পুতিনের ঘোষণা, ইউক্রেনের চার অঞ্চল এখন রাশিয়ার
jugantor
পুতিনের ঘোষণা, ইউক্রেনের চার অঞ্চল এখন রাশিয়ার

  অনলাইন ডেস্ক  

৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৮:৩৯:৫০  |  অনলাইন সংস্করণ

ইউক্রেনের দোনেৎস্ক, লুহানেস্ক, জাপোরিঝিয়া এবং খেরসনকে রাশিয়ার সঙ্গে যুক্ত করার ঘোষণা দিয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

রুশ প্রেসিডেন্টের ঘোষণার মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে ইউক্রেন থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে রাশিয়ার সঙ্গে যুক্ত হলো চারটি অঞ্চল। তবে জাতিসংঘ, পশ্চিমা বিশ্বের দেশগুলো আগেই জানিয়েছিল তারা কখনো এ গণভোটের ফলাফলের স্বীকৃতি দেবে না।

মস্কোতে শুক্রবার একটি অনুষ্ঠানে পুতিন বলেন, রাশিয়ার সঙ্গে যুক্ত হলো নতুন চারটি অঞ্চল। এসব অঞ্চলের মানুষ রাশিয়ায় যোগ দিতে তাদের সিদ্ধান্ত দিয়েছেন।

তিনি আরও বলেছেন, আমি নিশ্চিত ফেডারেল অ্যাসেম্বলটি এটির অনুমোদন দেবে। কারণ এগুলো কয়েক লাখ মানুষের ইচ্ছা।

পুতিন আরও বলেছেন, এগুলো হলো সেই অঞ্চল যেগুলোর জন্য পূর্বে অনেক রাশিয়ান জীবন দিয়েছে।

তিনি দাবি করেছেন, এসব অঞ্চলের মানুষ কিয়েভের সরকারের অমানবিকতার স্বীকার হয়েছে এবং এখানে তারা গণহত্যা চালিয়েছে।

এদিকে গত ২৩-২৭ সেপ্টেম্বর রাশিয়ার সঙ্গে যুক্ত হওয়ার প্রশ্নে এ চারটি অঞ্চলে কথিত গণভোট হয়। ভোটের ব্যালটে লেখা ছিল- ইউক্রেন থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে স্বাধীন দেশ হয়ে রাশিয়ার সঙ্গে যুক্ত হতে চান কিনা।

গণভোটের সময় শেষ হওয়ার পর রাশিয়ার পক্ষ থেকে জানানো হয়, প্রায় শতভাগ মানুষ রাশিয়ার সঙ্গে যুক্ত হতে ‘হ্যাঁ’ ভোট দিয়েছেন।

তবে পশ্চিমারা জানিয়েছে, সাধারণ মানুষকে হ্যাঁ ভোট দিতে বাধ্য করা হয়েছে। অস্ত্রসজ্জিত সেনারা ব্যালট বাক্স নিয়ে মানুষের বাড়িতে বাড়িতে গেছেন।

পুতিনের ঘোষণা, ইউক্রেনের চার অঞ্চল এখন রাশিয়ার

 অনলাইন ডেস্ক 
৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৬:৩৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ইউক্রেনের দোনেৎস্ক, লুহানেস্ক, জাপোরিঝিয়া এবং খেরসনকে রাশিয়ার সঙ্গে যুক্ত করার ঘোষণা দিয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। 

রুশ প্রেসিডেন্টের ঘোষণার মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে ইউক্রেন থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে রাশিয়ার সঙ্গে যুক্ত হলো চারটি অঞ্চল। তবে জাতিসংঘ, পশ্চিমা বিশ্বের দেশগুলো আগেই জানিয়েছিল তারা কখনো এ গণভোটের ফলাফলের স্বীকৃতি দেবে না। 

মস্কোতে শুক্রবার একটি অনুষ্ঠানে পুতিন বলেন, রাশিয়ার সঙ্গে যুক্ত হলো নতুন চারটি অঞ্চল। এসব অঞ্চলের মানুষ রাশিয়ায় যোগ দিতে তাদের সিদ্ধান্ত দিয়েছেন।

তিনি আরও বলেছেন, আমি নিশ্চিত ফেডারেল অ্যাসেম্বলটি এটির অনুমোদন দেবে। কারণ এগুলো কয়েক লাখ মানুষের ইচ্ছা। 

পুতিন আরও বলেছেন, এগুলো হলো সেই অঞ্চল যেগুলোর জন্য পূর্বে অনেক রাশিয়ান জীবন দিয়েছে। 

তিনি দাবি করেছেন, এসব অঞ্চলের মানুষ কিয়েভের সরকারের অমানবিকতার স্বীকার হয়েছে এবং এখানে তারা গণহত্যা চালিয়েছে।

এদিকে গত ২৩-২৭ সেপ্টেম্বর রাশিয়ার সঙ্গে যুক্ত হওয়ার প্রশ্নে এ চারটি অঞ্চলে কথিত গণভোট হয়। ভোটের ব্যালটে লেখা ছিল- ইউক্রেন থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে স্বাধীন দেশ হয়ে রাশিয়ার সঙ্গে যুক্ত হতে চান কিনা।    

গণভোটের সময় শেষ হওয়ার পর রাশিয়ার পক্ষ থেকে জানানো হয়, প্রায় শতভাগ মানুষ রাশিয়ার সঙ্গে যুক্ত হতে ‘হ্যাঁ’ ভোট দিয়েছেন। 

তবে পশ্চিমারা জানিয়েছে, সাধারণ মানুষকে হ্যাঁ ভোট দিতে বাধ্য  করা হয়েছে। অস্ত্রসজ্জিত সেনারা ব্যালট বাক্স নিয়ে মানুষের বাড়িতে বাড়িতে গেছেন। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : রাশিয়া-ইউক্রেন উত্তেজনা