আদর্শ ভিন্ন থাকলে একসঙ্গে ইজতেমা সম্ভব নয়: সাদপন্থী মুরব্বি

  গাজীপুর প্রতিনিধি ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২২:১৭ | অনলাইন সংস্করণ

প্রেস ব্রিফিংয়ে সাদপন্থী মুরব্বিরা
প্রেস ব্রিফিংয়ে সাদপন্থী মুরব্বিরা

আদর্শ ভিন্ন থাকলে একসঙ্গে বিশ্ব ইজতেমা করা সম্ভব নয় বলে জানিয়েছেন সাদপন্থী মুরব্বিরা। সোমবার টঙ্গীর ইজতেমা ময়দানে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে তারা এসব কথা জানান।

সোমবার দুপুরে ইজতেমা ময়দানের বিদেশি নিবাসে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

তবে আগামীতে ভেদাভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধভাবে টঙ্গীতে বিশ্ব ইজতেমা কামনা করেন ধর্মপ্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ।

টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমা ময়দানে মাওলানা সাদ অনুসারী মাওলনা আশরাফ আলী জানিয়েছেন, এবারের ইজতেমা আদর্শগত ভিন্নতার কারণে ভিন্নভাবে ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়েছে। যার কারণে এ ইজতেমায় শ্রোতারাও ভিন্ন, বক্তাও ভিন্ন, দোয়াও ভিন্ন আর আদর্শও ভিন্ন। ফলে এটাকে সব দিক থেকে এক ইজতেমা বলার উপায় নেই। কিন্তু আবার এক দিক থেকে একও বলা যায়। কারণ আলাদা হলেও দুটি ইজতেমা একই প্যান্ডেলে হচ্ছে। এবারের ইজতেমা আয়োজনে স্বরাষ্ট্র ও ধর্মমন্ত্রীর আন্তরিক প্রচেষ্টা ছিল।

তিনি জানান, মাওলানা সাদ সাহেবের প্রতিনিধি হিসেবে ৩২ জনের একটি জামাত নিজামুদ্দীন দিল্লি থেকে টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমায় এসেছেন। তাদের যিনি জিম্মাদার হয়ে এসেছেন মাওলানা শামীম সাহেব তিনিই আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করবেন।

মাওলানা আশরাফ আলী জানান, দাওয়াতে তাবলিগের মেহনত এক সুপরিচিত মেহনত। এটি সুপরিচিত হতে দীর্ঘদিনের ত্যাগ-তিতিক্ষা, পরিশ্রম, কোরবানি রয়েছে। এর উৎস হচ্ছে দিল্লির নিজামুদ্দীন থেকে। মাওলানা ইলিয়াস (রা.) থেকে এ কাজের শুরু। আজ মাওলানা সাদ হচ্ছেন এর জিম্মাদার। প্রায় ৬০ বছর ধরে উনাদের মাধ্যমে ইজতেমা পরিচালিত হচ্ছে।

ব্রিফিংয়ে উপস্থিত ছিলেন মাওলানা রেজা আরিফ, মাওলানা আবদুল্লাহ শাকিল ও সাজিদুর রহমান।

তিনি জানান, দেশ বিদেশের সর্বোচ্চ পর্যায়ের মুরব্বিরা ইজতেমার দুটি পক্ষকে একত্র করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। আর যদি এটি সম্ভব না হয় তবে যার যার অবস্থান থেকে ইজতেমা করবে। এতে কোনো পক্ষ যেন কোনো পক্ষকে বাধা না দেন।

মাওলনা আশরাফ আলী জানান, যতক্ষণ পর্যন্ত আদর্শগত পার্থক্য থাকবে ততক্ষণ পর্যন্ত একসঙ্গে ইজতমা করা সম্ভব নয়। আদর্শ ভিন্ন রেখে এক সঙ্গে ইজতেমা করতে যাওয়া মানেই সংঘাতকে ডেকে আনা। তারা যদি ভুল বুঝতে পারে যে তাদের এ ধরনের সংঘাতে যাওয়া ক্ষতি হচ্ছে, মুসলমানের ক্ষতি হচ্ছে তাহলে আগে যেমন মাওলানা সাদ সাহেবের নিজামুদ্দীনের পরিচালনায় একসঙ্গে ইজতেমা হতো এর পরেও সেভাবে হবে।

আগামী বছর ইজতেমা কখন হবে তার তারিখ নির্ধারণ করবেন ইজতেমার তাদের পক্ষের আমির মাওলানা সাদ।

মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে আখেরি মোনাজাত অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন ইজতেমার শীর্ষ মুরব্বি মাওলনা আশরাফ আলী।

ঘটনাপ্রবাহ : বিশ্ব ইজতেমা ২০১৯

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×