মিলাদ-কিয়াম বন্ধের বিষয়ে যা জানালেন ধর্মপ্রতিমন্ত্রী

  যুগান্তর ডেস্ক ২৪ মার্চ ২০১৯, ১৯:৪৬ | অনলাইন সংস্করণ

সচিবালয়ে ধর্মপ্রতিমন্ত্রী শেখ আবদুল্লাহর মতবিনিময়। ছবি: সংগৃহীত
সচিবালয়ে ধর্মপ্রতিমন্ত্রী শেখ আবদুল্লাহর মতবিনিময়। ছবি: সংগৃহীত

জাতীয় মসজিদ বাইতুল মোকাররমে মিলাদ-কিয়াম বন্ধ করা হয়েছে বলে যে প্রচারণা চলছে তা গুজব ও অপপ্রচার বলে জানিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়।

রোববার সচিবালয়ে ধর্মপ্রতিমন্ত্রী আলহাজ শেখ আবদুল্লাহর সঙ্গে আহলে সুন্নাত ওয়াল জামায়াত সমন্বয় কমিটির প্রতিনিধিদের বিশেষ বৈঠকে এ তথ্য জানানো হয়।

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক সামীম মোহাম্মদ আফজালের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিদল ধর্মপ্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাত করেন।

এ সময় ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘আমাকে হেয় করতেই কেউ কেউ মিথ্যা প্রচারণা চালাচ্ছেন। যারা এই ধরনের মিথ্যা অভিযোগ করছেন, তারা বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন। আমি এর নিন্দা জানাচ্ছি। আমি নিজ উদ্যোগেই মিলাদের আয়োজন করব। ’

ধর্মপ্রতিমন্ত্রী শেখ আবদুল্লাহ আরও বলেন, মিলাদ কিয়াম বিদয়াত বলা তো দূরের কথা, এ বিষয়ে কোনো নেগেটিভ বা নেতিবাচক মন্তব্য আমি করিনি। একটি দুষ্টচক্র পরিকল্পিতভাবে নাটক সাজিয়ে ফায়দা নেয়ার চেষ্টা করছে।’

এ বিষয়ে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আনোয়ার হোসাইন যুগান্তরকে বলেন, মাননীয় প্রতিমন্ত্রীর নামে একটা প্রচারণা চালানো হচ্ছে, তিনি নাকি মিলাদ-কিয়ামকে বিদয়াত আখ্যায়িত করে বাইতুল মোকাররমে তা বন্ধ করেছেন। এটি মিথ্যাচার। মন্ত্রী মহোদয় এমন কথা কোথাও বলেননি। যারা বিষয়টির প্রচারণা চালাচ্ছেন,তারাও কোনো ডকুমেন্ট দেখাতে পারেননি।

গত ২২ মার্চ ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকিতে ধর্মপ্রতিমন্ত্রী নিজেই মিলাদের আয়োজন করেছিলেন বলেও যুগান্তরকে জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, জাতীয় মসজিদ বাইতুল মোকাররমে মিলাদ-কিয়াম বন্ধ করা হয়েছে বলে গত কয়েকদিন যাবত অনলাইনে প্রচারণা চালাচ্ছে কিছু অনলাইন অ্যক্টিভিস্ট। এ জন্য ধর্মপ্রতিমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাচ্ছেন তারা। কিন্তু ধর্মপ্রতিমন্ত্রী কোথায় এ কথা বলেছেন, তা কেউ উল্লেখ করেনি।

এ বিষয়ে মিলাদ-কিয়াম অনুসারীদের মধ্যে ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়। তারাও না জেনে বিষয়টির প্রতিবাদ জানান। ছারছীনা,জৈনপুরীসহ সুন্নি দরবারগুলো মিলাদের পক্ষে অবস্থান নেন।

বিষয়টি নিয়ে ধুম্রজাল সৃষ্টি হলে এ বিষয়ে ধর্মপ্রতিমন্ত্রীর অবস্থান জানতে রোবাবার তার সঙ্গে একটি প্রতিনিধিদল দেখা করেন। এ সময় ধর্মপ্রতিমন্ত্রী জানান, বিষয়টি পুরোটাই গুজব। তিনি এমন কিছু বলেনি।

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক সামীম মোহাম্মদ আফজালের নেতৃত্বে এ প্রতিনিধি দলে ছিলেন মোহাম্মদপুর কাদেরিয়া তৈয়্যেবিয়া কামিল মাদরাসার উপাধ্যক্ষ মুফতি আবুল কাশেম মোহাম্মদ ফজলুল হক, চাঁদপুর ফরিদগঞ্জ মজিদিয়া কামিল মাদরাসার অধ্যক্ষ ড. একেএম মাহবুবুর রহমান, দারুননাজাত সিদ্দিকীয়া কামিল মাদরাসার অধ্যক্ষ আল্লামা আফম আবু বকর সিদ্দিক, নারিন্দা আহসানুল উলুম মাদরাসার অধ্যক্ষ মুফতি আবু জাফর মুহাম্মাদ হেলাল, ঢাকা মদিনাতুল উলুম কামিল মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আবদুর রাজ্জাক।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×