স্বামীর অনুমতি ছাড়া স্ত্রী কি দান-সদকা করতে পারবে?
jugantor
স্বামীর অনুমতি ছাড়া স্ত্রী কি দান-সদকা করতে পারবে?

  অনলাইন ডেস্ক  

১৭ জানুয়ারি ২০২১, ১৯:২৮:১০  |  অনলাইন সংস্করণ

স্বামীর অনুমতি ছাড়া স্ত্রী কি দান-সদকা করতে পারবে?

অসহায় দরিদ্রদের দান-সদকা করা একটি গুরুত্বপূর্ণ সওয়াবের কাজ। কোরআন-হাদিসে এ ব্যাপারে অনেক উৎসাহিত করা হয়েছে।

কিন্তু স্বামীর অনুমতি ছাড়া স্বামীর টাকা-পয়সা বা অন্য কোনো কিছু স্ত্রী দান-সদকা করতে পারবেন কি? বিষয়টি নিয়ে অনেকের কৌতুহল রয়েছে।

এ প্রসঙ্গে ইসলামী বিশেষজ্ঞরা বলছেন, স্বামীর অনুমতি ছাড়া স্বামীর টাকা-পয়সা বা অন্য কিছু স্ত্রীর কাউকে দেওয়া বা দান-সদকা করা বৈধ নয়।

কেননা, হজরত আবু উমামা বাহিলি (রা.) থেকে বর্ণিত আছে, রাসূলুল্লাহ (সা.) বিদায় হজের ভাষণে বলেছিলেন, কোনো মহিলা নিজের স্বামীর ঘর থেকে তার অনুমতি ছাড়া কোনো কিছু ব্যয় ও খরচ করবে না- এমনকি খাবারজাতীয় জিনিসও।

তবে বিষয়টি যে একবারে নিষিদ্ধ এমন নয়, বরং স্বামীর মৌন সমর্থন থাকলে তা করা যেতে পারে।

যদি স্বামীর অনুপস্থিতিতে স্ত্রী অল্প কিছু দান-সদকা করেন এবং পরবর্তীতে স্বামী তা জেনে মৌন সমর্থন অবলম্বন করেন- তাহলে ধরে নিতে হবে এতে তার পক্ষ থেকে অনুমতি রয়েছে। এ রকম দান-সদকা বৈধ। এতে ভালো কাজের কারণে স্ত্রী সওয়াব পাবেন।

আর স্বামীও তার সম্পদের অংশবিশেষ দান করার কারণে সওয়াব পাবেন।

তথ্যসূত্র: বুখারি শরিফ, হাদিস নং-১৪৪০, আবু দাউদ শরিফ, হাদিস নং-৩৫৭৫, কিতাবুল ফাতাওয়া খণ্ড-৩ পৃষ্ঠা-৩৪০।

স্বামীর অনুমতি ছাড়া স্ত্রী কি দান-সদকা করতে পারবে?

 অনলাইন ডেস্ক 
১৭ জানুয়ারি ২০২১, ০৭:২৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
স্বামীর অনুমতি ছাড়া স্ত্রী কি দান-সদকা করতে পারবে?
ছবি: সংগৃহীত

অসহায় দরিদ্রদের দান-সদকা করা একটি গুরুত্বপূর্ণ সওয়াবের কাজ। কোরআন-হাদিসে এ ব্যাপারে অনেক উৎসাহিত করা হয়েছে। 

কিন্তু স্বামীর অনুমতি ছাড়া স্বামীর টাকা-পয়সা বা অন্য কোনো কিছু স্ত্রী দান-সদকা করতে পারবেন কি? বিষয়টি নিয়ে অনেকের কৌতুহল রয়েছে। 
 
এ প্রসঙ্গে ইসলামী বিশেষজ্ঞরা বলছেন, স্বামীর অনুমতি ছাড়া স্বামীর টাকা-পয়সা বা অন্য কিছু স্ত্রীর কাউকে দেওয়া বা দান-সদকা করা বৈধ নয়। 

কেননা, হজরত আবু উমামা বাহিলি (রা.) থেকে বর্ণিত আছে, রাসূলুল্লাহ (সা.) বিদায় হজের ভাষণে বলেছিলেন, কোনো মহিলা নিজের স্বামীর ঘর থেকে তার অনুমতি ছাড়া কোনো কিছু ব্যয় ও খরচ করবে না- এমনকি খাবারজাতীয় জিনিসও। 

তবে বিষয়টি যে একবারে নিষিদ্ধ এমন নয়, বরং স্বামীর মৌন সমর্থন থাকলে তা করা যেতে পারে।   

যদি স্বামীর অনুপস্থিতিতে স্ত্রী অল্প কিছু দান-সদকা করেন এবং পরবর্তীতে স্বামী তা জেনে মৌন সমর্থন অবলম্বন করেন- তাহলে ধরে নিতে হবে এতে তার পক্ষ থেকে অনুমতি রয়েছে। এ রকম দান-সদকা বৈধ। এতে ভালো কাজের কারণে স্ত্রী সওয়াব পাবেন। 

আর স্বামীও তার সম্পদের অংশবিশেষ দান করার কারণে সওয়াব পাবেন। 

তথ্যসূত্র: বুখারি শরিফ, হাদিস নং-১৪৪০, আবু দাউদ শরিফ, হাদিস নং-৩৫৭৫, কিতাবুল ফাতাওয়া খণ্ড-৩ পৃষ্ঠা-৩৪০।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন