তিন জেলায় পানিতে ডুবে ভাইবোনসহ ৬ শিশুর মৃত্যু

  যুগান্তর ডেস্ক    ১৯ এপ্রিল ২০১৯, ২২:০৭ | অনলাইন সংস্করণ

পানিতে ডুবে মৃত্যু

টাঙ্গাইল, গাজীপুর ও নোয়খালী জেলায় পানিতে ডুবে ৬ শিশুর মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার দুপুরে এসব ঘটনা ঘটে। এর মধ্যে টাঙ্গাইলে দুই বোন ও নোয়াখালীতে ভাইবোন পানিতে ডুবে মারা যায়।

প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর:

টাঙ্গাইল: টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে যমুনা নদীতে গোসল করতে নেমে রিতু ও ছোয়া নামের দুই শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার দুপুরের দিকে উপজেলার গোবিন্দাসী ইউনিয়নের চিতুলিয়াপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত শিশু রিতু (৫) ওই গ্রামের মোহনের মেয়ে ও ছোয়া (৬) সুমনের মেয়ে। দুজনে সম্পর্কে চাচাতো বোন। তাদের মৃত্যুতে ওই এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

নিহত শিশু রিতুর বাবা মোহন জানান, উপজেলার চিতুলিয়াপাড়া গ্রামে তার মেয়ের সঙ্গে ছোয়া বাড়ির কাউকে না বলে পাশের যমুনা নদীতে গোসল করতে যায়। তাদের খুঁজে না পেয়ে বিভিন্ন স্থানে খোঁজখবর নেয়া হয়। পরে যমুনা নদীতে গেলে দুই শিশুর একজনের লাশ ভাসতে দেখে। পরে স্থানীয় লোকজন আরেকজনকে যমুনা নদীতে খুঁজে মৃত লাশ উদ্ধার করে।

গাজীপুর: গাজীপুরের টঙ্গীর দক্ষিণ আউচপাড়া মগদম মুন্সী রোড এলাকায় শুক্রবার দুপুরে পুকুরে গোসল করতে গিয়ে মামুন (০৮) ও মারিয়া আক্তার টুনি (০৭) নামে দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

এলাকাবাসী জানায়, দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে মামুন ও টুনি বাসার পাশের পুকুরে গোসল করতে যায়। সাঁতার না জানায় তারা উভয়েই পুকুরের গভীর পানিতে তলিয়ে যায়। এ সময় তাদের অপর খেলার সাথীরা বাসায় খরব দেয়। পরে এলাকাবাসী পুকুর থেকে মামুন ও টুনিকে উদ্ধার করে টঙ্গী সরকারি হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন। নিহত মামুন ময়মনসিংহ জেলার ত্রিশাল থানার রঘুনাথপুর গ্রামের মোফাজ্জল হোসেনের ছেলে এবং টঙ্গী বাইতুন নূর মাদ্রাসার তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র ও নিহত টুনি নেত্রকোনা জেলার আটপাড়া থানার মল্লিকপুর গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের মেয়ে এবং দেওড়া ব্র্যাক স্কুলের প্রথম শ্রেণির ছাত্রী।

পরে নিহতদের লাশ দাফনের জন্য তাদের নিজ নিজ গ্রামের বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

নোয়াখালী: নোয়াখালীর চৌমুহনীর পৌর এলাকার পুকুরে ডুবে ইয়াছিন (৬) ও সুমাইয়া(৫) নামে দুই শিশুর মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার দুপুরে পৌরসভার ডেল্টা জুট মিলের একটি পুকুর থেকে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত ইয়াছিন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কিমুতিক গ্রামের সাইফুল ইসলামের ছেলে। তারা জুট মিল কলোনিকে থাকে। আর সুমাইয়া চৌমুহনী পৌর এলাকার গানিপুর গ্রামের সবুজ মিয়ার মেয়ে। তারা সম্পর্কে মামাত-ফুফাত ভাই বোন।

স্থানীয় সূত্র জানায়, শুক্রবার জুমার নামাজের সময় সবাই যখন যার যার কাজে ব্যস্ত তখন তারা দুজন বাসার পাশের পুকুরে গোসল করতে যায়। গোসল করার কোনো একসময় দুজন পানিতে ডুবে যায়। দীর্ঘক্ষণ তাদের খোঁজাখুঁজির পর পরিবারের সদস্যরা পুকুরে ভাসতে দেখে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাদের মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে চৌমুহনী পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যরা গিয়ে লাশ দুটি উদ্ধার করে।

নোয়াখালীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শাহজাহান শেখ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এ সময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, লাশ পুলিশ হেফাজতে থাকবে। নিহতদের আত্মীয়স্বজনের সঙ্গে কথা বলে পরবর্তী প্রদক্ষেপ নেয়া হবে। পানিতে ডুবে তাদের মৃত্যু হয়েছে বলেই ধারণা করছি। মৃত্যুর কারণ খতিয়ে দেখা হবে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×