অন্ধের মতো সবকিছু মেনে না নেয়ার আহ্বান পরিকল্পনামন্ত্রীর

  ঢাবি প্রতিনিধি ২৬ এপ্রিল ২০১৯, ২১:১৮ | অনলাইন সংস্করণ

পরিকল্পনামন্ত্রী এম. এ. মান্নান
পরিকল্পনামন্ত্রী এম. এ. মান্নান

কথা বলার অধিকার না হারাতে যৌক্তিক সমালোচনা করা থেকে বিরত না থাকতে এবং অন্ধের মতো সবকিছু মেনে না নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম. এ. মান্নান।

শুক্রবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিরাজুল ইসলাম লেকচার হলে এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ আহ্বান জানান।

‘বাংলাদেশে টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের কৌশল’ শীর্ষক সেমিনারের আয়োজন করে বাংলাদেশ অর্থনীতি শিক্ষক সমিতি। সংগঠনের দশম দ্বিবার্ষিক জাতীয় সম্মেলন-২০১৯ উপলক্ষে সেমিনারের আয়োজন করা হয়।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, এই বঙ্গভূমি শত বছর ধরে শোষণের শিকার হয়েছিল। এ দেশের বহু মূল্যবান সম্পদ বাইরে পাচার হয়ে গেছে। তোমরা যারা নতুন প্রজন্ম আছো তোমাদের লক্ষ্য রাখতে হবে পিতৃভূমিতে যাতে তোমাদের চলার স্বাধীনতা, কথা বলার অধিকার না হারাতে হয়। তোমরা অন্ধের মতো সবকিছু মেনে নেবে না। তাহলে জাতির পিতার সোনার বাংলা গড়ার যে স্বপ্ন, একাত্তরে সোনার বাংলা গড়ে তেলার জন্য যারা প্রাণ দিয়েছেন তাদের সোনার বাংলা অর্জনের যে স্বপ্ন- তা পূরণ হবে না। এ সময় তিনি বিশ্বজুড়ে ধর্মের নামে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের বিষয়ে তরুণ শিক্ষার্থীদের সতর্ক থাকার আহ্বান জানান।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ অর্থনীতি শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. এম. এ জলিল। উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. আবুল বারকাত, সহসভাপতি এ. জেড. এম সালেহ। সেমিনারে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক শিক্ষক সমিতির শিক্ষকরা বাংলাদেশের টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট ও এর সঙ্গে জড়িত নানা বিষয় নিয়ে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। দ্বিবার্ষিক সম্মেলনকে ঘিরে এসডিজি এবং রোহিঙ্গাদের ইতিহাস নিয়ে গবেষণালব্ধ প্রকাশনা বের করেছে অর্থনীতি শিক্ষক সমিতি।

অনুষ্ঠানে বর্তমান সরকারের নানা উন্নয়ন কর্মকাণ্ড ও পরিকল্পনার কথা উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, আমরা এখন নীল অর্থনীতি (সমুদ্র অর্থনীতি) নিয়ে কথা বলছি। স্থলবন্দরের মধ্যে পায়রা বন্দর রয়েছে, পানির নিচে আমরা কর্ণফুলীতে টানেল করছি। যা এ অঞ্চলের মধ্যে প্রথম। ৪০ সালের মধ্যে উন্নত আয়ের দেশে পরিণত হব।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×