নয়াপল্টনে পুলিশের গাড়িতে আগুন দেয়া যুবক শনাক্ত

  যুগান্তর রিপোর্ট ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ১২:৩৮ | অনলাইন সংস্করণ

নয়াপল্টনে পুলিশের গাড়িতে আগুন দেয়া যুবক শনাক্ত
সংঘর্ষের সময় পুলিশ গাড়িতে অগ্নিসংযোগ করছেন এক যুবক। ছবি: যুগান্তর

রাজধানীর নয়াপল্টনে বুধবার বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে সংঘর্ষের সময় পুলিশের গাড়িতে দেয়াশলাই দিয়ে যে যুবককে আগুন দিতে দেখা যায়, তাকে শনাক্ত করা হয়েছে।

পুলিশের মতিঝিল বিভাগের সহকারী কমিশনার মিশু বিশ্বাস আজ বৃহস্পতিবার সকালে সাংবাদিকদের কাছে এ দাবি করেন, পুলিশের গাড়িতে যে যুবক আগুন দিয়েছেন, তার নাম শাহজালাল খন্দকার। তিনি পল্টন থানা ছাত্রদলের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য।

একই ঘটনার সময় পুলিশের গাড়ির ওপর যে যুবককে লাফাতে দেখা গেছে, তাকেও শনাক্ত করা হয়েছে বলে দাবি পুলিশের মতিঝিল বিভাগের এ সহকারী কমিশনারের। তার ভাষ্য-এই যুবকও ছাত্রদলের।

মিশু বিশ্বাস বলেন, সংঘর্ষের ঘটনায় গতকাল রাত পর্যন্ত ৩০ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। এ ছাড়া অভিযান চালিয়ে ৬৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

গ্রেফতার হওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে পুলিশের গাড়িতে আগুন জ্বালাতে দেখা যুবক এবং গাড়ির ওপর লাফাতে থাকা যুবক নেই বলে জানান মিশু বিশ্বাস।

সংঘর্ষের ঘটনায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসকে আসামি করে পুলিশ তিনটি মামলা করেছে। গতকাল বুধবার পল্টন থানায় এ মামলাগুলো করা হয়।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, নির্বাচন বানচালের জন্য বিএনপি পরিকল্পিতভাবে নয়াপল্টনে পুলিশের ওপর হামলা চালিয়েছে। তিনি বলেন, বিএনপি সম্পূর্ণ বিনাউসকানিতে মির্জা আব্বাসের নেতৃত্বে পুলিশের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে।

ছবি: যুগান্তর

অন্যদিকে সংঘর্ষের ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে দলটির মহাসচিব ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, দুর্ভাগ্যজনকভাবে বিএনপি নেতাকর্মীদের ওপর হামলা চালিয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। এ ধরনের পরিস্থিতি করে সরকার নির্বাচনী পরিবেশ নষ্ট করছে। ভোটের অনুকূল পরিবেশ ফিরিয়ে আনার জন্য আহ্বান জানাই।

আর বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর গাত্রদাহ থেকেই এ হামলা চালানো হয়েছে। নয়াপল্টনে এত নেতাকর্মী কেন তা উনি সহ্য করতে পারছেন না।

মতিঝিল বিভাগের উপকমিশনার আনোয়ার হোসেন বলেন, বিনাউসকানিতে পুলিশের ওপর বিএনপি নেতাকর্মীরা হামলা চালান।

তিনি বলেন, পুলিশ শুধু তাদের রাস্তা থেকে সরে যেতে বলেছিল, যেন যান চলাচল স্বাভাবিক থাকে। কিন্তু তারা সে কথা না শুনে হঠাৎ পুলিশের ওপর হামলা চালায়। পরে তারা আমাদের দুটি গাড়ি পুড়িয়ে দেয়। আমাদের কয়েকজন সদস্যও আহত হন। পুলিশ ধৈর্যসহকারে পরিস্থিতি সামলানোর চেষ্টা করেছে।

ঘটনাপ্রবাহ : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×