সাংস্কৃতিক রিপোর্টার    |    
প্রকাশ : ১৭ নভেম্বর, ২০১৭ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
সাহিত্যের উৎসব ঢাকা লিট ফেস্ট শুরু

ভাষা এখানে কোনো প্রতিবন্ধকতা নয়। সব ভাষা, সব দেশের সাহিত্যই সমাজকে আলোকিত করার কথা বলে। শোনায় অন্ধকার দূর করার কথা। ছড়িয়ে দেয় শান্তির অমিয় বাণী। তাই দেশীয় সাহিত্যসহ বিশ্ব সাহিত্য, রাজনীতি, সমাজনীতি, বিজ্ঞানের আলাপ আর আদান-প্রদান সমৃদ্ধ করে পুরো মানব সমাজকেই। সেই প্রত্যয়েই বিশ্বের ২৪টি দেশের দু’শতাধিক সাহিত্যিক-শিল্পী এখন জড়ো হয়েছেন রাজধানীতে। বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে শুরু হয়েছে ৩ দিনের আন্তর্জাতিক সাহিত্য সম্মেলন ‘ঢাকা লিট ফেস্ট ২০১৭’।

মণিপুরী নৃত্যের মন-দোলানো পরিবেশনা শেষে বিখ্যাত সিরিয়ান কবি অ্যাডোনিস উদ্বোধন করেন উৎসবের। এ সময় আরও বক্তব্য রাখেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খান এবং উৎসবের তিন পরিচালক কাজী আনিস আহমেদ, সাদাফ সায্্ সিদ্দিকী ও আহসান আকবার। উপস্থিত ছিলেন, বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক।

উদ্বোধনী মঞ্চেই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনীভিত্তিক গ্রাফিক নভেল ‘মুজিব’-এর ইংরেজি সংস্করণের মোড়ক উন্মোচন হয়। ‘মুজিব’ গ্রাফিক নভেলটি প্রকাশ করেছে ঢাকা ট্রান্সলেশন সেন্টার।

বৃহস্পতিবার সারা দিন বৃষ্টির মধ্যেও গোটা বাংলা একাডেমিজুড়েই ছিল সাজ সাজ রব। একাডেমির সবুজ প্রান্তরে, পুকুর পাড়ে, ঐতিহাসিক বর্ধমান হাউসের চারদিক- সর্বত্রই ছোট-বড় নানা স্টল ও বিভিন্ন সেশন পরিবেশনের জন্য বেশ কিছু মঞ্চ। গোটা চত্বরে ঘুরেছেন দেশ-বিদেশের লেখকেরা। শুধু লেখক-সাহিত্যিক নন, শিল্প-সংস্কৃতির নানা শাখার মানুষের সরব উপস্থিতি ছিল। সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় এ উৎসবের আয়োজন করেছে যাত্রিক। উৎসবের প্রধান পৃষ্ঠপোষক ঢাকা ট্রিবিউন ও বাংলা ট্রিবিউন, সহ-পৃষ্ঠপোষক হিসেবে রয়েছে ব্র্যাক ব্যাংক।

উদ্বোধনী আনুষ্ঠানিকতা শেষে শুরু হয় অধিবেশনের পালা। প্রথমদিনে ৩১টি অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়। আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদ মিলনায়তনে ‘মুজিব : টেকিং হিস্টোরি টু দ্য নেক্সট জেনারেশন’ শীর্ষক অধিবেশনে আলোচনা করেন বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র রাদওয়ান সিদ্দিক মুজিব, গ্রাফিক নভেল ‘মুজিব’র শিল্পী সৈয়দ রাশাদ ইমাম তন্ময়, যুক্তরাজ্যের ‘গ্রান্টা’র অনলাইন সম্পাদক লুক নাঈমা, আরজু ইসমাইল ও ভারতের সাহিত্যিক জেরি পিনটো।

রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক বলেন, ‘মুজিব’র বাংলা ভার্সনটি যখন বাজারে আসে, তখন তরুণ প্রজন্মের মধ্যে আমি দারুণ সাড়া পেয়েছিলাম। বাংলাভাষী তরুণদের পাশাপাশি আমরা নভেলটি দেশের বাইরেও ছড়িয়ে দিতে চেয়েছি। তাই সবচেয়ে সহজবোধ্য ইংরেজি ভাষায় সাজানো হয়েছে নভেলটির ইংরেজি সংস্করণ। জাতির পিতার জীবনের নানা দিক এতে আকর্ষণীয়ভাবে তুলে ধরা হয়েছে।

