৩৩ বছর পর মাইক টাইসনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ!
jugantor
৩৩ বছর পর মাইক টাইসনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ!

  অনলাইন ডেস্ক  

২৬ জানুয়ারি ২০২৩, ০১:১৮:৫৮  |  অনলাইন সংস্করণ

মাইক টাইসনের বিরুদ্ধে ৩৩ বছর পর ধর্ষণের অভিযোগ করেছেন এক নারী।

নব্বইয়ের দশকের শুরুতে একটি নাইটক্লাবে মাইক টাইসন তাকে ধর্ষণ করেছিলেন বলে অভিযোগ ওই নারীর।খবর নিউইয়র্ক পোস্টের।

৫ মিলিয়ন ডলার (প্রায় ৪১ কোটি টাকা) ক্ষতিপূরণ চেয়েছেন ওই নারী। তার অভিযোগ, সেই ঘটনার পর শারীরিক এবং মনসিক ভাবে ক্ষতি হয়েছে তার। দীর্ঘ দিন ধরে এই কষ্ট সহ্য করতে হয়েছে তাকে।

ওই নারী যে অভিযোগটি করেছেন, তাতে ঘটনার কোনও তারিখ উল্লেখ করা নেই। তিনি শুধু জানিয়েছেন নব্বইয়ের দশকের শুরুর দিকে ওই ঘটনা ঘটে।

ওই সময়ই ডিজাইরি ওয়াশিংটন নামে এক মডেল অভিযোগ করেছিলেন যে, টাইসন তাকে ধর্ষণ করেছিলেন।১৯৯২ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি সেই ঘটনা ঘটে।

ইন্ডিয়ানাপোলিসের সেই ঘটনায় অভিযুক্ত হয়ে টাইসনকে ৩ বছর জেলে যেতে হয়।

অভিযোগকারী নারী জানিয়েছেন, টাইসনের গাড়িতে উঠেছিলেন তিনি। তারপরেই টাইসন জোর করে তার শরীরে আপত্তিকর ভাবে হাত দেন এবং তাকে চুম্বন করার চেষ্টা করেন।

তিনি বলেন, আমি বার বার তাকে নিষেধ করি। কিন্তু ও আমাকে আক্রমণ করেই যাচ্ছিল।তার পর আমার প্যান্ট খুলে ধর্ষণ করে।

ওই নারীর আইনজীবী ড্যারেন সিলবার্গ বলেন, আমি শুধু নারীর কথায় বিশ্বাস করিনি। অনুসন্ধান করে দেখেছি যে, তার অভিযোগের সত্যতা রয়েছে।অভিযোগকারীকে আবার মানসিক ভাবে কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যেতে হবে মনে করায় তিনি নিজের পরিচয় প্রকাশ করতে চাননি।

টাইসনের পক্ষ খেকে এখন পর্যন্ত কোনও কথা বলা হয়নি। ৫৬ বছরের টাইসন ১৯৮৭ থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত বক্সিংয়ে টানা চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন।

তার সাবেক স্ত্রী অভিনেত্রী রবিন গিভেন্স আশির দশকের শেষের দিকে বিবাহবিচ্ছেদ করার সময় জানিয়েছিলেন যে, তার ওপর শারীরিক অত্যাচার করতেন টাইসন।

৩৩ বছর পর মাইক টাইসনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ!

 অনলাইন ডেস্ক 
২৬ জানুয়ারি ২০২৩, ০১:১৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মাইক টাইসনের বিরুদ্ধে ৩৩ বছর পর ধর্ষণের অভিযোগ করেছেন এক নারী।

নব্বইয়ের দশকের শুরুতে একটি নাইটক্লাবে মাইক টাইসন তাকে ধর্ষণ করেছিলেন বলে অভিযোগ ওই নারীর।খবর নিউইয়র্ক পোস্টের।

৫ মিলিয়ন ডলার (প্রায় ৪১ কোটি টাকা) ক্ষতিপূরণ চেয়েছেন ওই নারী। তার অভিযোগ, সেই ঘটনার পর শারীরিক এবং মনসিক ভাবে ক্ষতি হয়েছে তার। দীর্ঘ দিন ধরে এই কষ্ট সহ্য করতে হয়েছে তাকে।

ওই নারী যে অভিযোগটি করেছেন, তাতে ঘটনার কোনও তারিখ উল্লেখ করা নেই। তিনি শুধু জানিয়েছেন নব্বইয়ের দশকের শুরুর দিকে ওই ঘটনা ঘটে।

ওই সময়ই ডিজাইরি ওয়াশিংটন নামে এক মডেল অভিযোগ করেছিলেন যে, টাইসন তাকে ধর্ষণ করেছিলেন।১৯৯২ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি সেই ঘটনা ঘটে।

ইন্ডিয়ানাপোলিসের সেই ঘটনায় অভিযুক্ত হয়ে টাইসনকে ৩ বছর জেলে যেতে হয়।

অভিযোগকারী নারী জানিয়েছেন, টাইসনের গাড়িতে উঠেছিলেন তিনি। তারপরেই টাইসন জোর করে তার শরীরে আপত্তিকর ভাবে হাত দেন এবং তাকে চুম্বন করার চেষ্টা করেন।

তিনি বলেন, আমি বার বার তাকে নিষেধ করি। কিন্তু ও আমাকে আক্রমণ করেই যাচ্ছিল।তার পর আমার প্যান্ট খুলে ধর্ষণ করে।

ওই নারীর আইনজীবী ড্যারেন সিলবার্গ বলেন, আমি শুধু নারীর কথায় বিশ্বাস করিনি। অনুসন্ধান করে দেখেছি যে, তার অভিযোগের সত্যতা রয়েছে।অভিযোগকারীকে আবার মানসিক ভাবে কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যেতে হবে মনে করায় তিনি নিজের পরিচয় প্রকাশ করতে চাননি।

টাইসনের পক্ষ খেকে এখন পর্যন্ত কোনও কথা বলা হয়নি। ৫৬ বছরের টাইসন ১৯৮৭ থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত বক্সিংয়ে টানা চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন।

তার সাবেক স্ত্রী অভিনেত্রী রবিন গিভেন্স আশির দশকের শেষের দিকে বিবাহবিচ্ছেদ করার সময় জানিয়েছিলেন যে, তার ওপর শারীরিক অত্যাচার করতেন টাইসন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন