ট্রাম্পকন্যার চীনা প্রবাদ নিয়ে বিভ্রান্তি

  যুগান্তর ডেস্ক ১৩ জুন ২০১৮, ১৬:০৪ | অনলাইন সংস্করণ

ইভানকা
ছবি: সংগৃহীত

ক্ষুদে ব্লগ টুইটারে পোস্ট করা যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মেয়ে ইভানকার একটি প্রবাদ নিয়ে ধোঁয়াশা সৃষ্টি হয়েছে। ইভানকা ওই প্রবাদটিকে চীনা বলে দাবি করলেও খোদ চীনেও তা নিয়ে বিভ্রান্তি দেখা গেছে।

উত্তর কোরিয়ার শীর্ষ নেতা কিম জং উনের সঙ্গে বৈঠকে বাবা ডোনাল্ড ট্রাম্পের অংশ নেয়াকে সমর্থন জানিয়ে তিনি ওই পোস্টটি দিয়েছেন।

কিন্তু তাতে প্রবাদের উৎস নিয়ে চলছে নানান আলোচনা। ট্রাম্পকন্যা এটিকে চীনা প্রবাদ বলে দাবি করলেও অনেকেই তা নিয়ে সন্দেহ পোষণ করেছেন। তাদের দাবি এই প্রবাদের উৎস চীন নয়।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, ইভানকার এই চীনা প্রবাদ নিয়ে খোদ চীনেই বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়েছে।

প্রবাদটি হচ্ছে, যারা বলে এটি করা যাবে না, সেটি করার সময় বাধা দেয়াও তাদের উচিত হবে না।

তাছাড়া তিনি এই প্রবাদটি দিয়ে আদতে কী বোঝাতে চেয়েছেন, তাও উল্লেখ করেননি।

চীনা নাগরিকরা বলেন, শুনতে চীনা কোনো ঋষির কাছ থেকে জ্ঞান আহরণের মতো শোনালেও প্রবাদটি চীনের নয়।

প্রবাদটির উৎস নিয়ে চীনের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে তুমুল বিতর্কে চলছে বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

চীনে টুইটার নিষিদ্ধ হওয়ায় মঙ্গলবার থেকে নিজেদের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতেই চীনা নাগরিকরা ইভানকার টুইটের স্ক্রিনশট শেয়ার দিয়ে প্রবাদের উৎস নিয়ে নানান ধরনের মন্তব্য করছেন, চলছে আলোচনা-সমালোচনার ঝড়।

চীনা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম উইবুতে এক ব্যবহারকারী লিখেছেন, ট্রাম্পকন্যার লেখা প্রবাদটি এসেছে আইরিশ নাট্যকার জর্জ বার্নার্ড শ-র কাছ থেকে। আরেকজনের দাবি, মার্কিন ঔপন্যাসিক জেমস বল্ডউইন-ই প্রবাদটির স্রষ্টা।

ঘটনাপ্রবাহ : ট্রাম্প-কিম বৈঠক

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.