শীতে সর্দি-কাশি, খেয়ে দেখুন মধু

  লাইফস্টাইল ডেস্ক ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ১১:২৬ | অনলাইন সংস্করণ

শীতে সর্দি-কাশি, খেয়ে দেখুন মধু
শীতে সর্দি-কাশি, খেয়ে দেখুন মধু। ছবি সংগৃহীত

শীতের শুরুতে সর্দি-কাশি খুব সাধারণ রোগ। শীতের সময়ে এই রোগে বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়ে থাকে। তবে এই রোগে ওষুধ খাওয়ার কোনো দরকার নেই। ঘরোয়া উপায়ে এ রোগ ভালো হয়।

সর্দি-কাশি হলে খেয়ে দেখতে পারেন মধু। নিয়ম মেনে মধু খেলে খুব সহজে সর্দি-কাশি ভালো হয়। মধু কাশি কমাতে সাহায্য করে। যষ্টিমধু ভেতর থেকে কফ বের করার পাশাপাশি গলাকে পরিষ্কার করে। তবে এখন প্রশ্ন হলো¬– মধু কীভাবে খাবেন।

যেভাবে খাবেন মধু-

১. এক গ্লাস কুসুম গরম পানিতে ২ টেবিল চামচ মধু, ১ টেবিল চামচ লেবুর রস ও ১ চা চামচ আদার রস মিশিয়ে প্রতিদিন সকাল ও সন্ধ্যায় খেলে এতে সর্দি-কাশি সমস্যা দূর হবে।

২. রাতে ঘুমানোর আগে গরম দুধের সঙ্গে ২ টেবিল চামচ মধু মিশিয়ে খেতে পারেন। এতে উপকার পাবেন।

৩. দিনে ৩ বার করে ১ টেবিল চামচ মধু খেলেও কাশি নিয়ন্ত্রণে থাকে।

৪. এক গ্লাস কুসুম গরম পানিতে ১ চা চামচ গোল মরিচের গুঁড়া ও ১ টেবিল চামচ মধু মিশিয়ে দিনে ৩ বার খেতে পারেন।

৫. চায়ের সঙ্গে ১ চা চামচ মধু ও ১ চা চামচ আদার রস মিশিয়ে খেলেও সর্দি ও কাশি ভালো হয়।

৬. ১ টেবিল চামচ মধুর সঙ্গে সমপরিমাণ বাসকপাতার রস মিশিয়ে খেলে সর্দি ও কাশি সেরে যায়।

৭. এক চা চামচ তুলসী পাতার রসের সঙ্গে সমপরিমাণ মধু মিশিয়ে খেতে পারেন। এত উপকার পাবেন।

৮. ১ বছর বয়সের নিচে শিশুদের মধু না খাওয়ানো ভালো।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

[প্রিয় পাঠক, আপনিও দৈনিক যুগান্তর অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, এখন আমি কী করব, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-[email protected]-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

 
×