চীনের পররাষ্ট্রনীতি বাস্তবায়নে সরব সিসিপিপিআর
jugantor
চীনের পররাষ্ট্রনীতি বাস্তবায়নে সরব সিসিপিপিআর

  অনলাইন ডেস্ক  

১৫ জানুয়ারি ২০২৩, ১৭:২৯:২৯  |  অনলাইন সংস্করণ

চীন

চীনের পররাষ্ট্রনীতি বাস্তবায়নে ভূমিকা রাখছে চায়না কাউন্সিল ফর প্রমোশন অব পিসফুল রিইউনিফিকেশন-সিসিপিপিআর। খবর এএনআইয়ের।

পররাষ্ট্রনীতি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে দেশের বাইরে প্রায় ৯০টি দেশে বিভিন্ন ধরনের কাজ করে আসছে সংস্থাটি।


চীনের জাতীয় ঐক্য ফিরিয়ে আনতে চায় এমন ব্যক্তিদের নিয়ে গঠিত হয়েছে এ সংস্থা। সিসিপিপিআরের সংবিধানে বলা হয়েছে, চীনের যেসব নাগরিক ঐক্য চায় তাদের নিয়ে এবং এক চীন প্রতিষ্ঠার জন্যই মূলত এ সংস্থা গড়ে উঠেছে।

প্রসঙ্গত, ১৯৮৮ সালে চীনের নেতা দেং ঝাওপিং এটি প্রতিষ্ঠা করেন। এটির সদর দপ্তর চীনের রাজধানী বেইজিংয়ে।

মূলত তাইওয়ানকে চীনের সঙ্গে একীভূত করাই সিসিপিপিআরের অন্যতম উদ্দেশ্য। এ লক্ষ্যে যারা বিশ্বাস করে তাদের নিয়েই এটি গড়ে উঠেছে। সিসিপিপিআরের অন্যতম এজেন্ডা এক চীন নীতি বাস্তবায়ন করা। তাইওয়ানকে আলাদাভাবে না দেখে চীনের সঙ্গে একত্রিত করাই সিসিপিপিআরের লক্ষ্য।

চীনের পররাষ্ট্রনীতি বাস্তবায়নে সরব সিসিপিপিআর

 অনলাইন ডেস্ক 
১৫ জানুয়ারি ২০২৩, ০৫:২৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
চীন
ছবি: সংগৃহীত

চীনের পররাষ্ট্রনীতি বাস্তবায়নে ভূমিকা রাখছে চায়না কাউন্সিল ফর প্রমোশন অব পিসফুল রিইউনিফিকেশন-সিসিপিপিআর। খবর এএনআইয়ের। 

পররাষ্ট্রনীতি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে দেশের বাইরে প্রায় ৯০টি দেশে বিভিন্ন ধরনের কাজ করে আসছে সংস্থাটি।  


চীনের জাতীয় ঐক্য ফিরিয়ে আনতে চায় এমন ব্যক্তিদের নিয়ে গঠিত হয়েছে এ সংস্থা। সিসিপিপিআরের সংবিধানে বলা হয়েছে, চীনের যেসব নাগরিক ঐক্য চায় তাদের নিয়ে এবং এক চীন প্রতিষ্ঠার জন্যই মূলত এ সংস্থা গড়ে উঠেছে। 

প্রসঙ্গত, ১৯৮৮ সালে চীনের নেতা দেং ঝাওপিং এটি প্রতিষ্ঠা করেন। এটির সদর দপ্তর চীনের রাজধানী বেইজিংয়ে। 

মূলত তাইওয়ানকে চীনের সঙ্গে একীভূত করাই সিসিপিপিআরের অন্যতম উদ্দেশ্য। এ লক্ষ্যে যারা বিশ্বাস করে তাদের নিয়েই এটি গড়ে উঠেছে। সিসিপিপিআরের অন্যতম এজেন্ডা এক চীন নীতি বাস্তবায়ন করা। তাইওয়ানকে আলাদাভাবে না দেখে চীনের সঙ্গে একত্রিত করাই সিসিপিপিআরের লক্ষ্য। 
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন