ঈদে পুরুষের সাজ

  লাইফস্টাইল ডেস্ক ১৩ জুন ২০১৮, ১৮:৪৮ | অনলাইন সংস্করণ

ঈদে পুরুষের সাজ, ছবি সংগৃহীত
ঈদে পুরুষের সাজ, ছবি সংগৃহীত

ঈদের সকালে প্রথম প্রস্তুতি মানেই নামাযের জন্য তৈরি হওয়া। বাচ্চা ছেলে থেকে শুরু করে বয়স্ক পর্যন্ত ঈদের নতুন পোশাক হিসেবে বেছে নেন পছন্দের পাঞ্জাবি।

এছাড়া ফ্যাশনের এই দুনিযায় নারীদের সঙ্গে পুরুষেরা থেমে নেই।

আসুন জেনে নেই ঈদে পুরুষের সাজ।

ফ্যাশন অনুষঙ্গগুলো ঠিক আছে তো :

ঈদে ঠিক কিভাবে নিজেকে সাজাতে চান তা নির্ধারণ করুন এখনই। সেই সঙ্গে আপনার নানারকম ফ্যাশন অনুষঙ্গগুলো জোগাড় করে হাতের কাছে রেখে দিন।

তাহলে ঈদের দিন শখের সাজের জিনিস না থাকার বিড়ম্বনায় পড়তে হবে না। সাজ অনুষঙ্গ গোছানোর প্রথম পর্যায়ে খেয়াল করুন প্রয়োজনীয় কোনো কিছু কেনা বাদ পড়ে গেছে কিনা। যেমন ঈদের দিনে ব্যবহার করার সুগন্ধি, হাতে পরার ব্রেসলেট, চুলের জেল, লকেট ইত্যাদি।

কিছু সাজ সেরে নিন এখনই :

ঈদের মূল সাজের আগেই সেরে নিন কিছু গুরুত্বপূর্ণ কাজ। এখনই কাটিয়ে ফেলুন চুল। ঈদের আগের দিন চুল কাটালে দেখা যাবে চুলের কাটিং চেহারার সঙ্গে ঠিকমতো মিলে উঠছে না।

কারণ চুল কাটানোর পর তা সেট হয়ে যেতে অন্তত দুই-তিন দিন সময় লেগে যায়। এই সময়টুকু না দেয়া গেলে সদ্য কাটানো চুলের জন্য নিজেকে লাগতে পারে অপ্রস্তুত।

চুল কাটানোর ক্ষেত্রে নিজের চেহারার সঙ্গে ঠিকমতো হয়ে যায় এমন কাটিং বেছে নিন। একবার এক স্টাইলে চুল কেটে ফেললে যে আবার হুট করেই স্টাইল পরিবর্তন করতে পারবেন না; বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে চিন্তা করে চুল কাটান।

সেই সঙ্গে হেয়ার ট্রিটমেন্ট করাতে চাইলেও তা সেরে ফেলুন এখনই। রোজা ও শপিংয়ের ব্যস্ততায় পড়ে যদি হাত-পায়ের নখ কাটার কথা ভুলে গিয়ে থাকেন, তবে এবার মনোযোগ দিন।

ফেসিয়াল করাতে চাইলেও আর দেরি না করাই ভালো। সেই সঙ্গে মেনিকিউর, পেডিকিউর এবং পর্যাপ্ত সময় থাকলে করিয়ে ফেলুন স্পা।

ঈদের দিনের সাজ

ঈদের দিন সবাই চায় নিজেকে সুন্দরভাবে পরিপাটি করে সাজাতে। অপরের সামনে নিজেকে যতটা সম্ভব গোছালোভাবে উপস্থাপন করতে।

এজন্য ঈদের দিনটিকে একাধিক ভাগ করে নিজের সাজ প্রস্তুতি গ্রহণ করুন। সেক্ষেত্রে প্রথমেই সকালের সাজ।

ঈদের সকালের সাজের শুরুতেই নামাজের কথা মনে রাখতে হবে। ঈদের নামাজের জন্য পাঞ্জাবির বিকল্প নেই। সুতরাং সকালে পাঞ্জাবি পরুন।

নামাজের পাঞ্জাবির জন্য হালকা রঙেরটি বেছে নেয়াই উত্তম। পাঞ্জাবির সঙ্গে সাদা রঙের পায়জামা মানানসই হবে নামাজের জন্য। আর এক্ষেত্রে খুব বেশি গাঢ় রঙের জামা এড়িয়ে চলাই ভালো।

নামাজে যাওয়ার সময় সুগন্ধি ব্যবহার করতে পারেন। তবে এক্ষেত্রে বডি স্প্রে ব্যবহার না করে আতর ব্যবহার করাই উচিত। আতরের ক্ষেত্রে হালকা ঘ্রাণ প্রাধান্য দিন। মাত্রাতিরিক্ত তীব্র ঘ্রাণের আতর অন্যের জন্য বিরক্তির কারণ হতে পারে।

নামাজ শেষের পর থেকে দুপুর পর্যন্ত সময়টুকুকে ঈদের দিনের দ্বিতীয় ভাগে ফেলতে পারেন। এ সময়ে সাধারণত বাড়িতে থাকতেই পছন্দ করেন অনেকে। আবার অনেকে বন্ধু-বান্ধবদের সঙ্গে বেরিয়ে পড়েন বেড়াতে। এ সময়েও পরা যেতে পারে পাজামা-পাঞ্জাবি।

তবে পাঞ্জাবির সঙ্গে চুড়িদার পরলে বেশি মানাবে। ক্যাজুয়াল শার্ট-প্যান্টও পরা যেতে পারে। এক্ষেত্রে নিজের ইচ্ছেটাকেই প্রাধান্য দিন।

পাঞ্জাবি পরতে চাইলে এ সময়ে রঙিন পাঞ্জাবি পরাটাই বেশি মানানসই হবে। আর শার্ট-প্যান্ট পড়লেও উজ্জ্বল উৎসবের রঙ বেছে নিতে পারেন। ঈদের দিনের দ্বিতীয় ভাগে ইচ্ছেমতো স্টাইলে সাজিয়ে নিন নিজের চুল।

ঈদের দিনের তৃতীয় ভাগে রাখুন বিকালের সময়টা। এ সময় পায়জামা পাঞ্জাবির চেয়ে ভালো হবে শার্ট-প্যান্ট পরাটাই। পরতে পারেন রঙিন টি-শার্ট ও প্যান্টও।

আবার দুপুরের পোশাকেও এ সময়টা কাটিয়ে দেয়া যেতে পারে। তবে নতুনত্ব আনতে পরনের সেট পাল্টিয়ে নতুন সেট পরে নিতে পারেন। বিকালের সাজেই কাটিয়ে দিতে পারেন সন্ধ্যা ও রাতের সময়টাও। অথবা নিজের ইচ্ছেমতো ঘরোয়া সাজে থাকতে পারেন এ সময়।

ঈদের দিনের সাজগোজ করার আগে খেয়াল রাখুন আবহাওয়ার কথাও। এখন বর্ষাকাল; যে কোনো সময় বৃষ্টি হতে পারে, এ দিক বিবেচনা করে নির্বাচন করুন নিজের পোশাক।

[প্রিয় পাঠক, আপনিও দৈনিক যুগান্তর অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, এখন আমি কী করব, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-[email protected]-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter