ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট হবেন ‘রানঅফ’ ভোটে, এটি কেমন পদ্ধতি?
jugantor
ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট হবেন ‘রানঅফ’ ভোটে, এটি কেমন পদ্ধতি?

  অনলাইন ডেস্ক  

০৩ অক্টোবর ২০২২, ২২:৪৯:১৭  |  অনলাইন সংস্করণ

রোববার অনুষ্ঠিত হওয়া ব্রাজিলের এবারের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রথম ধাপে ১১ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। এর মধ্যে গণনাকৃত সকল বৈধ ভোটের ৪৮ ভাগ ভোট পেয়েছেন লুইজ ইনাসিও লুলা। অন্যদিকে বর্তমান প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারো পেয়েছেন ৪৩ ভাগ ভোট।

ব্রাজিলের সংবিধান অনুযায়ী কেউ যদি প্রথম ধাপের ভোটেই প্রেসিডেন্ট হতে চায় তাহলে তাকে অন্তত ৫০ ভাগ ভোট পেতে হবে। কিন্তু লুলা ও বলসোনারো কেউই ৫০ ভাগ ভোট পাননি।

ফলে লুলা না বলসোনারো, কে হবেন ব্রাজিলের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট তা নির্ধারিত হবে রানঅফ ভোটে।

রানঅফ ভোট কি? রানঅফ ভোট হলো ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপ। যদি প্রথম ধাপে কোনো প্রার্থী ৫০ ভাগ ভোট না পান তখন নির্বাচন দ্বিতীয় ধাপে গড়ায়, যা রানঅফ নামে পরিচিত।

যেখানে প্রথম ও দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ভোট পাওয়া দুই প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতায় টিকে থাকেন। আর বাকিরা ছিটকে যান।

এবারের নির্বাচনে লুলা ও বলসোনারো যথাক্রমে প্রথম ও দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ভোট পেয়ে রানঅফে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।

এই দুইজনের মধ্যে এখন ভোট হবে। ব্রাজিলিয়ানদের এখন এ দুইজনের মধ্যে একজনকে প্রেসিডেন্ট হিসেবে বেঁছে নিতে হবে। আগামী ৩০ অক্টোবর রানঅফ ভোট নেওয়া হবে।

ব্রাজিলে গত ২৪ বছরের মধ্যে অবশ্য কেউই প্রথম ধাপে নির্বাচিত হতে পারেননি। এখন যেন এটি অনেকটা নিয়মেই পরিণত হয়েছে।

সূত্র: রয়টার্স, দ্য স্কটসম্যান

ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট হবেন ‘রানঅফ’ ভোটে, এটি কেমন পদ্ধতি?

 অনলাইন ডেস্ক 
০৩ অক্টোবর ২০২২, ১০:৪৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রোববার অনুষ্ঠিত হওয়া ব্রাজিলের এবারের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রথম ধাপে ১১ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। এর মধ্যে গণনাকৃত সকল বৈধ ভোটের ৪৮ ভাগ ভোট পেয়েছেন  লুইজ ইনাসিও লুলা। অন্যদিকে বর্তমান প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারো পেয়েছেন ৪৩ ভাগ ভোট। 

ব্রাজিলের সংবিধান অনুযায়ী কেউ যদি প্রথম ধাপের ভোটেই প্রেসিডেন্ট হতে চায় তাহলে তাকে অন্তত ৫০ ভাগ ভোট পেতে হবে। কিন্তু লুলা ও বলসোনারো কেউই ৫০ ভাগ ভোট পাননি। 

ফলে লুলা না বলসোনারো, কে হবেন ব্রাজিলের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট তা নির্ধারিত হবে রানঅফ ভোটে।

রানঅফ ভোট কি? রানঅফ ভোট হলো ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপ। যদি প্রথম ধাপে কোনো প্রার্থী ৫০ ভাগ ভোট না পান তখন নির্বাচন দ্বিতীয় ধাপে গড়ায়, যা রানঅফ নামে পরিচিত। 

যেখানে প্রথম ও দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ভোট পাওয়া দুই প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতায় টিকে থাকেন। আর বাকিরা ছিটকে যান। 

এবারের নির্বাচনে লুলা ও বলসোনারো যথাক্রমে প্রথম ও দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ভোট পেয়ে রানঅফে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। 

এই দুইজনের মধ্যে এখন ভোট হবে। ব্রাজিলিয়ানদের এখন এ দুইজনের মধ্যে একজনকে প্রেসিডেন্ট হিসেবে বেঁছে নিতে হবে। আগামী ৩০ অক্টোবর রানঅফ ভোট নেওয়া হবে।

ব্রাজিলে গত ২৪ বছরের মধ্যে অবশ্য কেউই প্রথম ধাপে নির্বাচিত হতে পারেননি। এখন যেন এটি অনেকটা নিয়মেই পরিণত হয়েছে। 

সূত্র: রয়টার্স, দ্য স্কটসম্যান

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন