অ্যাকাউন্ট ফিরে পেতে চীনের উইচ্যাট ব্যবহারকারীদের কাকুতি-মিনতি
jugantor
অ্যাকাউন্ট ফিরে পেতে চীনের উইচ্যাট ব্যবহারকারীদের কাকুতি-মিনতি

  অনলাইন ডেস্ক  

১৯ অক্টোবর ২০২২, ২১:৪৩:১৮  |  অনলাইন সংস্করণ

চীনের অসংখ্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারকারী তাদের উইচ্যাট অ্যাপ অ্যাকাউন্ট ফিরে পেতে কাকুতি-মিনতি করছেন।

চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের বিরুদ্ধে হওয়ার বিরল প্রতিবাদ নিয়ে তারা উইচ্যাটে পোস্ট করেছিলেন। এরপর তাদের অ্যাকাউন্ট অস্থায়ীভাবে বন্ধ (ব্যান) করে দেওয়া হয়। এরমধ্যে কয়েকজনের অ্যাকাউন্ট স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দেওয়া হয়।

চীনের কমিউনিস্ট পার্টির কংগ্রেস শুরু হওয়ার ঠিক আগ মুহূর্তে প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের বিরুদ্ধে একজন বিরল প্রতিবাদ করেন। সেই প্রতিবাদের পক্ষে অনেকে ছবি ও ভিডিও শেয়ার করেন। এরপরই তাদের অ্যাকাউন্টগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়।

শুক্রবার অন্য আরেকটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একজন উইচ্যাট ব্যবহারী অনুরোধ করে বলেন, আমি আমার ভুলের জন্য সত্যিই অনুতপ্ত। আমি ওয়াদা করছি...আমি অবশ্যই কঠোরভাবে নীতি মেনে চলব। এরপর অবশ্য তিনি তার পোস্টটি মুছে ফেলেন।

আরেকজন ব্যাক্তি লিখেছেন, আমি আশা করি আপনার কোম্পানি আমার অ্যাকাউন্টটি আনব্লক করে দেবে। ভবিষ্যতে আমি কখনো অসঙ্গতিপূর্ণ ভিডিও এবং ছবি পোস্ট করব না।

আরেকজন লিখেছেন, আমার অ্যাকাউন্ট স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনার পর আমি খুবই উদ্বিগ্ন এবং এমন ব্যবহারের জন্য আমি অনুতপ্ত।

সূত্র: দ্য নিউজ

অ্যাকাউন্ট ফিরে পেতে চীনের উইচ্যাট ব্যবহারকারীদের কাকুতি-মিনতি

 অনলাইন ডেস্ক 
১৯ অক্টোবর ২০২২, ০৯:৪৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চীনের অসংখ্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারকারী তাদের উইচ্যাট অ্যাপ অ্যাকাউন্ট ফিরে পেতে কাকুতি-মিনতি করছেন। 

চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের বিরুদ্ধে হওয়ার বিরল প্রতিবাদ নিয়ে তারা উইচ্যাটে পোস্ট করেছিলেন। এরপর তাদের অ্যাকাউন্ট অস্থায়ীভাবে বন্ধ (ব্যান) করে দেওয়া হয়। এরমধ্যে কয়েকজনের অ্যাকাউন্ট স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দেওয়া হয়। 

চীনের কমিউনিস্ট পার্টির কংগ্রেস শুরু হওয়ার ঠিক আগ মুহূর্তে প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের বিরুদ্ধে একজন বিরল প্রতিবাদ করেন। সেই প্রতিবাদের পক্ষে অনেকে ছবি ও ভিডিও শেয়ার করেন। এরপরই তাদের অ্যাকাউন্টগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়। 

শুক্রবার অন্য আরেকটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একজন উইচ্যাট ব্যবহারী অনুরোধ করে বলেন, আমি আমার ভুলের জন্য সত্যিই অনুতপ্ত। আমি ওয়াদা করছি...আমি অবশ্যই কঠোরভাবে নীতি মেনে চলব। এরপর অবশ্য তিনি তার পোস্টটি মুছে ফেলেন। 

আরেকজন ব্যাক্তি লিখেছেন, আমি আশা করি আপনার কোম্পানি আমার অ্যাকাউন্টটি আনব্লক করে দেবে। ভবিষ্যতে আমি কখনো অসঙ্গতিপূর্ণ ভিডিও এবং ছবি পোস্ট করব না।

আরেকজন লিখেছেন, আমার অ্যাকাউন্ট স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনার পর আমি খুবই উদ্বিগ্ন এবং এমন ব্যবহারের জন্য আমি অনুতপ্ত। 

সূত্র: দ্য নিউজ

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন