেষে তারা বুঝতে পারেন এগুলো ১৬১০ থেকে ১৭২৭ সালে জেমস ওয়ান ও চার্লস ওয়ানের আমলের মুদ্রা। এই মুদ্রাগুলো প্রভাবশালী বণিক পরিবারের সম্পত্তি বলে মনে করা হচ্ছে।

রান্নাঘরের নিচে মিলল পৌনে তিন কোটি টাকার সোনার মোহর

 যুগান্তর ডেস্ক 
০২ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৯:৩৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বাড়ি মেরামত করতে গিয়েই কপাল খুলল এক দম্পতির।  রান্নাঘরের মেঝে খুঁড়তেই বেরিয়ে এলো ২৬৪টি সোনার মোহর! 

যুক্তরাজ্যের নর্থ ইয়র্কশায়ারে এই ঘটনা ঘটেছে বলে মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন শুক্রবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে। 

বর্তমান বাজারদর অনুযায়ী ওই সোনার কয়েনগুলোর মূল্য আড়াই লাখ ব্রিটিশ পাউন্ড, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় পৌনে তিন কোটি টাকার বেশি। 

ওই দম্পতি আগামী মাসে নিমালে কয়েকগুলো বিক্রি করবেন। বৃহস্পতিবার সিএনএনকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে নিলাম হাউস স্পিংক অ্যান্ড সন জানিয়েছে, এটা ব্রিটেনে ১৮ শতকের ইংলিশ সোনার মুদ্রার সবচেয়ে বড় এই আবিষ্কারের মধ্যে অন্যতম।  

১০ বছর ধরেই ওই বাড়িতে বাস করছেন বলে জানিয়েছেন ওই দম্পতি। 

চারশ’ বছরের পুরনো ওই সোনার মোহরগুলো ২০১৯ সালে আবিষ্কৃত হয়। 

১৮ শতকে তৈরি বাড়িটির রান্নাঘরের মেঝের বোর্ড সারতেই এই আবিষ্কার করেন ওই দম্পতি। 

কংক্রিটের নিচে মাত্র ছয় ইঞ্চি পুঁতে রাখা একটি ধাতুর পাত্রের ভেতরে কয়েনগুলো রাখা ছিল। 

ওই দম্পতি প্রাথমিকভাবে ভেবেছিল যে তারা একটি বৈদ্যুতিক তারে আঘাত করেছেন। কিন্তু যখন তারা মেঝে তুলেছিল, তখন তারা একটি কোক ক্যানের সমান পাত্রের মধ্যে মুদ্রার স্তূপ দেখতে পান। 

মুদ্রাগুলো ভালো করে পর্যবেক্ষণ শেষে তারা বুঝতে পারেন এগুলো ১৬১০ থেকে ১৭২৭ সালে জেমস ওয়ান ও চার্লস ওয়ানের আমলের মুদ্রা। এই মুদ্রাগুলো প্রভাবশালী বণিক পরিবারের সম্পত্তি বলে মনে করা হচ্ছে। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন