যেসব কথা বসকে কখনোই বলবেন না

  লাইফস্টাইল ডেস্ক ২৪ এপ্রিল ২০১৮, ২০:১৯ | অনলাইন সংস্করণ

যেসব কথা বসকে কখনোই বলবেন না
যেসব কথা বসকে কখনোই বলবেন না

কর্মক্ষেত্রে আপনাকে হতে হবে পুরোপুরি পেশাদারত্ব মনোভাবের। কারণ কর্মজীবনে আপনি যদি নিজের জায়গা তৈরি করে নিতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে অনেক বিষয় ভেবেচিন্তে করতে হবে। হুটহাট কোনো কাজ করা যাবে না।

মনে রাখবেন অফিসে বসের সঙ্গে কথা বলবেন ভেবেচিন্তে।বসের সঙ্গে কথা বলার সময় পেশাগত ব্যাপারটি আপনার খেয়াল রাখা উচিত। ভুল কিছু বলে ফেললে আপনার চাকরির যে কোনো প্রকার ক্ষতি হয়ে যেতে পারে।

আসুন জেনে নেই অফিসে বসকে যেসব কথা কখনোই বলবেন না।

ব্যস্ততা প্রকাশ করবেন না

অফিসের কাজের বাইরেও আপনার হয়তো অনেক ব্যস্ততা থাকতে পারে। তবে ভুলেও আপনার ব্যস্ততার কথাটি বসকে বলবেন না। চরম ব্যস্ত থাকলে কোন কাজটা আগে করবেন সেটা আপনার বসের ওপর ছেড়ে দিন।

অন্যের দোষ দেবেন না

কখনোই অন্যের ঘাড়ে দোষ চাপানোর চেষ্টা করবেন না। আর কখনোই শিশুসুলভ আচরণ করবেন না। আপনি দোষ করে অন্যকে বলির পাঠা বানাবেন এটা অনুচিত। বস যদি বুঝতে পারে আপনি দোষী তবে তিনি আপনার প্রতিই অসন্তুষ্ট হবেন।

নতুন চাকরি খোঁজা

পদোন্নতি, বেতন বাড়ানোসহ বিভিন্ন কারণে আপনি নতুন চাকরি খুঁজতে পারেন। তবে তা কখনোই আপনার বসকে বলবেন না। বস যদি জানতে পারেন যে আপনি মনে-প্রাণে নতুন চাকরিতে যোগ দেয়ার চেষ্টা করছেন তাহলে এটা তার গালে থাপ্পড় মারার মতো হবে।

কাজে অপারগতা প্রকাশ

আপনার বস আপনাকে কোনো কাজ করতে বললে আপনি যদি সত্যিই না জানেন তা কীভাবে করতে হয় তাহলে সেটা তার মুখের ওপর কখনো বলবেন না। আপনি আপনার বসকে শুরুটা কীভাবে করবেন সেটা জিজ্ঞেস করতে পারেন, অথবা কোনো সহকর্মী বা ইন্টারনেট থেকে শিখে নিয়ে কাজ করতে পারেন।

বেতন বাড়ানো

বসের সঙ্গে টাকা-পয়সা নিয়ে আপনি কথাই বলবেন না। তবে বেতন নিয়ে দরাদরি এবং ব্যক্তিগত সমস্যা দেখিয়ে বেতন বাড়ানোর কথা কখনও বলবেন না। এতে আপনার বস কোনোরকম প্রভাবিত হবেন না।

আগের বসের সঙ্গে নতুন বসের তুলনা

আপনাকে যদি আপনার অবস্থানের পুরাতন কারো সঙ্গে তুলনা করে কোনো কথা বলা হয় তাহলে আপনার নিশ্চয় খারাপ লাগবে। আপনার বসের ব্যাপারটাও ঠিক তেমনই। এই কোজটি কখনোই করবেন না।

আগে বের হওয়া

সত্যিই যদি আপনার কোনো সমস্যা থেকে থাকে সেটা এক ব্যাপার। যেমন: ডাক্তার দেখানো। কিন্তু অফিসে কোনো কাজ নেই বলে বসকে কখনও চলে যাওয়ার কথা বলতে যাবেন না। যেসব কর্মীরা নতুন নতুন কাজে উৎসাহী হয় তাদের বস অনেক পছন্দ করেন। সুতরাং অফিসে কোনো কাজ না থাকলে নতুন নতুন কাজ সম্বন্ধে খোঁজ নিন।

বিষণ্ণতা প্রকাশ

আপনার বিষণ্ণতা দূর করার দায়িত্ব আপনার বসের নয়। নিজের বিষণ্ণতা প্রকাশ না করে নিত্যনতুন কাজে সহযোগিতা করুন এবং আপনার বসকে আরও কাজ দেয়ার কথা বলুন।

ক্লান্তির প্রকাশ

আপনি হয়তো আপনার বসের খুব কাছের মানুষ হয়ে গেছেন এবং তার সঙ্গে খুব বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কও গড়ে উঠেছে। তার মানে এই নয় যে, কাজ করতে করতে ক্লান্ত হয়ে যাওয়ার ব্যাপারটা আপনি তাকে মন খুলে বলে দেবেন।

[প্রিয় পাঠক, আপনিও দৈনিক যুগান্তর অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, এখন আমি কী করব, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন[email protected]এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে]

আরও পড়ুন
pran
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
bestelectronics

mans-world

 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.