বাঘাইছড়ির ঘটনা নিয়ে যা বললেন ইসি মাহবুব তালুকদার

  যুগান্তর রিপোর্ট ১৯ মার্চ ২০১৯, ২২:৪৬ | অনলাইন সংস্করণ

নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার।
নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার। ফাইল ছবি

রাঙামাটির বাঘাইছড়িতে উপজেলা নির্বাচনের পর হতাহতের ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার।

তিনি বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের বাঘাইছড়িতে যা ঘটেছে, বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের ৪৮ বছরের ইতিহাসে তা সবচেয়ে মর্মান্তিক ও শোকাবহ ঘটনা। এই কাপুরুষোচিত আক্রমণ ও নিরপরাধ মানুষ হত্যার বিষয়ে নিন্দা জানাবার ভাষা আমার জানা নেই।

মঙ্গলবার নিজ দফতরে এক লিখিত বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, এহেন অমানবিক বর্বরোচিত হামলায় যে সাতজন নিহত হয়েছেন, আমি তাদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি। যারা আহত হয়ে ঢাকা ও চট্টগ্রামের সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন, আমি তাদের দ্রুত আরোগ্য ও সুস্থতা কামনা করি। একইসঙ্গে আমি নিহত ও আহতদের পরিবারের প্রতি জানাই গভীর সমবেদনা।

এ ঘটনার কারণ কী? এ ঘটনার ব্যর্থতার দায় কার? কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে- এমন তিন প্রশ্নের জবাবে মাহবুব তালুকদার বলেন, আমি মনে করি তাৎক্ষণিকভাবে এসব প্রশ্নের উত্তর দেওয়া সমীচীন নয়। ঘটনাটি সম্পর্কে তদন্ত করে এর কারণ ও দায়দায়িত্ব নিরূপণ করা হবে। প্রকৃত ঘটনা উদঘাটনের পূর্বে যেকোনো বক্তব্য তদন্তকার্যকে ব্যাহত ও বিভ্রান্ত করতে পারে।

এ কমিশনার বলেন, আমি ঢাকা সিএমএইচে গিয়ে আহতদের চিকিৎসার খোঁজখবর নিই। সেখানে মোট সাতজন চিকিৎসাধীন আছেন। এদের মধ্যে তিনজনের অপারেশন হয়েছে। অন্যদেরও অপারেশন করা হবে। একজন সিসিইউতে রয়েছেন। সিএমএইচের ডাক্তারদের সঙ্গে কথা বলে ধারণা হয়েছে, আহতদের আরোগ্য করার জন্য সাধ্যানুযায়ী চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশনার মো. রফিকুল ইসলাম ও ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শাহাদাত হোসেন চৌধুরীও পরে সিএমএইচ পরিদর্শন করেন।

তিনি জানান, প্রধান নির্বাচন কমিশনার চট্টগ্রাম থেকে ফিরে আসার পর কমিশনের সকল সদস্য আলোচনা করে এ বিষয়ে করণীয় নির্ধারণ করবেন।

ঘটনাপ্রবাহ : উপজেলা নির্বাচন ২০১৯

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×