সব উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে দুজন বিদ্রোহী

  যুগান্তর রিপোর্ট ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৮:৩৪ | অনলাইন সংস্করণ

চেয়ারম্যান পদে সব স্থানেই ২ জন বিদ্রোহী প্রার্থী
ছবি: যুগান্তর

আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থীদের মধ্যে ৮৬ জন আওয়ামী লীগের মনোনীত। তবে এই পদে প্রায় সব স্থানেই কমপক্ষে দুজন করে দলটির বিদ্রোহী প্রার্থী রয়েছে। এছাড়া জাতীয় পার্টিসহ বিভিন্ন দল থেকেও প্রার্থী হয়েছেন।

প্রথম ধাপে ৮৬টি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে তিনটি পদে মোট ১০৮৮ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান ২৮৬ জন, ভাইস চেয়ারম্যান ৪৮৭ জন ও সংরক্ষিত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩১৫ জন প্রার্থী হয়েছেন।

বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করলেও কোনো কোনো উপজেলায় তাদের স্থানীয় পর্যায়ের নেতারা চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন।

সোমবার দেশের চার বিভাগে ১২টি জেলার ৮৬টি উপজেলা নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ছিল। শান্তিপূর্ণভাবেই মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন প্রার্থীরা।

এদিকে প্রার্থী না থাকায় চারটি উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ক্ষমতাসীন দলের চারজন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন।

তারা হলেন- জামালপুরের সরিষাবাড়িতে গিয়াসউদ্দিন পাঠান, মেলান্দহে ইঞ্জিনিয়ার কামরুজ্জামান, মাদারগঞ্জে ওবায়দুর রহমান বেলাল ও জয়পুরহাট সদরে এসএম সোলায়মান আলী।

দলীয় প্রতীকে অনুষ্ঠেয় স্থানীয় সরকারের এ নির্বাচনে বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট অংশ নেয়নি। জাতীয় নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ এনে স্থানীয় সরকার নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করার কথা জানিয়েছে।

আর আওয়ামী লীগ চেয়ারম্যান পদে দলীয় প্রার্থী ঘোষণা করেছে। কিন্তু ভাইস চেয়ারম্যান ও সংরক্ষিত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে কোনো প্রার্থীকে মনোনয়ন না দিয়ে তা উন্মুক্ত রেখেছে।

ইসির কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, পঞ্চম উপজেলা নির্বাচনের প্রথম ধাপে ৮৭টি উপজেলা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছিল ইসি। উচ্চ আদালতের রায়ে সোমবার রাজশাহীর পবা উপজেলার নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে। এ কারণে প্রথম ধাপে ৮৬টি উপজেলায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী এসব উপজেলায় আজ মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই করবেন সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তা। ১৯ ফেব্রুয়ারি প্রত্যাহারের শেষ দিন নির্ধারিত রয়েছে।

এরপর দিন ২০ ফেব্রুয়ারি প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ দেয়ার পর শুরু হবে আনুষ্ঠানিক প্রচার। আগামী ১০ মার্চ এ ৮৬টি উপজেলায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। তারা জানান, মার্চ মাসে চার ধাপে উপজেলা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

এ পর্যন্ত দুটি ধাপের নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে। এদিকে উপজেলা নির্বাচনে আচরণবিধি প্রতিপালনে প্রতিটি এলাকায় একজন করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দিতে দেশের সব বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা প্রশাসকদের চিঠি দিয়েছে ইসি। সোমবার এ সংক্রান্ত চিঠি পাঠানো হয়।

চিঠিতে বলা হয়েছে, নির্বাচনী এলাকায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষা, অপরাধ প্রতিরোধ ও আচরণবিধি প্রতিপালনে তদারকি করতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ করতে হবে।

আরও জানা গেছে, এবারই প্রথম ধাপে ধাপে দলীয় প্রতীকে উপজেলা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

এর আগে সর্বশেষ ২০১৪ সালে ধাপে ধাপে উপজেলা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। ওই সময়ে নির্দলীয় প্রতীকে নির্বাচন হলেও রাজনৈতিক দলগুলো প্রার্থীকে সমর্থন দিয়েছে। কিন্তু এবার দলীয় প্রতীকে ভোট হচ্ছে।

ইসি সূত্রে জানা গেছে, উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে সবচেয়ে বেশি মনোনয়নপত্র জমা পড়েছে পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ উপজেলায়। এখানে সর্বোচ্চ ৯ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী হয়েছেন।

অপরদিকে ভাইস চেয়ারম্যান পদে সুনামগঞ্জের দোয়ারা বাজের উপজেলায় ১৩ জন মনোনয়নপত্র জমা পড়েছে।

ঘটনাপ্রবাহ : উপজেলা নির্বাচন ২০১৯

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×