একসঙ্গে এতো মসজিদ নির্মাণ ইসলামের ইতিহাসে রেকর্ড: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

  অনলাইন ডেস্ক ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৯:০৫ | অনলাইন সংস্করণ

১৬২টি মডেল মসজিদ নির্মাণে সমঝোতা স্মারক সই। ছবি: সংগৃহিত
১৬২টি মডেল মসজিদ নির্মাণে সমঝোতা স্মারক সই। ছবি: সংগৃহিত

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী আলহাজ অ্যাডভোকেট শেখ মো. আব্দুল্লাহ বলেছেন, সরকারি সহায়তায় একসঙ্গে এতো মসজিদ নির্মাণ এই প্রথম। ইসলামের ইতিহাসেও এটি রেকর্ড। রোববার (৩ ফেব্রুয়ারি) সচিবালয়ে ৫৬০ মডেল মসজিদের সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর শেষে এ মন্তব্য করেন তিনি।

সচিবালয়ে স্থানীয় সরকার বিভাগের সম্মেলন কক্ষে এ সমঝোতা স্বাক্ষর অনুষ্ঠিত হয়।

‘প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় একটি করে ৫৬০টি মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র স্থাপন’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় উপজেলা পরিষদের জমি ব্যবহারে স্থানীয় সরকার বিভাগ ও ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মধ্যে সমঝোতা-স্মারক স্বাক্ষর হয়েছে।

রোববার ১৬২টি মসজিদের বিষয়ে সমঝোতা-স্মারক স্বাক্ষর হলেও এ প্রকল্পে মোট ৫৬০টি মসজিদ স্থাপনের কথা রয়েছে।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী আরও জানান, প্রথমে সৌদি সরকার আর্থিক সহায়তার আশ্বাস দিলেও এখন সম্পূর্ণ সরকারি টাকায় এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হবে।

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলামের উপস্থিতিতে চুক্তিতে স্থানীয় সরকার বিভাগের পক্ষে স্বাক্ষর করেন সিনিয়র সচিব এস এম গোলাম ফারুক এবং ধর্ম সচিব মো. আনিছুর রহমান। এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী আলহাজ অ্যাডভোকেট শেখ মো. আব্দুল্লাহ। অনুষ্ঠানে দুই মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

স্থানীয় সরকারমন্ত্রী তাজুল ইসলাম বলেন, ‘আমাদের দেশের ৯০ ভাগ মানুষ মুসলিম। ইসলাম ধর্মে মসজিদকে অত্যন্ত গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। মসজিদে জামায়াতের সঙ্গে নামাজ আদায়ে আমরা সবাই একত্রিত হই। এতে আমাদের একে অপরের মধ্যে ভাতৃত্ববোধ বাড়ে। এর মাধ্যমে আমাদের মধ্যে একটা সামাজিক, পারিপার্শ্বিক সম্পর্ক গড়ে ওঠার মধ্যদিয়েই মানুষ ভালো থাকতে পারে।’

মসজিদগুলো যদি আকর্ষণীয় হয় তাহলে সে মসজিদের প্রতি মানুষের আগ্রহ বাড়ে বলে উল্লেখ করেন মন্ত্রী।

তিনি বলেন, ‘সে দৃষ্টিভঙ্গি থেকেই বিত্তবানরা সুন্দর সুন্দর মসজিদ গড়ে তোলে। একসময় আমরা অনেক গরিব ছিলাম, তাই মসজিদগুলোকে বেশি অর্থ বরাদ্দ দিয়ে অনেক সুন্দর করে গড়ে তুলতে পারিনি। এখন আমাদের অবস্থার পরিবর্তন হয়েছে। সময়ের ব্যবধানে আমাদের সামগ্রিকভাবে উন্নতি হয়েছে। সেই উন্নতির ধারাবাহিকতার অংশ হিসেবে প্রধানমন্ত্রী ধর্মীয় মূল্যবোধকে গুরুত্ব দিয়ে এসব মসজিদ তৈরির উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন।’

মডেল মসজিদগুলো সামাজিক মূল্যবোধের উন্মোচন ঘটাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন স্থানীয় সরকারমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ‘এ মসজিদগুলো নির্মাণের জন্য যেসব জায়গা সঠিকভাবে নির্ধারণ করা হয়েছে, আশা করছি নামাজ পড়া ও ধর্মীয় বিষয়াদি আলোচনার জন্য এসব মসজিদে জনসমাগম খুব বেশি হবে।’

৬ হাজার কোটি টাকার এই প্রকল্পের জেলা পর্যায়ে ৪ তলা ও উপজেলা পর্যায়ে ৩ তলা ভবন নির্মাণ করা হবে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×