ইরান হরমুজ প্রণালি বন্ধ করে দিলে কী হবে?

প্রকাশ : ০৬ জুলাই ২০১৮, ১৯:০৩ | অনলাইন সংস্করণ

  যুগান্তর ডেস্ক   

হরমুজ প্রণালি (ছবি সংগৃহীত)

বিশ্বের তেল রফতানির গুরুত্বপূর্ণ পথ হরমুজ প্রণালি বন্ধ করে দেয়ার হুমকি ইরানের প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানি। প্রেসিডেন্টের এ হুমকির পর তা বাস্তবায়নের ঘোষণা দিয়েছে দেশটির ইসলামি রেভ্যুলিউশনারি গার্ড বাহিনী।

হরমুজ প্রণালি হলো ইরান ও ওমানের মাঝখানে অবস্থিত একটি সরু জলপথ।  গুরুত্বপূর্ণ এ পথ বন্ধ করে দেয়ার হুঁশিয়ারিতে আন্তর্জাতিক রাজনীতি হঠাৎ করে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। বিশ্ববাজারে তেলের দাম বাড়তে শুরু করেছে। 

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, বর্তমানে বিশ্বের ৩০ শতাংশ জ্বালানি তেল এই পথ দিয়ে রপ্তানি হয়।  পথটির সবচেয়ে সরু অংশের প্রস্থ ২১ মাইল।  এর মধ্যে কেবল চার কিলোমিটার জাহাজ চলাচলের জন্য উপযোগী।  জাহাজ চলাচলের জন্য একেক পাশে দুই কিলোমিটার প্রস্থের একটি করে লেন রয়েছে।

এই প্রণালি দিয়েই এশিয়া, ইউরোপ ও যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন অঞ্চলের তেলের চাহিদা পূরণ হয়।  এ প্রণালি দিয়ে ওমান উপসাগর ও আরব সাগরের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে সৌদি আরবের মতো বৃহৎ তেল রপ্তানিকারকগুলো দেশগুলো।

মার্কিন জ্বালানি তথ্য প্রশাসন কর্তৃপক্ষের এক তথ্যে এর আগে বলা হয়েছে, ২০০৯ সালে সমুদ্রপথে তেল বাণিজ্যের ৩৩ শতাংশ হয়েছে হরমুজ প্রণালি দিয়ে।  এর আগে ২০০৮ সালে হয়েছিল ৪০ শতাংশ বাণিজ্য।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ইরানের তেল রপ্তানি পুরোপুরি বন্ধ করে দেওয়ার হুমকি দেয়ার পর ইরানও পাল্টা হুমকি দিয়ে বলেছে, ইরানকে তেল রপ্তানি করতে না দিলে মধ্যপ্রাচ্যের অন্য কোনো দেশও তেল রপ্তানি করতে পারবে না।