ইউক্রেনকে পশ্চিমাদের ‘হাতের পুতুল’ মনে করেন পুতিন
jugantor
ইউক্রেনকে পশ্চিমাদের ‘হাতের পুতুল’ মনে করেন পুতিন

  অনলাইন ডেস্ক  

৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২২:৪৯:৩৫  |  অনলাইন সংস্করণ

শুক্রবার ইউক্রেনের চারটি অঞ্চলকে রাশিয়ার সঙ্গে অন্তর্ভুক্ত করতে ডিক্রি জারি করেন প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

এর আগে ৩৭ মিনিট ব্যাপী দীর্ঘ এক বক্তব্য দেন তিনি।

ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভ থেকে আল জাজিরার সাংবাদিক ররি চাল্যান্ডস বলেছেন, পুতিন দীর্ঘ যে বক্তব্য দিয়েছেন তার মধ্যে ‘ইউক্রেনের নাম’ খুবই কম নিয়েছেন তিনি। যা সকলের চোখে ধরা পরেছে।

আল জাজিরার সাংবাদিক আরও বলেন, আসলে পুতিন ভাবেন না ইউক্রেন এ যুদ্ধের সঙ্গে প্রাসঙ্গিক। পুতিন আসলে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধকে প্রতিবেশীদের মধ্যে যুদ্ধ মনে করেন না; তিনি ইউক্রেনকে পশ্চিমাদের হাতের পুতুল হিসেবে দেখেন, পশ্চিমাদের লক্ষ্য পূরণের পুতুল হিসেবে দেখেন।

আল জাজিরার সাংবাদিক আরও বলেন, পুতিন ইউক্রেনকে একটি স্বাধীন ও সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসেবেও দেখেন না।

পুতিন তার বক্তব্যে ইউক্রেনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন, সামরিক কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়ে তারা যেন আলোচনার টেবিলে আসে। কিন্তু সঙ্গে তিনি এও জানিয়ে দিয়েছেন, যে চারটি অঞ্চল বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে সেগুলো নিয়ে কোনো আলোচনা হবে না।

ফলে এই যুদ্ধ বন্ধে রাশিয়া-ইউক্রেনের আলোচনার টেবিলে বসার বিষয়টিও আরও কঠিন হয়ে গেল।

সূত্র: আল জাজিরা

ইউক্রেনকে পশ্চিমাদের ‘হাতের পুতুল’ মনে করেন পুতিন

 অনলাইন ডেস্ক 
৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০:৪৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

শুক্রবার ইউক্রেনের চারটি অঞ্চলকে রাশিয়ার সঙ্গে অন্তর্ভুক্ত করতে ডিক্রি জারি করেন প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। 

এর আগে ৩৭ মিনিট ব্যাপী দীর্ঘ এক বক্তব্য দেন তিনি।

ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভ থেকে আল জাজিরার সাংবাদিক ররি চাল্যান্ডস বলেছেন, পুতিন দীর্ঘ যে বক্তব্য দিয়েছেন তার মধ্যে ‘ইউক্রেনের নাম’ খুবই কম নিয়েছেন তিনি। যা সকলের চোখে ধরা পরেছে। 

আল জাজিরার সাংবাদিক আরও বলেন, আসলে পুতিন ভাবেন না ইউক্রেন এ যুদ্ধের সঙ্গে প্রাসঙ্গিক। পুতিন আসলে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধকে প্রতিবেশীদের মধ্যে যুদ্ধ মনে করেন না; তিনি ইউক্রেনকে পশ্চিমাদের হাতের পুতুল হিসেবে দেখেন, পশ্চিমাদের লক্ষ্য পূরণের পুতুল হিসেবে দেখেন।

আল জাজিরার সাংবাদিক আরও বলেন, পুতিন ইউক্রেনকে একটি স্বাধীন ও সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসেবেও দেখেন না। 

পুতিন তার বক্তব্যে ইউক্রেনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন, সামরিক কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়ে তারা যেন আলোচনার টেবিলে আসে। কিন্তু সঙ্গে তিনি এও জানিয়ে দিয়েছেন, যে চারটি অঞ্চল বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে সেগুলো নিয়ে কোনো আলোচনা হবে না।

ফলে এই যুদ্ধ বন্ধে রাশিয়া-ইউক্রেনের আলোচনার টেবিলে বসার বিষয়টিও আরও কঠিন হয়ে গেল। 

সূত্র: আল জাজিরা 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : রাশিয়া-ইউক্রেন উত্তেজনা