জার্মানি গেলে গ্রেফতার হবেন পুতিন!
jugantor
জার্মানি গেলে গ্রেফতার হবেন পুতিন!

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৪ মার্চ ২০২৩, ১০:২৩:১৪  |  অনলাইন সংস্করণ

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমিরপুতিনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত (আইসিসি)। এ পরোয়ানা বাস্তবায়নের ইচ্ছার কথা জানিয়েছেন জার্মান কর্মকর্তারা।

ইউক্রেনে নিযুক্ত জার্মান রাষ্ট্রদূত বুধবার বলেছেন, জার্মানির ভূখণ্ডে পুতিন হাজির হলে তাকে নিশ্চিতভাবে গ্রেফতার করা হবে।

এক ব্রিফিংয়ে জার্মান রাষ্ট্রদূত আঙ্কা ফেল্ডুসেন বলেন, জার্মান ভূখণ্ডে পুতিন হাজির হলে নিশ্চিতভাবে তাকে গ্রেফতার করা হবে। গতকাল (মঙ্গলবার) জার্মানির আইনমন্ত্রী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জার্মান রাষ্ট্রদূত বলেন, আমরা রোম স্ট্যাটিউটে স্বাক্ষর করেছি। শুধু আমরা নই, ১২০টিরও বেশি দেশ এতে স্বাক্ষর করেছে। ফলে এমন দেশগুলো সফরের ক্ষেত্রে জটিলতায় পড়বেন পুতিন।

এদিকে জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শলৎজ পুতিনের বিরুদ্ধে আইসিসির গ্রেফতারি পরোয়ানার প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন। শলৎজ বলেছেন, কেউ আইনের ঊর্ধ্বে নয়।

এদিকে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে গ্রেফতার করা হলে তা হবে যুদ্ধ ঘোষণার শামিল—এমন মন্তব্য করেছেন দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট দিমিত্রি মেদভেদেভ।

মেদভেদেভ বলেন, এটা কখনো হবে না, তবুও যদি এমনটা হয় তাহলে যুদ্ধ অনিবার্য। ধরুন তিনি (পুতিন) জার্মানিতে গেলেন আর সেখানে তাকে গ্রেফতার করা হলো। এটার মানে কী? নিশ্চয়ই যুদ্ধ ঘোষণা।

মেদভেদেভ আরও বলেন, যদি এমনটা হয়, তাহলে নিশ্চয়ই আমরা বসে থাকব না। আমাদের কাছে রকেট আছে, গোলাবারুদ আছে। এগুলো দিয়ে বুন্ডেসট্যাগে জার্মানির চ্যান্সেলরের কার্যালয়ে হামলা করব।

রাশিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্ট মেদভেদেভ বর্তমানে দেশটির নিরাপত্তা কাউন্সিলের ডেপুটি চেয়ারম্যান।

পুতিনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত (আইসিসি)। যেহেতু রাশিয়া রোম চুক্তিতে (যে চুক্তির মাধ্যমে আইসিসি গঠিত হয়েছে) সই করেনি, তাই রাশিয়ায় থাকা অবস্থায় তাকে গ্রেফতারের এখতিয়ার নেই আইসিসির।

যদি তিনি (পুতিন) রাশিয়ার বাইরে অন্য কোনো দেশে সফর করেন এবং ওই দেশটি রোম চুক্তিতে সই করে থাকে তবে সেই দেশ থেকে পুতিনকে গ্রেফতার করতে পারবেন আইসিসি।

জার্মানি গেলে গ্রেফতার হবেন পুতিন!

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৪ মার্চ ২০২৩, ১০:২৩ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত (আইসিসি)। এ পরোয়ানা বাস্তবায়নের ইচ্ছার কথা জানিয়েছেন জার্মান কর্মকর্তারা।

ইউক্রেনে নিযুক্ত জার্মান রাষ্ট্রদূত বুধবার বলেছেন, জার্মানির ভূখণ্ডে পুতিন হাজির হলে তাকে নিশ্চিতভাবে গ্রেফতার করা হবে।

এক ব্রিফিংয়ে জার্মান রাষ্ট্রদূত আঙ্কা ফেল্ডুসেন বলেন, জার্মান ভূখণ্ডে পুতিন হাজির হলে নিশ্চিতভাবে তাকে গ্রেফতার করা হবে। গতকাল (মঙ্গলবার) জার্মানির আইনমন্ত্রী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জার্মান রাষ্ট্রদূত বলেন, আমরা রোম স্ট্যাটিউটে স্বাক্ষর করেছি। শুধু আমরা নই, ১২০টিরও বেশি দেশ এতে স্বাক্ষর করেছে। ফলে এমন দেশগুলো সফরের ক্ষেত্রে জটিলতায় পড়বেন পুতিন।

এদিকে জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শলৎজ পুতিনের বিরুদ্ধে আইসিসির গ্রেফতারি পরোয়ানার প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন। শলৎজ বলেছেন, কেউ আইনের ঊর্ধ্বে নয়।

এদিকে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে গ্রেফতার করা হলে তা হবে যুদ্ধ ঘোষণার শামিল—এমন মন্তব্য করেছেন দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট দিমিত্রি মেদভেদেভ।
 
মেদভেদেভ বলেন, এটা কখনো হবে না, তবুও যদি এমনটা হয় তাহলে যুদ্ধ অনিবার্য। ধরুন তিনি (পুতিন) জার্মানিতে গেলেন আর সেখানে তাকে গ্রেফতার করা হলো। এটার মানে কী? নিশ্চয়ই যুদ্ধ ঘোষণা।

মেদভেদেভ আরও বলেন, যদি এমনটা হয়, তাহলে নিশ্চয়ই আমরা বসে থাকব না। আমাদের কাছে রকেট আছে, গোলাবারুদ আছে। এগুলো দিয়ে বুন্ডেসট্যাগে জার্মানির চ্যান্সেলরের কার্যালয়ে হামলা করব।

রাশিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্ট মেদভেদেভ বর্তমানে দেশটির নিরাপত্তা কাউন্সিলের ডেপুটি চেয়ারম্যান। 

পুতিনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত (আইসিসি)। যেহেতু রাশিয়া রোম চুক্তিতে (যে চুক্তির মাধ্যমে আইসিসি গঠিত হয়েছে) সই করেনি, তাই রাশিয়ায় থাকা অবস্থায় তাকে গ্রেফতারের এখতিয়ার নেই আইসিসির। 

যদি তিনি (পুতিন) রাশিয়ার বাইরে অন্য কোনো দেশে সফর করেন এবং ওই দেশটি রোম চুক্তিতে সই করে থাকে তবে সেই দেশ থেকে পুতিনকে গ্রেফতার করতে পারবেন আইসিসি।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন