ফ্যাশন কুইন দিপীকার ওয়্যারড্রব

 সেলিম কামাল 
২৪ জানুয়ারি ২০২৩, ০৮:৪২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

২৫ জানুয়ারি মুক্তি পাচ্ছে দিপীকা পাড়ুকোনের মারদাঙ্গা ছবি পাঠান। শাহরুখ খান আর জন আব্রাহামকে নিয়ে এক ড্যাশিং চরিত্রে দেখা যাবে এ বলিউড তারকাকে। 

ফ্যাশন দুনিয়ার সবচেয়ে আলোচিত পোশাক বিকিনি পরা দিপিকার সমালোচনায় ইতোমধ্যেই তোলপাড় মুম্বাই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি। সনাতন সংস্কৃতি ও হিন্দু জনগোষ্ঠীকে অপমান করার অভিযোগ তোলা হয়েছে দিপীকার বিরুদ্ধে। 

যা হোক, এ কথা ভুলে গেলে চলবে না-‘ফ্যাশন কুইন’ হিসাবে নিজেকে এরইমধ্যে প্রতিষ্ঠিত করেছেন দিপীকা পাড়ুকোন। কেউ আবার তাকে বলেন বলিউড কুইন, সেটাও তার ফ্যাশনবৈচিত্র্যের কারণেই। 

কোন পোশাকে তাকে মানায় না- সেটাই খুঁজে পাচ্ছেন না তার সমালোচকরা। তবে মাঝেমধ্যেই সাহসী লুকে ধরা দেন তিনি, তখনই হন সমালোচিত। যেমনটি হয়েছেন পাঠানের ক্ষেত্রে।

ভারতীয় কিংবা পশ্চিমা যে পোশাকই হোক না কেন, রুচিবোধের সঙ্গে তিনি তৈরি করেন নিজস্ব স্টাইল। মসৃণ খোঁপায় মোড়ানো চুল নিয়ে ব্লেজারের সঙ্গে গলায় ব্যবহার করেছেন নেকলেস, সঙ্গে রেখেছেন ব্লেজারম্যাচিং পেন্সিল হিল। 

২০২১ সালে ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করা ওই ছবি ভাইরাল হয়ে গিয়েছিল। পোস্ট করার দুই ঘণ্টার মধ্যে পোস্টটি পৌঁছে গিয়েছিল ১০ লাখ মানুষের কাছে। বয়ে গেছে রিঅ্যাক্ট আর কমেন্টের বন্যা। অথচ তেমন বিশেষ কিছুই না। গাঢ় নীল রঙের ব্লেজারের সঙ্গে পরেছিলেন আকাশি নীল রঙের স্লিভলেস লং টপস। 

এক সাক্ষাৎকারে দিপীকা বলেন, ‘একজন ফ্যাশন ডিজাইনার হিসাবে বলতে পারি, পোশাকের ওপর আমার ব্যক্তিত্ব ও গুরুত্ব বাড়ে। এমনকি সেটা আমি নিজেও অনুভব করি।’ তিনি জানান, ঐতিহ্যবাহী পোশাকের মধ্যে শাড়ি তার প্রিয় হলেও সাধারণত ক্যাজুয়াল পোশাক (জিনস, কুর্তা) পরতে পছন্দ করেন এই অভিনেত্রী। 

সব্যসাচীর প্রায় সব শাড়ির কালেকশন রেখেছেন তিনি। ফ্যাশনে যখন তার রুচির কথা আসে, সেখানেও তিনি অনন্যা। আক্ষরিক অর্থে এমন কোনো পোশাক নেই যা অভিনেত্রী নিজের সঙ্গে মানানসই করিয়ে নিতে পারেন না। আবার কিছু পোশাক এমনও হয় যা শুধু তিনিই পরতে পারেন। দীপিকা পাড়ুকোনের কিছু প্রিয় পোশাক আছে, সেগুলো ছাড়া এক পাও চলেন না তিনি। এ তারকা যখনই বাইরে বের হন, শুরু হয় তার পোশাক নিয়ে আলোচনা। 

রেডকার্পেট কিংবা এয়ারপোর্ট লুক, সব লুকেই বাজিমাত করেন দীপিকা তিনি। খেয়ালে রাখেন মৌসুম বা প্রকৃতিকেও। সে প্রস্তুতি হিসাবে তার কাছে আছে নানা ধরের উজ্জ্বল রঙের ড্রেস। শুধু নিউট্রাল সেট তার সংগ্রহে নেই। হলুদ, কালার-ব্লকড নীল এবং মাথা থেকে পা পর্যন্ত লাল রঙের আউটফিট আছে। তার ওয়্যারড্রবে আছে নানা ধরনের জ্যাকেটও। অনেকেই মনে করেন, হোয়াইট শার্ট হয়তো শুধু বোরিং অফিস মিটিংয়েই পরা যায়। 

ফরমাল আউটফিট ছাড়া আর কোনো কিছুতেই ফিট নয় এ সাদা শার্ট। কিন্তু এ কথা যে কতটা ভুল, তা প্রমাণ করে দিয়েছেন এ অভিনেত্রী। দীপিকা ওভারসাইজড সাদা টিশার্টের সঙ্গে স্টাইলিং করেছেন। শার্টের উপরে কর্সেট পরেছেন। এ ইনভার্টেড ড্রেসিং তার লুককে সম্পূর্ণ বদলে দিয়েছে। 

আর দীপিকাকেও দেখতে লেগেছে ডানাকাটা পরীর মতো। আর এ পরীকেই ভারতীয় প্রথম ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর বানিয়ে রেখেছে আন্তর্জাতিক খ্যাতিমান ফ্যাশন ব্র্যান্ড লুই ভিটন।

[প্রিয় পাঠক, আপনিও দৈনিক যুগান্তর অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, এখন আমি কী করব, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-jugantorlifestyle@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন