যেভাবে সময় কাটছে রানা প্লাজার মালিক সোহেল রানার

  যুগান্তর রিপোর্ট ২৪ এপ্রিল ২০১৯, ১৩:৫৯ | অনলাইন সংস্করণ

রানা প্লাজার মালিক সোহেল রানা
রানা প্লাজার মালিক সোহেল রানা। ফাইল ছবি

২০১৩ সালের ২৪ এপ্রিল সকালে সাভারে আটতলা ভবন 'রানা প্লাজা' ভেঙে পড়ে ১১শর বেশি পোশাক শ্রমিকের মৃত্যু ঘটে। ওই ঘটনা শুধু বাংলাদেশের নয়, বিশ্ব ইতিহাসেরই অন্যতম ভয়াবহ শিল্প-দুর্ঘটনা।

সেই রানা প্লাজার মালিক সোহেল রানা বর্তমানে কাশিমপুর-২ কারাগারে আছেন।

দীর্ঘদিন কারাগারে থাকায় সেখানে অনেক বন্ধু জুটেছে তার। তবে পরিবারের সদস্যরা আগের মতো তার সঙ্গে দেখা করতে আসে না।

সোহেল রানা গণমাধ্যমকে জানান, অনেক দিন কারাগারে থাকার কারণে এখানকার নিয়মকানুনে অভ্যস্ত হয়ে গেছেন তিনি।

সোহেল রানা এখানে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়েন। রানা প্লাজাধসে এত মানুষের মৃত্যুতে এখন অনুতপ্ত সোহেল রানা। প্রায়ই কারারক্ষীদের কাছে তিনি তার অনুতাপের কথা বলেন বলে জানিয়েছেন জেলার।

জেলার জানান, আগে সোহেল রানার মা তার সঙ্গে দেখা করতে আসতেন। কিন্তু তিনি অসুস্থ হয়ে পড়ায় এখন তেমন কেউ তাকে দেখতে আসেন না।

এদিকে বুধবার রানা প্লাজাধসের ছয় বছর পূর্তিতে অস্থায়ী শহীদ বেদিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছে বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠন। পাশাপাশি নিহত ও নিখোঁজ পরিবারের সদস্যরাও শ্রদ্ধা জানিয়েছেন।

এ সময় শ্রমিকরা অবিলম্বে রানা প্লাজাধসের ঘটনায় অভিযুক্তদের বিচার ও হতাহত শ্রমিকদের ক্ষতিপূরণ, পুনর্বাসন, তাদের সন্তানদের শিক্ষার ব্যবস্থাসহ নানা দাবি করেন।

প্রসঙ্গত সাভারের বহুল আলোচিত রানা প্লাজাধসে পড়লে ১১৩৮ শ্রমিক নিহত হন।

এর পর সোহেল রানা ওরফে রানাসহ তার পরিবারের বিভিন্ন ব্যক্তির বিরুদ্ধে দুদক ও রাজউক সাভার এবং ধামরাই থানায় ৭টি মামলা করে। ঘটনার পর থেকে রানা কোনো মামলায় জামিন না পাওয়ায় জেলহাজতেই আছেন।

ভবনধসের ঘটনায় আহত ও নিহতদের ক্ষতিপূরণ দিতে ২০১৪ সালের ১৩ মার্চ আদালতের নির্দেশে রানা প্লাজার মালিক সোহেল রানার ব্যক্তিগত সব সম্পদ বাজেয়াপ্ত করে সরকার।

তবে ছয় বছর পার হয়ে গেলেও এ ঘটনায় হতাহত শ্রমিক ও তার স্বজনরা সুবিচার পাননি। বিচার হয়নি অভিযুক্তদের। মামলাগুলোর তেমন কোনো অগ্রগতি নেই।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×