সুস্থ থাকতে এড়িয়ে চলুন ৪ খাবার

  লাইফস্টাইল ডেস্ক ০৬ এপ্রিল ২০২০, ১৬:৩৫:১৯ | অনলাইন সংস্করণ

ছবি সংগৃহীত

ফাস্টফুড কালচারে অভ্যস্ত হয়ে পড়া এবং অনিয়ন্ত্রিত জীবনযাপনের কারণে শরীরে জেঁকে বসছে রোগবালাই।তাই সুস্থ থাকতে হলে কিছু খাবার অবশ্যই এড়িয়ে চলতে হবে।

নতুন এক গবেষণা বলছে,শরীরে বেশি চর্বি থাকলে অনিয়মিত হৃদস্পন্দনের শিকার হয় মানুষ। অনিয়মিত বা দ্রুত হৃদ্স্পন্দন আরটিরিয়াল ফিব্রিলেশন নামে পরিচিত। যা স্ট্রোক, হার্ট ফেইলিওর এবং অন্যান্য জটিলতার সৃষ্টি করতে পারে।

পেন স্টেট গবেষণাটি করে। যা আমেরিকান জার্নাল অফ কার্ডিওলজি প্রকাশক করেছে।

গবেষণার জন্য আট বছর ধরে অতিরিক্ত ও সাধারণ উভয় ওজনের কিছু মানুষকে পযবেক্ষণ করা হয়। পরীক্ষামূলক ভাবে দেখা গেছে যে, চর্বি যুক্ত মানুষদের সাধারণ মানুষদের থেকে ৪০% বেশি আট্রিয়াল ফিব্রিলেশন হওয়ার সম্ভবনা থাকে।

গবেষক অ্যান্ড্রু ফয়ের মতে, যদিও আপনি স্থূলতার শিকার কিন্তু এই গবেষণা থেকে প্রমাণ করেছে ওজন কমানোর বিষয়টি একেবারেই সাধারণ।

খাদ্য নিয়ন্ত্রণ, ব্যায়াম এমনকি অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে ওজন কমানো যায়। আট্রিয়াল ফিব্রিলেশনের মত দীর্ঘস্থায়ী শর্ত অবশ্যই আপনার জীবনের ঝুঁকি কমিয়ে দেবে।

তাই অতিরিক্ত ওজন কমাতে ৪ খাবার এড়িয়ে চলুন -

রীফাইনড কার্বোহাইড্রেটস

প্রথমেই যা করতে হবে সেটি হলো, আপনার প্রতিদিনের ডায়েট থেকে রীফাইনড কার্বোহাইড্রেটস সরিয়ে ফেলে খোসা সমেত শস্যদানা খান। যেসব খাবারে যথেষ্ঠ পরিমাণে কার্বোহাইড্রেটস থাকে। এসব খাবার রক্তের শর্করার এবং উচ্চ রক্তচাপ পরিচালনার ক্ষেত্রেও গুরুত্বপূর্ণ।

রেড মিট

খাসির মাংস ও গরুর মাংস ছেড়ে মুরগির মাংস বা হাঁসের মাংস খেতে পারেন। এসব খাবার আপনার অতিরিক্ত চর্বি কমাতে সাহায্য করবে। চর্বিহীন মাংস আপনার শরীরের ওজন কমানোর সঙ্গে সঙ্গে প্রোটিনের মাত্রাও বাড়ায়।

ট্রান্স ফ্যাট

চিপস, তেলেভাজা জাতীয় খাদ্যে লবণ ও ট্রান্স ফ্যাটের পরিমাণ অনেক বেশি। তাই এই ধরনের খাবার না খাওয়াই ভালো। ফাস্ট ফুড , চীজ যুক্ত পাস্তা , নুডলস , বা যে কোনো রেডিমেড খাবারেই ট্রান্স ফ্যাট প্রচুর পরিমানে থাকে।

রিফাইন চিনি

শরীরে চর্বি জমার অন্যতম কারণ রীফাইনড চিনি। তাই অতিরিক্ত ওজনের মানুষেরা এসব খাবার থেকে দূরে থাকায় শ্রেয়।আর পরিমাণের অতিরিক্ত চিনি খা্ওয়া যাবে না।

জাঙ্ক ফুড

অতিরিক্ত চর্বির অন্যতম কারণ হলো জাঙ্ক ফুডের নেশা। সপ্তাহে একবার বার্গার বা ভাজাভুজি খাওয়া যেতেই পারে। তবে তা যেন আপনার প্রতিদিনের রুটিনে পরিণত না হয় । যে কোনো অতিরিক্ত ওজনের মানুষের উচিত এসমস্ত খাবার ত্যাগ করে তাজা ফল সবজি খাওয়া।

তথ্যসূত্র: এনডিটিভি

[প্রিয় পাঠক, আপনিও দৈনিক যুগান্তর অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, এখন আমি কী করব, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-[email protected]-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
আরও খবর
 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত