ক্রিমিয়ার সেই সেতু দিয়ে গাড়ি চালিয়ে গেলেন পুতিন
jugantor
ক্রিমিয়ার সেই সেতু দিয়ে গাড়ি চালিয়ে গেলেন পুতিন

  অনলাইন ডেস্ক  

০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:০১:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

ক্রিমিয়ার সঙ্গে রাশিয়ার একমাত্র সংযোগ স্থাপনকারী সেই গুরুত্বপূর্ণ সেতুটির ওপর দিয়ে সোমবার নিজে গাড়ি চালিয়ে পার হলেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

প্রায় দুই মাস আগে গত ৮ অক্টোবর সেতুটিতে ভয়াবহ বিস্ফোরণে আংশিকভাবে ধসে পড়ে। এতে নিহত হন অন্তত তিনজন। ওই বিস্ফোরণের ঘটনাকে মস্কোর জন্য একটি বড় আঘাত হিসেবে দেখা হচ্ছিল।

সোমবার (৫ ডিসেম্বর) এটি পরিদর্শনে যান পুতিন। পুতিন নিজেই একটি মার্সিডিস চালিয়ে নিজেই এ সেতু পার হন। খবর রয়টার্সের।

পরিদর্শনকালে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার পর সেতুটির মেরামতের সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিদের সঙ্গেও কথা বলেন পুতিন।


সেতুটির আনুষ্ঠানিক নাম কের্চ ব্রিজ হলেও ক্রিমিয়া উপদ্বীপের সঙ্গে রাশিয়ার সংযোগ স্থাপন করায় এটি ক্রিমিয়া সেতু নামেও পরিচিত।

রুশ প্রেসিডেন্টের দপ্তর ক্রেমলিনের প্রকাশিত ছবিতে পুতিনকে সেতুর ওপর দাঁড়িয়ে কথা বলতে দেখা গেছে। একটি ভিডিওতে পুতিনকে সেতুতে হাঁটতে দেখা গেছে।

ইউক্রেনে রুশ বাহিনীর রশদ সরবরাহের প্রধান পথ হিসেবে কের্চ প্রণালির ওপর দিয়ে এ সেতুটি ব্যবহার করে আসছিল মস্কো।

১৯ কিলোমিটার দীর্ঘ ব্রিজটিকে ইউক্রেনীয় বাহিনীর একটি বড় টার্গেট হিসেবে দেখা হচ্ছিল। রাশিয়া কর্তৃক ক্রিমিয়া দখলের চার বছর পর ২০১৮ সালে সেতুটির উদ্বোধন করেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

এর চার বছরের মাথায় ২০২২ সালে সেখানে বড় ধরনের বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

ক্রিমিয়ার সেই সেতু দিয়ে গাড়ি চালিয়ে গেলেন পুতিন

 অনলাইন ডেস্ক 
০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:০১ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ক্রিমিয়ার সঙ্গে রাশিয়ার একমাত্র সংযোগ স্থাপনকারী সেই গুরুত্বপূর্ণ সেতুটির ওপর দিয়ে সোমবার নিজে গাড়ি চালিয়ে পার হলেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

প্রায় দুই মাস আগে গত ৮ অক্টোবর সেতুটিতে ভয়াবহ বিস্ফোরণে আংশিকভাবে ধসে পড়ে। এতে নিহত হন অন্তত তিনজন। ওই বিস্ফোরণের ঘটনাকে মস্কোর জন্য একটি বড় আঘাত হিসেবে দেখা হচ্ছিল।

সোমবার (৫ ডিসেম্বর) এটি পরিদর্শনে যান পুতিন। পুতিন নিজেই একটি মার্সিডিস চালিয়ে নিজেই এ সেতু পার হন। খবর রয়টার্সের।

পরিদর্শনকালে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার পর সেতুটির মেরামতের সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিদের সঙ্গেও কথা বলেন পুতিন।


সেতুটির আনুষ্ঠানিক নাম কের্চ ব্রিজ হলেও ক্রিমিয়া উপদ্বীপের সঙ্গে রাশিয়ার সংযোগ স্থাপন করায় এটি ক্রিমিয়া সেতু নামেও পরিচিত।

রুশ প্রেসিডেন্টের দপ্তর ক্রেমলিনের প্রকাশিত ছবিতে পুতিনকে সেতুর ওপর দাঁড়িয়ে কথা বলতে দেখা গেছে। একটি ভিডিওতে পুতিনকে সেতুতে হাঁটতে দেখা গেছে।

ইউক্রেনে রুশ বাহিনীর রশদ সরবরাহের প্রধান পথ হিসেবে কের্চ প্রণালির ওপর দিয়ে এ সেতুটি ব্যবহার করে আসছিল মস্কো।

১৯ কিলোমিটার দীর্ঘ ব্রিজটিকে ইউক্রেনীয় বাহিনীর একটি বড় টার্গেট হিসেবে দেখা হচ্ছিল। রাশিয়া কর্তৃক ক্রিমিয়া দখলের চার বছর পর ২০১৮ সালে সেতুটির উদ্বোধন করেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

এর চার বছরের মাথায় ২০২২ সালে সেখানে বড় ধরনের বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : রাশিয়া-ইউক্রেন উত্তেজনা