কুমিল্লা ব্যুরো    |    
প্রকাশ : ২১ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০:০০ | অাপডেট: ২১ মার্চ, ২০১৭ ০০:২০:২৪ প্রিন্ট
টাকা ভাগাভাগি নিয়ে প্রাণ গেল ব্যবসায়ীর
কুসিক নির্বাচনে প্রার্থীর দেয়া ভোটের টাকা ভাগাভাগি নিয়ে সোমবার প্রতিবেশীর হামলায় নিহত কাটাবিল এলাকার ব্যবসায়ী খোরশেদ আলমের লাশ নিয়ে তার স্বজনদের আহাজারি -যুগান্তর

কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন (কুসিক) নির্বাচনে টাকার ভাগবাটোয়ারা নিয়ে সোমবার দুপুরে এক ব্যক্তি খুন হয়েছেন। নগরীর কাটাবিল এলাকায় ভোট কেনাবেচার টাকা নিয়ে নিজেদের মধ্যে মারামারির পর এ খুনের ঘটনা ঘটে। নিহত ব্যক্তির নাম মো. খোরশেদ আলম। চাল ব্যবসায়ী খোরশেদ আলম ওই এলাকার মৃত আলী হোসেনের ছেলে। কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ আবু ছালাম মিয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, খবর পেয়ে পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে। স্থানীয়রা জানায়, আসন্ন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ১৫ নম্বর ওয়ার্ডের বিএনপি সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থী সাইফুল বিন জলিলের পক্ষে ভোট কেনার জন্য টাকা নেন নগরীর কাটাবিল এলাকার কয়েকজন সমর্থক। তারা হচ্ছেন রাগা বাদশার বাড়ির হারুন মিয়া ও তার ছেলে তানিম, একই বাড়ির কাজল, জিলানী ও খোরশেদ আলম। প্রার্থীর কাছ থেকে নেয়া টাকা ভাগবাটোয়ারা করতে গিয়েই বিপত্তি ঘটে। হারুনের বিরুদ্ধে বেশি টাকা নেয়ার অভিযোগ ওঠে। চাল ব্যবসায়ী খোরশেদ আলম এর প্রতিবাদ করলে তাকে মারধর করা হয়। জানা যায়, হারুন মিয়া ও তার ছেলে তানিমের পিটুনিতে একপর্যায়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন খোরশেদ আলম। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে নগরীর একটি প্রাইভেট হাসপাতালে নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের ভাই জামাল উদ্দিন অভিযোগ করেন, আমার ভাইকে হারুন মিয়া ও তার ছেলে তানিম পিটিয়ে হত্যা করেছে। ঘটনার পর ঘাতক বাবা-ছেলে বাড়ি ছেড়ে পালিয়েছে। নগরীতে যখন উৎসবমুখর পরিবেশে নির্বাচনী প্রচার চলছিল, ঠিক তখনই এ ধরনের একটি খুনের ঘটনা ঘটল। এ ব্যাপারে কাউন্সিলর প্রার্থী সাইফুল বিন জলিলের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।


 


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত