ইন্টারনেটে বন্ধ হচ্ছে অশ্লীল ভিডিও, পরিবারে স্বস্তি

  যুগান্তর রিপোর্ট ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২০:৩১ | অনলাইন সংস্করণ

ইন্টারনেটে নিরাপদে থাকুক সব শিশু।
ইন্টারনেটে নিরাপদে থাকুক সব শিশু। ছবি সংগৃহীত

নতুন প্রজন্মকে ইন্টারনেটের আপত্তিকর আসক্তি থেকে বের করে আনতে ইতিমধ্যে অশ্লীল কনটেন্ট, জুয়া বা বিপথগামী সাইট বন্ধ করে দিচ্ছে বাংলাদেশ সরকার। এর ফলে নিজের সন্তানদের এই বিষাক্ত থাবা থেকে রক্ষা করতে পেরে খুশি অনেক পরিবার।

অশ্লীল কনটেন্ট, জুয়া বা বিপথগামী সাইট বন্ধের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে যুগান্তরকে জানিয়েছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। তিনি বলেন, দেশীয় সংস্কৃতির জন্য হুমকি রয়েছে এমন সব ধরনের সাইট আমরা বন্ধ করে দিতে চাই।আমি ইন্টারনেটকে নিরাপদ করতে চাই।

মন্ত্রী বলেন, আমার দেশ ইউরোপ না আমেরিকা না আমার দেশে বাংলাদেশ। তাই এ দেশের মানুষ, সমাজ, সাহিত্য, সংস্কৃতি সঙ্গে যায় না এমন কোনো কিছুকেই আমি রাখতে চাই না।

এসব সাইট বন্ধ করলে আবার খোলা হয়, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, খোলা হলে বন্ধ করে দেব। যতবার খোলা হবে ততবার বন্ধ করে দেব। মানুষের জীবন ও মান ও দেশের জন্য ক্ষতিকর এসব সাইট বন্ধে কতটুকু সফল হব জানি না। তবে আমি আমার সর্বোচ্চ শক্তি দিয়ে এই দায়িত্ব পালন করে যাব।

অশ্লীল ভিডিও, ছবি, কনটেন্ট, জুয়া বা বিপথগামী সাইট বন্ধ করে দেয়ায় খুশি অভিভাবকেরা।

এ বিষয়ে একটি বেসরকারি ব্যাংকে কর্মরত আশরাফুল ইসলাম যুগান্তরকে বলেন, আমরা সন্তান তাসিন ১০ শ্রেণিতে ইংরেজি ভার্সনে পড়ালেখা করে। ছেলে বড় হচ্ছে। এছাড়া মোবাইলও ব্যবহার করে। এখন ইন্টারনেট খুবই সহজলভ্য হওয়ায় উঠতি বয়সী এসব সন্তানদের নিয়ে দুচিন্তা বাড়ে।তাই সরকারের এমন উদ্যোগ আরো আগেই নেয়া উচিত ছিল। তবে দেরিতে হলেও বিষয়টি নজরে এসছে। ব্যক্তিগতভাবে আমি সরকারকে ধন্যবাদ জানাই।

অভিভাবকদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, অশ্লীল ভিডিও, ছবি, কনটেন্ট, জুয়া বা বিপথগামী সাইট বন্ধ করে উদ্যোগে তারা অনেক খুশি। তাদের মতে, অশ্লীললতা দূরীকরণে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও নজরদারি বাড়ানো উচিত।

[প্রিয় পাঠক, আপনিও দৈনিক যুগান্তর অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, এখন আমি কী করব, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-[email protected]-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
আরও পড়ুন
--
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×