কবি শামসুর রাহমান সেমিনার কক্ষে ‘দ্য শর্ট অব আইটি’ শীর্ষক অধিবেশনে আলোচনা করেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত যুক্তরাজ্যের সাহিত্যিক নাদিরা কবির বার্ব, পাকিস্তানের আমির হুসাইন ও সাংবাদিক সালাউদ্দিন ইমাম। দুপুরে কথাসাহিত্যিক আহমেদ মুস্তাফা কামালের সঞ্চালনায় নিজের সাহিত্যকর্ম নিয়ে আলোচনা করেন কথাসাহিত্যিক ও কালের কণ্ঠ সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলন। ভাস্কর নভেরা প্রদর্শনীলয়ে ‘বিউটিফুল অ্যানিমেলস’ শীর্ষক অধিবেশনে আলোচনা করেন যুক্তরাজ্যের সাংবাদিক লরেন্স অসবর্ন। কসমিক টেন্টে ‘বাংলার নারী, দুর্জয় ঘাঁটি’ শীর্ষক অধিবেশনে টেলিভিশন উপস্থাপিকা মিথিলা ফারজানার সঞ্চালনায় আলোচনা করেন কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন, আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ, সাংবাদিক নবনীতা চৌধুরী ও মাসুদা ভাট্টি।

আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদ মিলনায়তনে ‘স্টেজিং স্টোরিজ’ অধিবেশনে অংশ নেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর ও যুক্তরাজ্যের নাট্যকার-চলচ্চিত্র নির্মাতা ডেভিড হেয়ার। কবি শামসুর রাহমান সেমিনার কক্ষে ‘ফেক নিউজ’ শীর্ষক অধিবেশনে আলোচনা করেন পশ্চিমবঙ্গের সাহিত্যিক গর্গ চট্টোপাধ্যায়, ব্লগার আরিফ জেবতিক, ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা ও বাংলা ট্রিবিউন সম্পাদক জুলফিকার রাসেল। লনে ‘ওয়ার্ডস অফ কনসিয়েন্স : পোয়েট্রি অ্যান্ড অ্যাক্টিভিজম’ শীর্ষক অধিবেশনে লুক্সেমবার্গ রিভিউয়ের প্রধান সম্পাদক সৈয়দ শেহজার দো’জার সঞ্চালনায় আলোচনা করেন নওশিন ইউসুফ, কায়সার হক ও সোফিয়া ওয়াকার। ভাস্কর নভেরা প্রদর্শনীলয়ে ‘দ্য বেঙ্গলিস : এ রেস ডিভাইডেড’ শীর্ষক অধিবেশনে আলোচনা করেন ভারতীয় সাহিত্যিক সুদীপ চক্রবর্তী, কুশনভা চৌধুরী, ইসতিয়াক আহমেদ ও অনন্যা কবির। কসমিক টেন্টে ‘গল্পকার : সীমান যখন কেন্দ্র’ শীর্ষক অধিবেশনে আলোচনা করেন সৈয়দ আজাদ, কানু বসু মিশ্রা, মেরিনা নাসরিন ও মাসুদুল হক। নজরুল মঞ্চে ছিল ‘কবিতা : কিশোর মান্নান ও আবৃত্তি’ শীর্ষক পরিবেশনা। বিকালে নজরুল মঞ্চে ‘এমপারসেন্ড’ শীর্ষক অধিবেশনে তরুণ কবিরা কবিতা আবৃত্তি করেন। সন্ধ্যায় আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদ মিলনায়তনে প্রদান করা হয় ‘জেমকন সাহিত্য পুরস্কার ২০১৭’। এ বছর এ পুরস্কার পেয়েছেন কবি মোহাম্মদ রফিক, তরুণ কথাসাহিত্য পুরস্কার যৌথভাবে পেয়েছেন আশরাফ জুয়েল ও মামুন অর রশীদ এবং তরুণ কবিতায় পুরস্কার পেয়েছেন নুসরাত তুসিন।

সন্ধ্যায় আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদ মিলনায়তনে ছিল নুহাশ হুমায়ূনের পরিচালনায় নির্মিত ‘পেপারফ্রগস’ চলচ্চিত্রের উদ্বোধনী প্রদর্শনী। লনে ছিল ‘বাংলার মুখ-১’ শীর্ষক কবিতা পাঠের আয়োজন। যাতে কবিতা পাঠ করেন হাবীবুল্লাহ সিরাজী, আসাদ মান্নান, মুহম্মদ সামাদ প্রমুখ। ভাস্কর নভেরা প্রদর্শনীলয়ে ‘রোহিঙ্গা : বিপন্ন মানবতা’ শীর্ষক অধিবেশনে সেরিফ আল-শায়ারের সঞ্চালনায় আলোচনা করেন সম্পদ বড়–য়া, বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী, তপোধীর ভট্টাচার্য ও সাংবাদিক হারুন-অর-রশীদ।


 


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত