খাবার অপচয় বন্ধ করবেন যেভাবে
jugantor
খাবার অপচয় বন্ধ করবেন যেভাবে

  লাইফস্টাইল ডেস্ক  

০৯ জুন ২০২১, ০০:২৭:২৯  |  অনলাইন সংস্করণ

বিশ্বে প্রতিবছর প্রায় ১.৩ বিলিয়ন টনেরও বেশি খাদ্যদ্রব্য অপচয় হয় বলে জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার একটি সমীক্ষায় জানা গেছে।

খাবার অপচয়ের ফলে, পরিবেশের ওপরও এর খারাপ প্রভাব পড়ছে। তাই,আজ থেকে খাবার অপচয় করা বন্ধ করুন।জেনে নিন বাড়িতে খাদ্যের অপচয় বন্ধ করার কিছু টিপস-

যতটুকু দরকার ততটুকু রান্না করুন

একসাথে অনেক রান্না না করে, যতটুকু দরকার ততটুকু রান্না করুন। এর ফলে খাদ্য অপচয় কম হবে এবং আর্থিক দিক থেকেও আপনি লাভবান হতে পারবেন।

মেয়াদ থেকে খাবার কিনুন

খাবারের মেয়াদ ফুরিয়ে যাওয়ার কারণে আমরা বিভিন্ন খাদ্যদ্রব্য ফেলে দিই, নষ্ট করি। তাই, খাবার যাতে নষ্ট না হয়, সেজন্য কেনার সময় প্রতিটি প্যাকেটের ওপর লেখা মেয়াদ ফুরিয়ে যাওয়ার তারিখ দেখার অভ্যাস করুন।

ফল এবং শাকসবজি নষ্ট হওয়ার আগে ব্যবহার করুন

বাড়িতে থাকা ফল নরম হয়ে গেলে, সেগুলো স্মুদি বা শরবত বানিয়ে খেতে পারেন। এছাড়াও, রুপচর্চার কাজেও ব্যবহার করতে পারেন। আর সবজি যদি তার সতেজ ভাব হারাতে থাকে, তাহলে সেগুলো স্যুপ বানিয়ে খেতে পারেন।

ফ্রিজের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখুন

আজকাল বেশিরভাগ খাদ্যদ্রব্যই আমরা ফ্রিজে রাখি, যাতে জিনিসগুলো ভালো থাকে। তাই ফ্রিজের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করা অত্যন্ত জরুরি। খাদ্যদ্রব্যকে ফ্রেশ রাখার জন্য ১°- ৫° সেলসিয়াস হল আদর্শ তাপমাত্রা। ফ্রিজের তাপমাত্রা বেশি বেড়ে গেলে অনেক সময়ই খাদ্য নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

তালিকা অনুযায়ী কিনুন

বাজারে যাওয়ার আগে, প্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্যের একটি তালিকা বানিয়ে নিন এবং সেই তালিকা অনুযায়ী খাদ্যদ্রব্য ক্রয় করুন। তার থেকে বেশি কিছু কিনবেন না।

খাবার সঠিকভাবে সংরক্ষণ করুন

খাবার সঠিক জায়গায় সংরক্ষণ করুন, যা আপনার খাদ্যদ্রব্যকে দীর্ঘদিন পর্যন্ত ভালো রাখতে সহায়তা করবে, যেমন - পেঁয়াজ, রসুন, কলা, আলু, আপেল, এগুলো ঘরোয়া তাপমাত্রায় সংরক্ষণ করা সবচেয়ে ভালো।

[প্রিয় পাঠক, আপনিও দৈনিক যুগান্তর অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, এখন আমি কী করব, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-jugantorlifestyle@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

খাবার অপচয় বন্ধ করবেন যেভাবে

 লাইফস্টাইল ডেস্ক 
০৯ জুন ২০২১, ১২:২৭ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বিশ্বে প্রতিবছর প্রায় ১.৩ বিলিয়ন টনেরও বেশি খাদ্যদ্রব্য অপচয় হয় বলে জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার একটি সমীক্ষায় জানা গেছে।

খাবার অপচয়ের ফলে, পরিবেশের ওপরও এর খারাপ প্রভাব পড়ছে। তাই,আজ থেকে খাবার অপচয় করা বন্ধ করুন।জেনে নিন বাড়িতে খাদ্যের অপচয় বন্ধ করার কিছু টিপস-

যতটুকু দরকার ততটুকু রান্না করুন

একসাথে অনেক রান্না না করে, যতটুকু দরকার ততটুকু রান্না করুন। এর ফলে খাদ্য অপচয় কম হবে এবং আর্থিক দিক থেকেও আপনি লাভবান হতে পারবেন।

মেয়াদ থেকে খাবার কিনুন

খাবারের মেয়াদ ফুরিয়ে যাওয়ার কারণে আমরা বিভিন্ন খাদ্যদ্রব্য ফেলে দিই, নষ্ট করি। তাই, খাবার যাতে নষ্ট না হয়, সেজন্য কেনার সময় প্রতিটি প্যাকেটের ওপর লেখা মেয়াদ ফুরিয়ে যাওয়ার তারিখ দেখার অভ্যাস করুন।

ফল এবং শাকসবজি নষ্ট হওয়ার আগে ব্যবহার করুন

বাড়িতে থাকা ফল নরম হয়ে গেলে, সেগুলো স্মুদি বা শরবত বানিয়ে খেতে পারেন। এছাড়াও, রুপচর্চার কাজেও ব্যবহার করতে পারেন। আর সবজি যদি তার সতেজ ভাব হারাতে থাকে, তাহলে সেগুলো স্যুপ বানিয়ে খেতে পারেন।

ফ্রিজের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখুন

আজকাল বেশিরভাগ খাদ্যদ্রব্যই আমরা ফ্রিজে রাখি, যাতে জিনিসগুলো ভালো থাকে। তাই ফ্রিজের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করা অত্যন্ত জরুরি। খাদ্যদ্রব্যকে ফ্রেশ রাখার জন্য ১°- ৫° সেলসিয়াস হল আদর্শ তাপমাত্রা। ফ্রিজের তাপমাত্রা বেশি বেড়ে গেলে অনেক সময়ই খাদ্য নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

তালিকা অনুযায়ী কিনুন

বাজারে যাওয়ার আগে, প্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্যের একটি তালিকা বানিয়ে নিন এবং সেই তালিকা অনুযায়ী খাদ্যদ্রব্য ক্রয় করুন। তার থেকে বেশি কিছু কিনবেন না।

খাবার সঠিকভাবে সংরক্ষণ করুন

খাবার সঠিক জায়গায় সংরক্ষণ করুন, যা আপনার খাদ্যদ্রব্যকে দীর্ঘদিন পর্যন্ত ভালো রাখতে সহায়তা করবে, যেমন - পেঁয়াজ, রসুন, কলা, আলু, আপেল, এগুলো ঘরোয়া তাপমাত্রায় সংরক্ষণ করা সবচেয়ে ভালো।

 

[প্রিয় পাঠক, আপনিও দৈনিক যুগান্তর অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, এখন আমি কী করব, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-jugantorlifestyle@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন