যে কারণে পাতে ঢেঁড়স রাখবেন
jugantor
যে কারণে পাতে ঢেঁড়স রাখবেন

  অনলাইন ডেস্ক  

১৮ জুন ২০২১, ২৩:১৬:৩৬  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢেঁড়স অনেকের রান্নাঘরেই উপেক্ষিত। আঠালো এই সবজি পাতে নিতে চান না অনেকেই। কিন্তু সবুজ এই সবজি বাতিলের আগে দ্বিতীয়বার ভাবুন।

ঢেঁড়স ফাইবারের ভালো উৎস। এতে আছে ভিটামিন এ, ভিটিামিন বি,ভিটামিন সি আর ফলিক এসিড। এছাড়া ঢেঁড়সে কার্বোহাইডেটের পরিমান কম থাকায় এটা খেলে ওজন বাড়ার ভয় একদমই নেই।

ডায়াবেটিসের জন্য ঢেঁড়স একটি ভালো প্রতিষেধক। ঢেঁড়স রক্তে শর্করার মাত্রা হ্রাস করতে সাহায্য করে আর কোলেস্টেরল উৎপাদনে বাধা সৃষ্টি করে।

প্রতি ১০০ গ্রাম ঢেঁড়সে আছে ১.৮ গ্রাম আমিষ, ১৮ মিলিগ্রাম ভিটামিন-সি, ৯০ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম, ১ মিলিগ্রাম লৌহ ও আয়োডিন। এছাড়াও এতে রয়েছে ক্যারোটিন, থায়ামিন, রিবোফ্লাভিন, নিয়াসিন, অক্সালিক এসিড ও অত্যাবশ্যকীয় অ্যামাইনো এসিড।

ঢেঁড়সের মধ্যে রয়েছে সলিউবল ফাইবার (আঁশ) পেকটিন, যা রক্তের খারাপ কোলেস্টেরলকে কমাতে সাহায্য করে এবং অ্যাথেরোসক্লোরোসিস প্রতিরোধ করে।

ঢেঁড়স গর্ভপাত প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। ত্বকের বিষাক্ত পদার্থ দূর করে শরীরের টিস্যু পুনর্গঠন ও ব্রণ দূর করতে সাহায্য করে ঢেঁড়স।

ঢেঁড়সে থাকা ভিটামিন সি, অ্যান্টি ইনফ্লামেটোরি ও অ্যান্টি অক্সিডেন্ট শ্বাসকষ্ট প্রতিরোধে সাহায্য করে।

ঢেঁড়সে থাকা উচ্চমাত্রার অ্যান্টি অক্সিডেন্ট কোলন ক্যানসারের ঝুঁকি কমায়।

[প্রিয় পাঠক, আপনিও দৈনিক যুগান্তর অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, এখন আমি কী করব, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-jugantorlifestyle@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

যে কারণে পাতে ঢেঁড়স রাখবেন

 অনলাইন ডেস্ক 
১৮ জুন ২০২১, ১১:১৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢেঁড়স অনেকের রান্নাঘরেই উপেক্ষিত। আঠালো এই সবজি পাতে নিতে চান না অনেকেই। কিন্তু সবুজ এই সবজি বাতিলের আগে দ্বিতীয়বার ভাবুন।

ঢেঁড়স ফাইবারের ভালো উৎস।  এতে আছে ভিটামিন এ, ভিটিামিন বি,ভিটামিন সি আর ফলিক এসিড। এছাড়া ঢেঁড়সে কার্বোহাইডেটের পরিমান কম থাকায় এটা খেলে ওজন বাড়ার ভয় একদমই নেই।

ডায়াবেটিসের জন্য ঢেঁড়স একটি ভালো প্রতিষেধক। ঢেঁড়স রক্তে শর্করার মাত্রা হ্রাস করতে সাহায্য করে আর কোলেস্টেরল উৎপাদনে বাধা সৃষ্টি করে।

প্রতি ১০০ গ্রাম ঢেঁড়সে আছে  ১.৮ গ্রাম আমিষ, ১৮ মিলিগ্রাম ভিটামিন-সি,  ৯০ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম, ১ মিলিগ্রাম লৌহ ও আয়োডিন। এছাড়াও এতে রয়েছে ক্যারোটিন, থায়ামিন, রিবোফ্লাভিন, নিয়াসিন, অক্সালিক এসিড ও অত্যাবশ্যকীয় অ্যামাইনো এসিড।

ঢেঁড়সের মধ্যে রয়েছে সলিউবল ফাইবার (আঁশ) পেকটিন, যা রক্তের খারাপ কোলেস্টেরলকে কমাতে সাহায্য করে এবং অ্যাথেরোসক্লোরোসিস প্রতিরোধ করে।

ঢেঁড়স গর্ভপাত প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। ত্বকের বিষাক্ত পদার্থ দূর করে শরীরের টিস্যু পুনর্গঠন ও ব্রণ দূর করতে সাহায্য করে ঢেঁড়স।

ঢেঁড়সে থাকা ভিটামিন সি, অ্যান্টি ইনফ্লামেটোরি ও অ্যান্টি অক্সিডেন্ট শ্বাসকষ্ট প্রতিরোধে সাহায্য করে।

ঢেঁড়সে থাকা উচ্চমাত্রার অ্যান্টি অক্সিডেন্ট  কোলন ক্যানসারের ঝুঁকি কমায়।

[প্রিয় পাঠক, আপনিও দৈনিক যুগান্তর অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, এখন আমি কী করব, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-jugantorlifestyle@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন