সাংবাদিককে ‘আত্মহত্যার’ কথা কেন বলেছিলেন জানালেন রেল সচিব

  যুগান্তর ডেস্ক ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৪:৫৩ | অনলাইন সংস্করণ

রেল সচিব মোফাজ্জল হোসেন।
রেল সচিব মোফাজ্জল হোসেন। ছবি: সংগৃহীত

রসিকতার ছলে একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের সাংবাদিককে ‘আত্মহত্যা’ করতে বলেছিলেন বলে জানিয়েছেন রেল সচিব মোফাজ্জল হোসেন।

তিনি বলেন, অন্যান্য কর্মকর্তারা এ বিষয়ে ওই সাংবাদিকের সঙ্গে কথা বলতে রাজি না হওয়ায় ‘তামাশাচ্ছলে’ তাকে ‘আত্মহত্যার’ কথা বলেছিলাম।

গতকাল (বুধবার) সময় টিভি এক প্রতিবেদনে জানা যায়, ঢাকা-কোলকাতা মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনের যাত্রীরা প্রতিটি চেয়ার আসনের জন্য নিজেদের অজান্তেই বাড়তি দিচ্ছেন ৬৮ টাকা।

ভারত-বাংলাদেশে চলাচলকারী এ ট্রেনের যাত্রীদের সঙ্গে এমন প্রতারণা বিষয়ে কথা বলতে গেলে রেল সচিব মোফাজ্জল হোসেন ওই সাংবাদিকের সঙ্গে রাগান্বিত হয়ে উঠেন।

তবে এ বিষয়ে সচিব রেলের অপারেশন বিভাগের উপপরিচালক মিয়া জাহানকে ডেকে পাঠালে মিয়া জাহানও কৌশলে সময় টিভিকে এড়িয়ে যান।

আর এ বিষয়টি পুনরায় জানতে গেলে রেল সচিব ক্যামেরা ছাড়া তার কক্ষে ঢোকার অনুমতি দিয়ে এই প্রতিবেদকে বলেন, ‘আপনি এখন আত্মহত্যা করেন। একটা স্টেটমেন্ট লিখে যান যে, রেলের লোকেরা আমার সাথে কথা বলতে চাচ্ছে না এ মর্মে ঘোষণা দিলাম যে তারা কথা না বলার কারণে আমি আত্মহত্যা করলাম।’

যুগান্তরসহ অন্যান্য গণমাধ্যমে এ বিষয়ে সংবাদ প্রকাশিত হবার পর রেল সচিব মোফাজ্জল হোসেন প্রচণ্ড সমালোচনার মুখে পড়েন। সোশ্যাল মিডিয়ায়ও বিষয়টি বেশ আলোচিত হয়।

হঠাৎ আত্মহত্যা শব্দটি কেন বেরুলো এ প্রসঙ্গে মোফাজ্জল হোসেন বলেন, ‘আমি প্রধানমন্ত্রীর অফিস থেকে মিটিং শেষে বের হয়ে আসার পর হুঁট করে ওই সাংবাদিক অফিস কক্ষে ঢুকে বলে মিয়া জাহান তো ইন্টারভিউ দেবে না।

তখন আমি অনেকটা হতাশ আর রসিকতা মিলিয়ে বলেছি , ‘ভাই, এটা নিয়ে যে পরিশ্রম আমরা করলাম। আর তো কোনো রাস্তা নাই, চলো আমরা গিয়ে আত্মহত্যা করি’।

কেউ সাক্ষাৎকার না দিতে চাইলে যে কোনো বিষয়ে তিনি সাক্ষাৎকার দিতে প্রস্তুত বলিও জানান তিনি।

ওই সংবাদের জন্য তিনিও পরিশ্রম করেছেন বলে দাবি করেন রেল সচিব মোফাজ্জল হোসেন যোগ করেন বলেন, ‘আমি এই সংবাদের বিষয়ে অনেক পরিশ্রম করেছি। রেলের লোকজনকে দুই তিন দফা ডেকে অনুরোধ করেছি। রেলের অতিরিক্ত মহাপরিচালক মিয়া জাহানকে সাক্ষাৎকার দিতে আমিই অনুরোধ করেছিলাম।’

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×