সম্পর্ক ভাঙার পর ফের নতুন প্রেম, যেসব বিষয় খেয়াল রাখা জরুরি

  লাইফস্টাইল ডেস্ক ১৭ আগস্ট ২০১৮, ১৮:১৭ | অনলাইন সংস্করণ

নতুন প্রেম, ছবি সংগৃহীত।
নতুন প্রেম, ছবি সংগৃহীত।

জীবনের বাঁকে কখন মনের মানুষের দেখা মিলবে তা আগে থেকে আঁচ পাওয়া মুশকিল। তবে তেমন কারও দেখা পেলেও, অনেক সময় অনেকেই বুঝে উঠতে পারেন না ঠিক কী কী বিষয় মাথায় রাখলে সম্পর্ক সুন্দর হবে।

তাই অনিচ্ছাকৃত কিছু ভুলের জন্য সম্পর্ক টেকে না। আপনিও কি এর শিকার? তা হলে দেখে নিন কী কী উপায়ে প্রেম হবে মজবুত।

অবিশ্বাস

কোনও সম্পর্ক ভেঙে গেলে নতুন সম্পর্কে জড়ানোর পরও হ্যাং ওভার কাটে না অনেকের। আগের মানুষ বিশ্বাস ভাঙলে নতুন মানুষটিকে অবিশ্বাস করতে শুরু করেন কেউ কেউ, আগের মানুষের অস্তিত্ব খুঁজে পেতে চেষ্টা করেন নতুনের মধ্যে। এ ভুল থেকে আজই সরুন।

তাড়াহুড়ো

সম্পর্ক নিয়ে খুব তাড়াহুড়ো করছেন কি? এ বার একটু ধীরে সুস্থে এগোন। পরিচয়ের পরের দিনই প্রস্তাব, তার পরের দিনই ঘনিষ্ঠ হওয়ার চেষ্টা— এমন ভুল প্রায়শই অনেকে করেন। এমন হলে অনেক সময় মানুষটাকে ভাল করে চেনাই হয়ে ওঠে না।

কথা গোপন করা

সম্পর্কে স্বচ্ছ থাকুন। প্রয়োজনে আগের কোনও ভুল বা অপরাধ অকপটে শিকার করুন। যিনি সারা জীবন আপনার সঙ্গে থাকবেন, তার কাছে এসব গোপন করা অনুচিত। অনেকেই হারানোর ভয়ে গোপন করেন অনেক কিছু। সে ক্ষেত্রে মনে রাখবেন, যিনি অতীতের কোনও ভুলের কারণে আপনাকে ছেড়ে যাচ্ছেন, তার মন আপনার সঙ্গে থাকার জন্য প্রস্তুত নয়।

প্রিয়জনের যত্ন নিন

চারাগাছ যেমন একটু যত্ন চায়, মানুষের সম্পর্কও তেমন। তাই যত্ন নেওয়ার অভ্যাস না থাকলে তা আয়ত্তে আনুন। জীবনে যে কোনও ভাল কিছুর জন্যই একটা ভূমিকা পালন করতে হয়। তাই অযত্নের অভ্যাস থাকলে তা বদলান। এ খুব একটা গুণের কথাও নয়। বরং, ছোটখাটো বিষয়ে একটু হলেও যত্ন নিতে শিখুন। খেয়াল রাখুন প্রিয়জনের।

মনোমালিন্য

সময় দিন প্রিয়জনকে। মনোমালিন্যের সময়ও এক সঙ্গে বসে সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করুন। মুখোমুখি বসার অবসর ও আলোচনা অনেক সমস্যা মিটিয়ে দেয়। অনেকেই মতবিরোধ নিয়ে আলোচনা করতে চান না ‘সমাধান মিলবে না’ এমন বিশ্বাস থেকে। এমন ভাবনা সরিয়ে বরং বসুন আলোচনায়। তাতে সম্পর্কের শৈত্য সরে। পরস্পরকে বুঝতে সুবিধা হয়।

অসম্মানসূচক মন্তব্য

নতুন প্রেমে কখনও আগের প্রেম সম্পর্কে অসম্মানসূচক মন্তব্য করবেন না। অনেকেই নতুন মানুষটিকে খুশি করতে আগের সম্পর্ক ও সেই প্রেমিক বা প্রেমিকার সম্পর্কে অসম্মানসূচক মন্তব্য করেন। যত খারাপ ঘটনাই আপনার সঙ্গে ঘটুক, নিজে এ নিয়ে খারাপ মন্তব্য করবেন না। এতে সম্পর্ক বিষয়টিকেই লঘু করে দেখা হয়।

[প্রিয় পাঠক, আপনিও দৈনিক যুগান্তর অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, এখন আমি কী করব, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন-[email protected]-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter