ইউক্রেনে গণভোটের বিরুদ্ধে জাতিসংঘে নিন্দা প্রস্তাব আনবে আমেরিকা
jugantor
ইউক্রেনে গণভোটের বিরুদ্ধে জাতিসংঘে নিন্দা প্রস্তাব আনবে আমেরিকা

  অনলাইন ডেস্ক  

২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৫:০৬:৫৮  |  অনলাইন সংস্করণ

ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় দোনেস্ক, লুহানস্ক, খেরসন এবং যাপোরিজিয়া অঞ্চলে গণভোট অনুষ্ঠানের কঠোর সমালোচনা করে আমেরিকা বলেছে— খুব শিগগির জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে নিন্দা প্রস্তাব উত্থাপন করা হবে।

নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকের আগে মঙ্গলবার মার্কিন রাষ্ট্রদূত লিন্ডা থমাস গ্রিনফিল্ড অনানুষ্ঠানিকভাবে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ কথা ঘোষণা করেন। খবর রয়টার্সের।

তিনি জানান, আলবেনিয়ার সঙ্গে যৌথভাবে এ প্রস্তাব উত্থাপন করা হবে এবং তাতে ইউক্রেনের বর্তমান অবস্থানের ব্যাপারে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে যে কোনো ধরনের পরিবর্তন মেনে না নেওয়ার আহ্বান জানানো হবে। পাশাপাশি ইউক্রেন থেকে রাশিয়াকে সেনা প্রত্যাহারে বাধ্য করা হবে।

সম্ভাব্য এ প্রস্তাবের বিরুদ্ধে রাশিয়া ভেটো দেবে। কেননা রাশিয়া নিজে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য।

রাশিয়া ভেটো দিলে আমেরিকা এ বিষয়ে কি করবে— এমন প্রশ্নের জবাবে মার্কিন রাষ্ট্রদূত জানান, তারা বিষয়টি নিয়ে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে যাবে।

এর আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছিলেন, আমেরিকা ইউক্রেনে অনুষ্ঠিত এই গণভোটকে কখনো স্বীকৃতি দেবে না। আমেরিকা রাশিয়ার উদ্যোগে অনুষ্ঠিত এই গণভোটকে ভুয়া বলেও অভিহিত করেছে।

এরই মধ্যে গণভোটের ফল প্রকাশ হয়েছে এবং ইউক্রেনের চারটি অঞ্চল রাশিয়ার সঙ্গে যুক্ত হওয়ার পক্ষে মত দিয়েছে। ২০১৪ সালে এভাবেই গণভোটের মাধ্যমে ইউক্রেন থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে রাশিয়ার সঙ্গে যুক্ত হয়েছিল ক্রিমিয়া অঞ্চল।

ইউক্রেনে গণভোটের বিরুদ্ধে জাতিসংঘে নিন্দা প্রস্তাব আনবে আমেরিকা

 অনলাইন ডেস্ক 
২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৩:০৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় দোনেস্ক, লুহানস্ক, খেরসন এবং যাপোরিজিয়া অঞ্চলে গণভোট অনুষ্ঠানের কঠোর সমালোচনা করে আমেরিকা বলেছে— খুব শিগগির জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে নিন্দা প্রস্তাব উত্থাপন করা হবে।

নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকের আগে মঙ্গলবার মার্কিন রাষ্ট্রদূত লিন্ডা থমাস গ্রিনফিল্ড অনানুষ্ঠানিকভাবে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ কথা ঘোষণা করেন। খবর রয়টার্সের।

তিনি জানান, আলবেনিয়ার সঙ্গে যৌথভাবে এ প্রস্তাব উত্থাপন করা হবে এবং তাতে ইউক্রেনের বর্তমান অবস্থানের ব্যাপারে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে যে কোনো ধরনের পরিবর্তন মেনে না নেওয়ার আহ্বান জানানো হবে। পাশাপাশি ইউক্রেন থেকে রাশিয়াকে সেনা প্রত্যাহারে বাধ্য করা হবে।

সম্ভাব্য এ প্রস্তাবের বিরুদ্ধে রাশিয়া ভেটো দেবে। কেননা রাশিয়া নিজে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য।

রাশিয়া ভেটো দিলে আমেরিকা এ বিষয়ে কি করবে— এমন প্রশ্নের জবাবে মার্কিন রাষ্ট্রদূত জানান, তারা বিষয়টি নিয়ে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে যাবে।

এর আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছিলেন, আমেরিকা ইউক্রেনে অনুষ্ঠিত এই গণভোটকে কখনো স্বীকৃতি দেবে না। আমেরিকা রাশিয়ার উদ্যোগে অনুষ্ঠিত এই গণভোটকে ভুয়া বলেও অভিহিত করেছে।

এরই মধ্যে গণভোটের ফল প্রকাশ হয়েছে এবং ইউক্রেনের চারটি অঞ্চল রাশিয়ার সঙ্গে যুক্ত হওয়ার পক্ষে মত দিয়েছে। ২০১৪ সালে এভাবেই গণভোটের মাধ্যমে ইউক্রেন থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে রাশিয়ার সঙ্গে যুক্ত হয়েছিল ক্রিমিয়া অঞ্চল।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : রাশিয়া-ইউক্রেন উত্তেজনা