অরিত্রির আত্মহত্যা: ভিকারুননিসার সাবেক অধ্যক্ষ ও শাখা প্রধানের জামিন
jugantor
অরিত্রির আত্মহত্যা: ভিকারুননিসার সাবেক অধ্যক্ষ ও শাখা প্রধানের জামিন

  যুগান্তর রিপোর্ট  

১৪ জানুয়ারি ২০১৯, ১৪:৫৫:২৭  |  অনলাইন সংস্করণ

নাজনীন ফেরদৌস ও জিনাত আক্তার।

ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের ছাত্রী অরিত্রি অধিকারীর আত্মহত্যার প্ররোচনার মামলায় প্রতিষ্ঠানটির সাবেক অধ্যক্ষ নাজনীন ফেরদৌস ও প্রভাতী শাখার সাবেক প্রধান জিনাত আক্তার জামিন পেয়েছেন।

সোমবার ঢাকা মহানগর হাকিম রাজেশ চৌধুরীর আদালতে তারা আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন।

শুনানি শেষে আদালত তাদের জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন।

এর আগে ৯ ডিসেম্বর এ মামলায় অরিত্রীর শ্রেণিশিক্ষক হাসনা হেনা জামিন পান।

এ নিয়ে মামলার এজহারভুক্ত তিনজনের জামিন মঞ্জুর হল।

নবম শ্রেণির ছাত্রী অরিত্রি অধিকারীর আত্মহত্যার ঘটনায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে গত ৫ ডিসেম্বর ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নাজনীন ফেরদৌস, শাখাপ্রধান জিনাত আখতার ও অরিত্রীর শ্রেণিশিক্ষক হাসনা হেনাকে বরখাস্ত করা হয়।

প্রসঙ্গত, মোবাইল ফোনের মাধ্যমে নকলের অভিযোগ তুলে বাবা-মাকে ডেকে অপমান ও টিসি দেয়ার কথা বলায় রাজধানীর ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের শান্তিনগর শাখার নবম শ্রেণির ছাত্রী অরিত্রি (১৫) গত ৩ ডিসেম্বর দুপুরে আত্মহত্যা করে।

পরে তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় ভিকারুননিসার বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা তুমুল আন্দোলন শুরু করেন।

পরে ওই তিন শিক্ষকের বিরুদ্ধে আত্মহত্যায় প্ররোচনা মামলা করেন অরিত্রির বাবা দিলীপ অধিকারী।

অরিত্রির আত্মহত্যা: ভিকারুননিসার সাবেক অধ্যক্ষ ও শাখা প্রধানের জামিন

 যুগান্তর রিপোর্ট 
১৪ জানুয়ারি ২০১৯, ০২:৫৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
নাজনীন ফেরদৌস ও জিনাত আক্তার।
ভিকারুননিসার সাবেক অধ্যক্ষ নাজনীন ফেরদৌস ও প্রভাতী শাখার সাবেক প্রধান জিনাত আক্তার জামিন পেয়েছেন। ফাইল ছবি

ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের ছাত্রী অরিত্রি অধিকারীর আত্মহত্যার প্ররোচনার মামলায় প্রতিষ্ঠানটির সাবেক অধ্যক্ষ নাজনীন ফেরদৌস ও প্রভাতী শাখার সাবেক প্রধান জিনাত আক্তার জামিন পেয়েছেন।

সোমবার ঢাকা মহানগর হাকিম রাজেশ চৌধুরীর আদালতে তারা আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন।

শুনানি শেষে আদালত তাদের জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন।

এর আগে ৯ ডিসেম্বর এ মামলায় অরিত্রীর শ্রেণিশিক্ষক হাসনা হেনা জামিন পান।

এ নিয়ে মামলার এজহারভুক্ত তিনজনের জামিন মঞ্জুর হল।

নবম শ্রেণির ছাত্রী অরিত্রি অধিকারীর আত্মহত্যার ঘটনায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে গত ৫ ডিসেম্বর ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নাজনীন ফেরদৌস, শাখাপ্রধান জিনাত আখতার ও অরিত্রীর শ্রেণিশিক্ষক হাসনা হেনাকে বরখাস্ত করা হয়।

প্রসঙ্গত, মোবাইল ফোনের মাধ্যমে নকলের অভিযোগ তুলে বাবা-মাকে ডেকে অপমান ও টিসি দেয়ার কথা বলায় রাজধানীর ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের শান্তিনগর শাখার নবম শ্রেণির ছাত্রী অরিত্রি (১৫) গত ৩ ডিসেম্বর দুপুরে আত্মহত্যা করে।

পরে তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় ভিকারুননিসার বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা তুমুল আন্দোলন শুরু করেন।

পরে ওই তিন শিক্ষকের বিরুদ্ধে আত্মহত্যায় প্ররোচনা মামলা করেন অরিত্রির বাবা দিলীপ অধিকারী।