আদর্শ শিক্ষায় শিক্ষিত না হলে কেউ সন্তানদের কাছেও নিরাপদ নয়: গণপূর্তমন্ত্রী

  পিরোজপুর প্রতিনিধি ২২ এপ্রিল ২০১৯, ০০:০১ | অনলাইন সংস্করণ

পিরোজপুর জেলার মাসিক উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভায়  হায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী অ্যাডভোকেট শ.ম রেজাউল করিম। ছবি: যুগান্তর
পিরোজপুর জেলার মাসিক উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভায় হায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী অ্যাডভোকেট শ.ম রেজাউল করিম। ছবি: যুগান্তর

আদর্শ শিক্ষায় শিক্ষিত না হলে কেউ সন্তানদের কাছেও নিরাপদ নয় বলে মন্তব্য করেছেন গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী অ্যাডভোকেট শ.ম রেজাউল করিম।

তিনি বলেন, আমাদের নতুন প্রজন্ম যদি বিভ্রান্ত হয়ে যায়, নৈতিকতা মূল্যবোধহীন হয়ে যায়, তাহলে ভবিষ্যতে আমাদের যারা নেতৃত্ব দেবে তারাই কিন্তু শেষ হয়ে যাবে।

মন্ত্রী রোববার পিরোজপুর জেলার মাসিক উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভায় উপদেষ্টার বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

ঐশীর উদাহরণ টেনে মন্ত্রী বলেন, ও যখন তার বাবা-মাকে খুন করে তখন বুঝতে হবে, ছেলে হোক মেয়ে হোক কেউই কিন্তু আদর্শ শিক্ষায় শিক্ষিত না হলে আপনি আমি কেউই তাদের কাছে নিরাপদ নই।

তিনি বলেন, আমরা বাড়ি বা বাসা থেকে সন্তানদের নিয়মানুবর্তিতার শিক্ষা, নৈতিকতার ফাউন্ডেশন তৈরি করে দিতে না পারি তাহলে সে সন্তানকে সুশিক্ষায় শিক্ষিত করা অনিশ্চিতও হয়ে পড়তে পারে।

বাবা-মায়েদের উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, দালান-কোঠা, গাড়ি-বাড়ি জমাজমি ও সম্পদে বিনিয়োগ করে সাময়িক বিত্ত-বৈভবের মালিক হওয়া যায় কিন্তু তাতে প্রকৃত সুখ সান্তি নিহীত নয়। সম্পদ যদি বানাতেই চান তবে সন্তানের লেখাপড়ার পেছনে অর্থকড়ি বিনিয়োগ করুন। ওরাই হবে প্রকৃত সম্পদ। তা না হলে বাবা-মার ভবিষ্যত ফলাফল শূন্য। তাই ওদেরকে আদর্শ মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে হবে।

জেলা প্রশাসকের কনফারেন্স রুমে অনুষ্ঠিত সভায় এসময় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক আবু আলী মোঃ সাজ্জাদ হোসেন। সভায় অন্যান্যের মধ্যে পুলিশ সুপার মোল্লা আজাদ হোসেন (ভারপ্রাপ্ত), সিভিল সার্জন ডা. ফকরুল আলম, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী রেবেকা খান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক নাহিদ ফারজানা ছিদ্দিকী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ঝুমুর বালা, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান খালেকসহ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাগন, পৌরসভার প্যানেল মেয়র মিনারা বেগম এবং বিভিন্ন বিভাগের সরকারি কর্মকর্তা ও সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

শ.ম রেজাউল করিম বলেন, মাদক, মাদক ব্যাবসা, মাদকাসক্তি, ইভটিজিং ও মাদকের পৃষ্ঠপোষকতা যে কোনো মূল্যে প্রশাসন ও আইনশৃংখলা বাহিনীসহ প্রতিটি সচেতন নাগরিককে কঠোর হাতে নির্মূলের জন্য এগিয়ে আসতে হবে, এসব ক্ষেত্রে যদি কোন সম্ভ্রান্ত পরিবারের সন্তান হয়, প্রভাবশালী ব্যক্তির ছেলে, রাজনৈতিক কর্মী অথবা সে যেই হোক না কেন কোন ছাড় দেয়া হবে না এমনকি এসব ব্যাপারে কোন তদবিরও বরদাস্ত করা হবে না বলে মন্ত্রী হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

বিভিন্ন সরকারি দফতরের উল্লেখ করে বলেন, অধিক রাত পর্যন্ত ওই সব দফতরে কী হচ্ছে কর্মকর্তারা খোঁজ নিন, সেখান থেকেও অনেক কুৎসিত কাজের জন্ম হতে পারে। পিরোজপুরকে তিনি একটি পরিচ্ছন্ন, আধুনিক ও শান্তির শহরে পরিণত করার জন্য যেকোনো উদ্যোগকে তিনি স্বাগত জানাবেন তিনি উল্লেখ করেন, কোন দল বা গ্রুপের মধ্যে আদর্শগত মত পার্থক্য থাকলে হানাহানি নয়, এক সঙ্গে বসে সমঝোতা করতে হবে।

সরকারি কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনারা প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী, জনগনের সেবক। কারও দরজায় এসে কোন সাধারন মানুষ যেন অনাহুত বা হয়রানির শিকার হয়ে ফিরে না যান। সরকারি দফতরগুলো- যেমন পাসপোর্ট, স্বাস্থ্য বিভাগ, রেজিস্ট্রি অফিস, শিক্ষা বিভাগসহ কোথাও যেন দালালের আনাগোনা না থাকে সেদিকে কর্মকর্তাদের দৃষ্টি রাখার নির্দেশ দেন মন্ত্রী।

এসময় তিনি পিরোজপুর পৌরসভার ময়লা আবর্জনা খালে বা রাস্তার পাশে ফেলে পরিবেশ নষ্ট না করে নির্দিষ্ট স্থানে ফেলে একটি পরিচ্ছন্ন শহর উপহার দেয়ার জন্য উপস্থিত সকল সদস্যদের প্রতি আহবান জানান।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×