পথশিশুদের শুনালেন মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি

‘দেশের টানে, মাঠির টানে যুদ্ধে যাই’

  যুগান্তর রিপোর্ট ২৬ মার্চ ২০১৯, ২১:৫৬ | অনলাইন সংস্করণ

মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি
মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি। প্রতীকী ছবি (সংগৃহীত)

১৯৭১ সালে অগ্নিঝরা মার্চে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বজ্রকন্ঠে ঘোষণা করেন, ‘তোমাদের যার যা কিছু আছে তাই নিয়ে শত্রুর মোকাবেলা করতে হবে। ঘরে ঘরে দুর্গ গড়ে তোল। এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম। এবারের সংগ্রাম আমাদের স্বাধীনতার সংগ্রাম।’

তার ডাকে সাড়া দিয়ে দেশ, মাটি আর মানুষের টানে সেদিন ঘরে বসে থাকতে পারি নি। পরিবারের নিষেধ থাকা সত্বেও জোর করে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যাই দেশের টানে, মাঠির টানে, ভালবাসার টানে।

সাবেক পুলিশ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা মিজানুর রহমান মজনু মঙ্গলবার বিকালে এক অনুষ্ঠানে পখশিশুদের উদ্যেশ্যে নিজের স্মৃতিচারণ থেকে এসব কথা বলছিলেন।

তিনি বলেন, ৭১ সালে আমি পুলিশের একজন সদস্য ছিলাম। ১১ নম্বর সেক্টরে বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকীর নেতৃত্বে যুদ্ধে অংশগ্রহণ করি। টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলায় ১৯৭১ সালের ৭ ডিসেম্বর পাকহানাদের সঙ্গে আমাদের সন্মুখযুদ্ধ হয়। থানা শহর দখল করি। সেদিন যুদ্ধে সেখানে ১৭ জন সেনাসদস্য নিহত এবং ৩৫ জন আহত হন।

এছাড়া ভুয়াপুরে যুগারচরে সন্মুখ যুদ্ধের কথাও শুনান তিনি। সেই যুদ্ধে একটি পাকিস্তানী জাহাজ বিধস্থ করা হয়।

মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের কাছ থেকে পথশিশুদের মুক্তিযুদ্ধের গল্প শোনাতে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে ‘ছায়াতল বাংলাদেশ’ নামে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন।

রাজধানীর শ্যামলী পার্ক মাঠে অনুষ্ঠিত উক্ত অনুষ্ঠানে শতাধিক পথশিশু অংশগ্রহণ করে।

সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক এবিএম সোহেল রানার সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন মুক্তিযোদ্ধা তোফাজ্জেল হোসেন, ইঞ্জিনিয়ার মো. আবদুল আউয়াল, ৩২ নাম্বার ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাবিবুর রহমান মিজান, তেজগাঁও বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার ওয়াহিদুল ইসলাম প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে পথশিশুদের পক্ষ থেকে জাতীয় সংগীত, দেশাত্ববোধক গান, মুক্তিযুদ্ধের বিশেষ মুহূর্ত নিয়ে ডিসপ্লে প্রদর্শন করা হয়।

পথশিশু বর্ষা আক্তার উম্মে হানী (১০) বলে, মহান মুক্তিযুদ্ধের কাহিনী শুনে আমার খুবই ভাল লাগছে। আমরা সবাই ছায়াতল বাংলাদেশের বিদ্যাপীটে পড়ালেখা করি। আমি ওই স্কুলের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী। বাবার নাম জাকির হোসেন। গ্রামের বাড়ী গোপালগঞ্জ জেলায়। থাকি মোহাম্মদপুরের জহরি মহল্লায়।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×