চাঁদ দেখা বিতর্ক: ১১ সদস্যের উপকমিটি গঠন

প্রকাশ : ১৩ এপ্রিল ২০১৯, ২২:৪৭ | অনলাইন সংস্করণ

  যুগান্তর রিপোর্ট

চাঁদ । ছবি সংগৃহীত

গত ৬ এপ্রিল শনিবার জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির পবিত্র শাবান মাসের চাঁদ দেখার সিদ্ধান্তের বিষয়ে ভিন্নমত পোষণকারীদের দাবি যাচাইয়ে মারকাযুদ দাওয়াহ-এর শিক্ষা সচিব মুফতি মাওলানা আবদুল মালেককে প্রধান করে বিশিষ্ট উলামায়ে কেরামের সমন্বয়ে ১১ সদস্যের একটি উপকমিটি গঠন করা হয়েছে। 

এ কমিটি যারা চাঁদ দেখেছেন বলে দাবি করেছেন তাদের সাক্ষ্যগ্রহণ ও যাচাই-বাছাইয়ের মাধ্যমে আগামী ১৭ এপ্রিল জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি বরাবর সুপারিশ প্রদান করবে। 

শনিবার ইসলামিক ফাউন্ডেশন বায়তুল মুকাররম সভাকক্ষে পবিত্র শাবান মাসের চাঁদ দেখার বিষয়ে বিশেষ সভায় সভাপতির বক্তব্যে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ও জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভাপতি আলহাজ অ্যাডভোকেট শেখ মো. আব্দুল্লাহ এ সিদ্ধান্ত জানান। 

সভায় ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার কোরআন-সুন্নাহবিরোধী কোনো কার্যকলাপে অংশগ্রহণ করেনি এবং ভবিষ্যতেও করবে না। চাঁদ দেখার বিষয়টি যেহেতু ইসলামি শরিয়তের সঙ্গে সম্পর্কিত তাই এ বিষয়ে কোরআন-সুন্নাহর আলোকে বিশিষ্ট আলেম-উলামারা সুপারিশ প্রদান করবেন। জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি আলেম-উলামাদের সুপারিশ অনুসারে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবেন। 

কমিটির অন্য সদস্যগণ হলেন- কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়া ঈদগাহের ইমাম আল্লামা ফরিদ উদ্দীন মাসউদ, ফরিদাবাদ মাদ্রাসার মুহতামিম ও বেফাকের মহাসচিব মাওলানা আব্দুল কুদ্দুস, গোপালগঞ্জের গওহরডাঙ্গা মাদ্রাসার মুহতামিম মুফতি রুহুল আমীন, শায়খ যাকারিয়া (রহ.) ইসলামিক রিসার্চ সেন্টারের মহাপরিচালক মুফতি মিজানুর রহমান সাঈদ, জামিয়া ইসলামিয়া দারুল উলুম (মসজিদুল আকবর কমপ্লেক্স) মাদ্রাসার মুহতামিম মুফতি দিলাওয়ার হোসাইন, তেজগাঁও মদীনাতুল উলুম কামিল মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা আব্দুর রাজ্জাক আল আযহারী, লালবাগ মাদ্রাসার মুহাদ্দিস মুফতি মো. ফয়জুল্লাহ, লালবাগ মাদ্রাসার প্রধান মুফতি মাওলানা ইয়াহ্ইয়া, মোহাম্মদপুর জামেয়া রাহমানিয়ার প্রিন্সিপাল মুফতি মো. মাহ্ফুজুল হক ও বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের সিনিয়র পেশ ইমাম মুফতি মাওলানা মুহাম্মদ মিজানুর রহমান। 

সভায় ধর্ম সচিব মো. আনিছুর রহমানসহ জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির অন্যান্য সদস্য, দেশের বিশিষ্ট আলেম-উলামা এবং যারা চাঁদ দেখেছেন বলে দাবি করেছেন তারা অংশ নেন।