উপমহাদেশের মধ্যে বাংলাদেশে দুর্ঘটনা কম: নৌমন্ত্রী

  যুগান্তর রিপোর্ট ০১ মে ২০১৮, ২০:২৮ | অনলাইন সংস্করণ

নৌমন্ত্রী শাজাহান খান

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের কার্যকরী সভাপতি নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান দাবি করেছেন, বাংলাদেশে সড়ক দুর্ঘটনা অনেকটা কমে এসেছে এবং উপমহাদেশের মধ্যে বাংলাদেশের দুর্ঘটনা কম ঘটে থাকে।

মন্ত্রী বলেন, ‘বিভিন্ন স্থানে রাস্তার বাঁকগুলো সরলীকরণ, ফুটওভার ব্রিজ, পাতালপথ নির্মাণের ফলে দুর্ঘটনা অনেকটা কমে এসেছে। দুর্ঘটনারোধকল্পে সড়ক পরিবহন সেক্টরকে আরও সাবধান হতে হবে।’

তিনি বলেন, উপমহাদেশের মধ্যে বাংলাদেশে দুর্ঘটনা কম ঘটে থাকে। এছাড়া সড়ক পরিবহন আইন যুগোপযোগী করা হচ্ছে।

মঙ্গলবার রাজধানীর মতিঝিলে মে দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন আয়োজিত এক সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

জাল লাইসেন্স নিয়ে শ্রমিকদের গাড়ি না চালানোর আহ্বান জানিয়ে শাজাহান খান বলেন, দেশের বিভিন্ন পরিবহনের চালকদের দুর্ঘটনা রোধের জন্য বৈধ লাইন্সেস নিয়ে সঠিকভাবে গাড়ি চালাতে হবে। একই সঙ্গে যাত্রী ও পথচারীদের সচেতন হতে হবে।

তিনি বলেন, দুর্ঘটনা রোধে শ্রমিক মালিক ও যাত্রীসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে আরও সচেতন হতে হবে। চালকের অবহেলা ও অদক্ষতায় যেন দুর্ঘটনা না ঘটে সেজন্য চালকদের আরও বেশি সাবধানতার সঙ্গে গাড়ি চালাতে হবে। গাড়িতে যাতে অদক্ষ চালক ও শ্রমিক কাজ করতে না পারে সেজন্য মালিকদের সতর্ক থাকতে হবে।

শাজাহান খান বলেন, ‘ড্রাইভার ভাইদের অনুরোধ করব, আপনারা কোনো মতেই জাল লাইসেন্স নিয়ে গাড়ি চালাবেন না। গাড়িতে মোবাইল ফোন ব্যবহার করবেন না। চলন্ত গাড়িতে যাত্রীর সঙ্গে কথা বলবেন না। সতর্কভাবে গাড়ি চালাবেন। ওভারলোড করবেন না।’

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের সহ-সভাপতি ছাদিকুর রহমান হিরুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে দেন ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ওসমান আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক হুমায়ূন কবির খান ও মোখলেছুর রহমান।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter