নতুন পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দল বদলের যত ঘটনা

  অনলাইন ডেস্ক ১৯ আগস্ট ২০১৮, ২১:৩৩ | অনলাইন সংস্করণ

শাহ মোহাম্মদ কুরাইশি
ছবি: এক্সপ্রেস ট্রিবিউন

পাকিস্তানের নতুন সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে প্রয়াত বেনজির ভুট্টোর পিপলস পার্টির (পিপিপি) সাবেক নেতা শাহ মোহাম্মদ কুরাইশিকে।

বর্তমানে তেহরিক-ই-ইনসাফ পার্টির শীর্ষ নেতা কুরাইশি ২০০৮ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত পিপিপির হয়ে একই দায়িত্ব পালন করেছিলেন।

১৯৫৬ সালের ২২ জুন পাঞ্জাবের এক ধনাঢ্য ও রাজনৈতিক পরিবারের জন্মগ্রহণ করেন তিনি। পড়াশোনা করেছেন লাহোরের আচিশন কলেজ ও ক্যামব্রিজের কর্পাস ক্রিস্টি কলেজে।

কুরাইশি সর্ব প্রথম ১৯৮৫ সালে পাঞ্জাব প্রাদেশিক পরিষদের সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন। সামরিক শাসন মোহাম্মদ জিয়াউল হকের অধীনে স্বতন্ত্রভাবে নির্বাচিত হয়েছিলেন তিনি। এরপর ১৯৮৬ সালে কুরাইশি পাকিস্তান মুসলিম লীগে(পিএমএল) যোগ দেন।

১৯৮৮ সালে জিয়াউল হকের মৃত্যুর পর পিএমএল ভেঙে যায়। তিনি পিএমএল থেকে আলাদা হয়ে যাওয়া একটি গোষ্ঠীকে নিয়ে গঠিত পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজে যোগ দেন। এর পর পাঞ্জাবের তখনকার মুখ্যমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের মন্ত্রিসভার পরিকল্পনা ও উন্নয়ন বিষয়ক মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

১৯৯৩ সালে নওয়াজ শরীফ তাকে পাঞ্জাব প্রাদেশিক পরিষদের নির্বাচনে তাকে দলীয় মনোনয় দেননি। তখন তিনি পিএমএল-নওয়াজ ছেড়ে পাকিস্তান পিপলস পার্টিতে যোগ দেন। নতুন দলে এসেই জাতীয় পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হন তিনি।

প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী বেনজির ভুট্টো তাকে সংসদ বিষয়ক প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব দেন। ১৯৯৬ সালে তাকে পিপিপির মুখপাত্র হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়। কিন্তু ১৯৯৭ সালের নির্বাচনে তিনি হেরে যান।

পাকিস্তানের তখনকার প্রেসিডেন্ট পারভেজ মোশাররফ তাকে দ্য কাউন্সিল অফ ইকনমিক অ্যাডভাইজারসে একটি পদের দায়িত্ব দেয়ার প্রস্তাব দেন। তিনি তা প্রত্যাখ্যান করেন।

২০০০ থেকে ২০০২ সাল পর্যন্ত তিনি মুলতানের মেয়রের দায়িত্ব পালন করেন। ২০০৬ সালে বেনজির ভুট্টো তাকে পাঞ্জাব পিপলস পার্টির প্রধানের দায়িত্ব দেন। মূলত দলটির তলানিতে যাওয়া জনপ্রিয়তা বাড়াতেই তাকে এ দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল।

কিন্তু ২০০৬ সালে দলের এক কর্মীকে পেটানোর অভিযোগে সরকারি এক কর্মকর্তাকে থাপ্পর মেরে বিতর্কের জন্ম দেন। পরবর্তীতে ইউসুফ রাজা গিলানির মন্ত্রিপরিষদের তিনি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পালন করেন।

২০ বছর পিপলস পার্টির হয়ে কাজ করার পর ২০১১ সালে দলটি থেকে পদত্যাগ করেন তিনি। পিপলস পার্টিকে তিনি জারদারি লীগ আখ্যা দিয়ে সমালোচনা করেন।

একই বছর তিনি আবার পিএমএল-নওয়াজে যোগ দেন। কিন্তু কয়েক দিন পর তিনি পিটিআইয়ের হয়ে কাজ শুরু করে দেন।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter