তুরস্কে শক্তিশালী ভূমিকম্পে নিহত ১৭
jugantor
তুরস্কে শক্তিশালী ভূমিকম্পে নিহত ১৭

  অনলাইন ডেস্ক  

০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১০:০০:৪৯  |  অনলাইন সংস্করণ

তুরস্কে শক্তিশালী ভূমিকম্পে নিহত ১০

সিরীয় সংলগ্ন তুরস্কের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে ৭ দশমিক ৮ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে। ভূমিকম্পে এখনো পর্যন্ত ১৭ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। বহু বাড়ি ধ্বংস হয়ে গেছে।

মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থার তথ্যমতে, সোমবার ভোর ৪টা ১৭ মিনিটের দিকে তুরস্কের গাজিয়ানতেপ শহরের কাছেই কম্পনের ঘটনাঘটে। এর গভীরতা ছিল ১৭.৯ কিলোমিটার।এখন পর্যন্ত ১৭ জন নিহতের খবর পাওয়া গেছে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে জানা গেছে, রাজধানী আঙ্কারা এবং অন্যান্য শহরেও কম্পন অনুভূত হয়েছে। প্রাণহানি এড়াতে ঘর থেকে দ্রুত বের হয়ে পথে চলে আসেন বহু মানুষ। এখন পর্যন্ত হতাহতের খবর না পাওয়া গেলেও ভূমিকেম্প বেশ কিছুভবন ধসে পড়েছে। এতে আটকাও পড়েছেন অনেকে। দিয়ারবাকের শহরের একটি শপিং মল ধসে পড়েছে।

ওসমানিয়া প্রদেশে ভবন ধসে পাঁচজন নিহতের খবর দিয়েছেন সেখানকার গভর্নর। তিনি বলেন, ৩৪টি ভবন ধসে পড়েছে। সানলিউরফা শহরেরও পাঁচজনের প্রাণহানি ঘটেছে। সেখানে ১৬টি ভবন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

ভূমিকম্পের স্থায়িত্ব ছিল প্রায় ৪৫ সেকেন্ড। এর কিছুক্ষণের মধ্যে আফটার শকের খবর পাওয়া যায়। এদিকে সিরিয়া, সাইপ্রাস এবং লেবাননেও কম্পন অনুভূত হয়েছে।

তুরস্ক বিশ্বের অন্যতম সক্রিয় ভূমিকম্প অঞ্চলে অবস্থিত। ১৯৯৯ সালে দেশের উত্তর-পশ্চিমে একটি শক্তিশালী কম্পনের পর ১৭ হাজারেরও বেশি লোক নিহত হয়েছিল।

তুরস্কে শক্তিশালী ভূমিকম্পে নিহত ১৭

 অনলাইন ডেস্ক 
০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১০:০০ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
তুরস্কে শক্তিশালী ভূমিকম্পে নিহত ১০
ছবি: সংগৃহীত

সিরীয় সংলগ্ন তুরস্কের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে ৭ দশমিক ৮ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে। ভূমিকম্পে এখনো পর্যন্ত ১৭ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। বহু বাড়ি ধ্বংস হয়ে গেছে।

মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থার তথ্যমতে, সোমবার ভোর ৪টা ১৭ মিনিটের দিকে তুরস্কের গাজিয়ানতেপ শহরের কাছেই কম্পনের ঘটনা ঘটে। এর গভীরতা ছিল ১৭.৯ কিলোমিটার। এখন পর্যন্ত ১৭ জন নিহতের খবর পাওয়া গেছে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে জানা গেছে, রাজধানী আঙ্কারা এবং অন্যান্য শহরেও কম্পন অনুভূত হয়েছে। প্রাণহানি এড়াতে ঘর থেকে দ্রুত বের হয়ে পথে চলে আসেন বহু মানুষ। এখন পর্যন্ত হতাহতের খবর না পাওয়া গেলেও ভূমিকেম্প বেশ কিছুভবন ধসে পড়েছে। এতে আটকাও পড়েছেন অনেকে। দিয়ারবাকের শহরের একটি শপিং মল ধসে পড়েছে।

ওসমানিয়া প্রদেশে ভবন ধসে পাঁচজন নিহতের খবর দিয়েছেন সেখানকার গভর্নর। তিনি বলেন, ৩৪টি ভবন ধসে পড়েছে। সানলিউরফা শহরেরও পাঁচজনের প্রাণহানি ঘটেছে। সেখানে ১৬টি ভবন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

ভূমিকম্পের স্থায়িত্ব ছিল প্রায় ৪৫ সেকেন্ড। এর কিছুক্ষণের মধ্যে আফটার শকের খবর পাওয়া যায়। এদিকে সিরিয়া, সাইপ্রাস এবং লেবাননেও কম্পন অনুভূত হয়েছে।

তুরস্ক বিশ্বের অন্যতম সক্রিয় ভূমিকম্প অঞ্চলে অবস্থিত। ১৯৯৯ সালে দেশের উত্তর-পশ্চিমে একটি শক্তিশালী কম্পনের পর ১৭ হাজারেরও বেশি লোক নিহত হয়েছিল।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : তুরস্ক-সিরিয়ায় ভূমিকম্প

২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩
২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