আসামের নাগরিকত্ব নিবন্ধন, ভারতের সাবেক প্রেসিডেন্টের পরিবারের নামও নেই

  যুগান্তর ডেস্ক ৩১ জুলাই ২০১৮, ১৩:০৮ | অনলাইন সংস্করণ

সাবেক প্রেসিডেন্টের ফখরুদ্দিনের পরিবার
ছবি: সংগৃহীত

ভারতের আসাম রাজ্যের জাতীয় নাগরিকত্ব নিবন্ধনের খসড়া তালিকায় দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট ফখরুদ্দিন আলী আহমেদের ভাইয়ের পরিবারের নামও তাতে নেই।

ফখরুদ্দিনের ভাই লেফটেন্যান্ট ইকরামুদ্দিন আলী আহমেদের পরিবার আসামের কামরুপ জেলার রাঙ্গিয়া থেকে এসেছে। পরিবারটির কোনো সদস্যেরই নাম তালিকায় নেই বলে জানিয়েছেন তারা।

তারা এখন এনআরসিতে নিজেদের নাম লেখাতে তথ্যপ্রমাণ সংগ্রহ করেছেন।

ফখরুদ্দিন আলী আহমেদের ভাইয়ের ছেলে জিয়াউদ্দিন আলী আহমেদ বলেন, আমি সাবেক প্রেসিডেন্ট ফখরুদ্দিন আলী আহমেদের ভাইয়ের ছেলে। কিন্তু নাগরিকত্ব নিবন্ধন তালিকায় আমাদের কারও নাম নেই। এতে আমরা কিছুটা হতাশাবোধ করছি।

সোমবার রেজিস্টার জেনারেল অ্যান্ড সেনসাস কমিশনার বলেন, যাদের নাম তালিকায় আসেনি, তাদের প্রত্যেক্ষকে চিঠি পাঠানো হবে। খুবই স্বচ্ছ প্রক্রিয়ায় সব কিছু সম্পন্ন হচ্ছে।

এনআরসি চূড়ান্ত খসড়া তালিকায় ৪০ লাখেরও বেশি বাংলাভাষীর নাম বাদ দেয়া হয়েছে। এর মধ্য দিয়ে তারা ভারতের নাগরিকত্ব হারিয়েছেন।

মাতৃভূমি ভারতে রাষ্ট্রহীন হয়ে পড়া এসব বাঙালিকে বাংলাদেশ থেকে যাওয়া অবৈধ অভিবাসী হিসেবে চিহ্নিত করা হচ্ছে। এ অবস্থায় মিয়ানমারের রোহিঙ্গাদের মতোই এসব ভারতীয় বাঙালিকে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করানোর আশঙ্কা তৈরি হয়েছে।

ভারতের পঞ্চম প্রেসিডেন্ট ছিলেন প্রয়াত ফখরুদ্দিন আলী আহমেদ। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করে গেছেন ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনের এ নেতা।

ঘটনাপ্রবাহ : আসামে বাঙালি সংকট

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter