কোটি মানুষের হৃদয়ে যুগান্তর: সাইফুল আলম

  যুগান্তর রিপোর্ট ০১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৫:৫৪ | অনলাইন সংস্করণ

বক্তব্য রাখছেন যুগান্তরের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক জনাব সাইফুল আলম।
বক্তব্য রাখছেন যুগান্তরের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক, জনাব সাইফুল আলম।

আনন্দ আয়োজনে উদযাপিত দৈনিক যুগান্তরের ১৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। জমকালো এই আয়োজনে পত্রিকাটির কোটি কোটি পাঠক, শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন দৈনিক যুগান্তরের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ও জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি সাইফুল আলম।

তিনি বলেন, একটি পত্রিকার জীবনে ১৯ বছর খুব বেশি সময় নয়। এই অল্প সময়ে বাংলাদেশের কোটি কোটি মানুষের হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছে দৈনিক যুগান্তর। দেশের শীর্ষ এ কাগজটি আজ এমন একটি জায়গায় পৌঁছেছে যে, কোনো পাঠক অন্য কোনো কাগজ পড়লেও যুগান্তর না পড়ার অতৃপ্তিতে ভোগেন। যুগান্তর না পড়লে তাদের কাছে মনে হয় পত্রিকাই পড়া হয়ে ওঠেনি। যুগান্তরের অসংখ্য পাঠকের কথা-উপলব্ধি এটি। পাঠকদের এ উপলব্ধিই যুগান্তরের অহংকারের জায়গা এবং গৌরবের জায়গা।

শুক্রবার বেলা পৌনে ১২টায় দৈনিক যুগান্তরের কনফারেন্সকক্ষে কেককাটার মধ্য দিয়ে শুরু হয় যুগান্তরের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন। অনুষ্ঠানে সংক্ষিপ্ত বক্তৃতায় যুগান্তরের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক সাইফুল আলম এসব কথা বলেন।

সাইফুল আলম বলেন, আমাদের আন্তরিকতা, ভালোবাসা, আবেগ দিয়ে যে যুগান্তর আমরা ধারণ করি, আজ তা ২০ বছরে পা দিল, যা আমাদের অত্যন্ত গৌরবের ও আনন্দের। আমাদের অত্যন্ত প্রিয়জন যমুনা গ্রুপের চেযারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম যুগান্তরের স্বপ্নদ্রষ্টা। আমরা যে সাদাকে সাদা বলি, কালোকে কালো বলি- আমরা সমস্ত শক্তি দিয়ে অন্যায়ের যে প্রতিবাদ করি, এর প্রেরণা আমরা তার কাছ থেকে শুরু থেকেই পেয়ে আসছি। সাংবাদিকসহ যুগান্তরের পুরো পরিবারের যে কোনো বিপদ-আপদে তিনি অভিভাবকের মতো পাশে দাঁড়ান।

যুগান্তরের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক বলেন, আমরা অত্যন্ত আনন্দিত যে, আজ দৈনিক যুগান্তরের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আজকের ঘরোয়া আয়োজনে আমরা পাশে একসঙ্গে পেয়েছি আমাদের প্রিয় তিন মানুষকে। তারা হলেন- দৈনিক যুগান্তরের প্রকাশক, সাবেক মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম, যমুনা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শামীম ইসলাম এবং পরিচালক (ফিন্যান্স) আবদুল ওয়াদুদ।

তিনি বলেন, আমাদের মান্যবর প্রকাশককে আজকের এই মাহেন্দ্রক্ষণে পেয়ে আমরা অত্যন্ত আনন্দিত। যিনি মা, বোন ও বন্ধুর মতো সর্বদা আমাদের পাশে থাকেন। তিনি আমাদের অভিভাবক। তাকে আমাদের মাঝে পেয়ে আমরা আনন্দিত। আমাদের এই পথচলায় সার্বক্ষণিক আমাদের পাশে আছেন যমুনা গ্রুপের এমডি শামীম ইসলাম, আছেন যমুনা গ্রুপের পরিচালক (অর্থ) আবদুল ওয়াদুদ। তাদের দুজনের উপস্থিতিও আমাদের আনন্দকে বাড়িয়ে দিয়েছে কয়েকগুণ।

যুগান্তর ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক বলেন, আমাদের সবার শ্রদ্ধেয় যুগান্তরের প্রাণশক্তি যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম পূর্বনির্ধারিত অনুষ্ঠানের কারণে ঢাকার বাইরে থাকায় আজকের এই ঘরোয়া আয়োজনে আসতে পারেননি। তিনি সবাইকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। তার সাহস, তার উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে আমরা বেড়ে উঠছি। যুগান্তর পরিবার তার প্রতি কৃতজ্ঞ।

যুগান্তর পরিবারের সঙ্গে সম্পৃক্ত সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে সাইফুল আলম বলেন, আপনারা সবাই কষ্ট করে এখানে উপস্থিত হয়েছেন এ জন্য আমি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। আমাদের প্রতি আপনাদের প্রাণের যে ভালোবাসা সেটির প্রকাশ ঘটেছে।

যুগান্তরের স্বজন সমাবেশের কথা উল্লেখ্ করে তিনি বলেন, যুগান্তরের স্বজন সমাবেশ অত্যন্ত শক্তিশালী একটি সংগঠন। দেশের ৬৪ জেলায় যুগান্তরের জন্মদিন উপলক্ষে র‌্যালি হবে, কেককাটা হবে। সারা দেশে যুগান্তরের বার্তা পৌঁছে দেয়ার জন্য তারা আমাদের সহযোদ্ধা হিসেবে কাজ করছে, তাদের প্রতি জন্মদিনের শুভেচ্ছা।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন যুগান্তরের সাংবাদিক, বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×