মৃত ব্যক্তির ছুটে যাওয়া নামাজের জন্য কি কাফফারা দিতে হবে?
jugantor
মৃত ব্যক্তির ছুটে যাওয়া নামাজের জন্য কি কাফফারা দিতে হবে?

  অনলাইন ডেস্ক  

১৩ নভেম্বর ২০২১, ১৪:১৫:০৪  |  অনলাইন সংস্করণ

মৃত ব্যক্তির ছুটে যাওয়া নামাজের জন্য কি কাফফারা দিতে হবে?

কোনো ব্যক্তির জীবদ্দশায় নামাজ ছুটে গিয়ে থাকলে যদি মৃত ব্যক্তি তার সম্পদ থেকে তার নামাজের কাফফারা আদায়ের জন্য ওসিয়ত করে যায়, আর তার নিজের মালও থাকে, তাহলে তার এক তৃতীয়াংশ সম্পদ থেকে কাফফারা আদায় করতে হবে।

আর যদি তার কোনো সম্পদ না থাকে, বা সে মাল রেখে গেছে কিন্তু কোনো কাফফারা আদায়ের ওসিয়ত করে যায়নি। তাহলে মৃত ব্যক্তির পক্ষ থেকে কাফফারা আদায় করা আত্মীয়দের ওপর জরুরী নয়। তবে স্বজনদের কাফফারা আদায় করে দেওয়াই উত্তম। এর দ্বারা মৃত ব্যক্তি শান্তি পায়।

কাফফারার পরিমাণ হল, প্রতিদিন বিতরসহ ছয় ওয়াক্ত নামাজ হিসেব করে প্রত্যেক ওয়াক্তের জন্য পৌনে দুই সের গম বা আটা অথবা এর বাজার মূল্য গরীব মিসকিনকে মালিক বানিয়ে দিতে হবে। অথবা প্রতি ওয়াক্তের বদলে একজন গরীবকে দুই বেলা তৃপ্তি সহকারে খানা খাওয়াতে হবে।

সূত্র: ফাতাওয়া শামী-২/৭২

মৃত ব্যক্তির ছুটে যাওয়া নামাজের জন্য কি কাফফারা দিতে হবে?

 অনলাইন ডেস্ক 
১৩ নভেম্বর ২০২১, ০২:১৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
মৃত ব্যক্তির ছুটে যাওয়া নামাজের জন্য কি কাফফারা দিতে হবে?
ছবি: সংগৃহীত

কোনো ব্যক্তির জীবদ্দশায় নামাজ ছুটে গিয়ে থাকলে যদি মৃত ব্যক্তি তার সম্পদ থেকে তার নামাজের কাফফারা আদায়ের জন্য ওসিয়ত করে যায়, আর তার নিজের মালও থাকে, তাহলে তার এক তৃতীয়াংশ সম্পদ থেকে কাফফারা আদায় করতে হবে।

আর যদি তার কোনো সম্পদ না থাকে, বা সে মাল রেখে গেছে কিন্তু কোনো কাফফারা আদায়ের ওসিয়ত করে যায়নি। তাহলে মৃত ব্যক্তির পক্ষ থেকে কাফফারা আদায় করা আত্মীয়দের ওপর জরুরী নয়। তবে স্বজনদের কাফফারা আদায় করে দেওয়াই উত্তম। এর দ্বারা মৃত ব্যক্তি শান্তি পায়।

কাফফারার পরিমাণ হল, প্রতিদিন বিতরসহ ছয় ওয়াক্ত নামাজ হিসেব করে প্রত্যেক ওয়াক্তের জন্য পৌনে দুই সের গম বা আটা অথবা এর বাজার মূল্য গরীব মিসকিনকে মালিক বানিয়ে দিতে হবে। অথবা প্রতি ওয়াক্তের বদলে একজন গরীবকে দুই বেলা তৃপ্তি সহকারে খানা খাওয়াতে হবে। 

সূত্র: ফাতাওয়া শামী-২/৭২

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন