কাদিয়ানীদের অমুসলিম ঘোষণা করা উচিত: ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ

  অনলাইন ডেস্ক ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২০:৩৮ | অনলাইন সংস্করণ

ঐতিহাসিক শোলাকিয়ার গ্র্যান্ড ইমাম আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ। ফাইল ছবি
ঐতিহাসিক শোলাকিয়ার গ্র্যান্ড ইমাম আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ। ফাইল ছবি

কাদিয়ানীদের অমুসলিম ঘোষণার মধ্যেই বাংলাদেশের শান্তি নিহিত দাবি করে বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার চেয়ারম্যান ও ঐতিহাসিক শোলাকিয়ার গ্র্যান্ড ইমাম আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ বলেন, কুরআন ও হাদিসের দৃষ্টিতে কাদিয়ানী সম্প্রদায় অমুসলিম। এটা স্পষ্ট। আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের অনুসারীরা একে অকপটে মানেন এবং স্বীকার করেন। বাংলাদেশের অবস্থান ও প্রেক্ষাপট অনুযায়ী কাদিয়ানী সম্প্রদায়কে অমুসলিম ঘোষণা করা উচিত।

পঞ্চগড়ে কাদিয়ানীদের অনুষ্ঠান বন্ধ করায় সরকারকে অভিনন্দন জানিয়ে আল্লামা মাসঊদ বলেন, সরকারের শুভবুদ্ধির উদয় হওয়ায় আমরা এই উদ্যোগকে অভিনন্দন জানাই। দেশের শান্তি বিনষ্ট হয় এমন অনুষ্ঠান আয়োজন থেকে প্রশাসন বিরত থাকুক সেটাই আমরা চাই। ভবিষ্যতেও এ বিষয়টি আমলে রাখার আহ্বান জানাই।

বুধবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার চেয়ারম্যান শাইখুল হাদিস আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এসব কথা বলেন।

দেশের মানুষের ঈমান ও আকিদা যাতে প্রশ্নের মুখে না পড়ে সে লক্ষ্যে কাদিয়ানীদের অমুসলিম ঘোষণার বিকল্প নেই উল্লেখ করে আল্লামা মাসঊদ বলেন, সৌদি আরবসহ বিশ্বের অনেক মুসলিম দেশেই কাদিয়ানীদেরকে অমুসলিম ঘোষণা করা হয়েছে। বাংলাদেশ একটি শান্তিপূর্ণ দেশ। এখানকার মুসলমানগণ পরধর্মের প্রতিও আন্তরিক। মুসলমান কখনোই লাঠালাঠি ও দাঙ্গা হাঙ্গামায় বিশ্বাসী নয়।

ইসলাম সবসময় শাশ্বত সৌন্দর্যের আহ্বান জানায়। ইসলামের জন্য নতুন কোনো সংবিধানেরও দরকার নেই। নতুন কোনো কথা, নতুন কোনো স্লোগানও ইসলামের সঙ্গে জুড়ে দেওয়া সম্ভব নয়। কুরআন আমাদের আসল সংবিধান। পৃথিবীতে আর কোনো নবী ও রাসূল আসবেন না- একথা স্পষ্ট কুরআনের ঘোষণা। কুরআনে আল্লাহ তাআলা খাতামুন্নাবিয়্যিন বলে নবী ও রাসূল আগমনের দরজা বন্ধ করে দিয়েছেন। নতুন করে কারও নবী ও রাসূল হওয়া সম্ভব নয়।

মুসলিম হিসেবে কাদিয়ানীরা এ দেশে কোনো তৎপরতা জারি রাখতে পারে না উল্লেখ করে আল্লামা মাসঊদ বলেন, তারা ভিন্ন কোনো সম্প্রদায় হিসেবে তাদের কার্যক্রম চালাতে পারে কিনা সেটা বিবেচনা করে দেখা যেতে পারে। তবে তারা যে অমুসলিম সে ঘোষণা যত দ্রুত দেওয়া হবে ততই সরকারের জন্য ভালো।

কাদিয়ানীদের বিরুদ্ধে আন্দোলনকারীদের উদ্দেশে আল্লামা মাসঊদ বলেন, আন্দোলন অত্যন্ত সুচিন্তিত ও সুচারুরূপে হওয়া উচিত। আন্দোলনের ফসল যেনো কোনোভাবেই কাদিয়ানীদের ঘরে না ওঠে সেটাও ভাবা উচিত।

হক ও বাতিলের বিরুদ্ধে আলেম ও তাওহীদি জনতার ধারাবাহিক শান্তিপূর্ণ আন্দোলন হওয়া উচিত উল্লেখ করে ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ বলেন, আলেমগণ হলেন এদেশের মুকুট। আলেমগণ মাঝে মাঝে জেগে ওঠে আন্দোলন করবেন না। সবসময় আলেমদেরকে হক ও বাতিলের বিরুদ্ধে শান্তিপূর্ণ আন্দোলন চালিয়ে যেতে হবে। আলেমগণ সজাগ ও সতর্ক থাকলেই বাতিল কখনো মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে পারবে না।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×