ঘূর্ণিঝড় ফনি: এখনও বিদ্যুৎহীন আড়াই লাখ গ্রাহক

  যুগান্তর রিপোর্ট ০৫ মে ২০১৯, ১৭:০২ | অনলাইন সংস্করণ

ঘূর্ণিঝড় ফনি: এখনও বিদ্যুৎহীন আড়াই লাখ গ্রাহক

ঘূর্ণিঝড় ফনির আঘাতে বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েছে প্রায় আড়াই লাখ গ্রাহক।

তবে রোববারের মধ্যেই এসব সংযোগ পুনর্স্থাপন করা সম্ভব হবে বলে আশা ব্যক্ত করেছেন পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের (আরইবি) সিস্টেম অপারেশন বিভাগের পরিচালক অঞ্জন কান্তি দাশ।

তিনি জানান, অতিপ্রবল ঘূর্ণিঝড়ের আঘাতে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছিল প্রায় পৌনে দুই কোটি বিদ্যুৎ সংযোগ। এদের অধিকাংশই পুনর্স্থাপন করা গেছে। বাকি সংযোগগুলোও দ্রুত পুনর্স্থাপন করতে নিরলস কাজ করে যাচ্ছে বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মীরা। ক্যাটাগরি-৫ টাইপের ঘূর্ণিঝড় ফনি শুক্রবার ভারতের উরিষ্যা উপকূলে আঘাত হেনে লণ্ডভণ্ড করে দেয় উরিষ্যা, পুরি ও ভুবনেশ্বর।

এর ঘূণিঝড়টি শনিবার বাংলাদেশের দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলে প্রবেশ করে। এরপর বৃষ্টি ঝরিয়ে দুর্বল হয়ে সাধারণ ঝড়ে পরিণত হয় ফনি।

এরপরও বাংলাদেশ অতিক্রম করে ভারতের আসামের দিকে যাওয়ার আগে উপড়ে দিয়ে যায় বহু কাচা ঘর, অসংখ্য গাছপালা ও বৈদ্যুতিক খুঁটি।

ফনির আঘাতে পল্লি বিদ্যুতের দুই কোটি ৬০ লাখ গ্রাহকের মধ্যে এক কোটি ৭০ লাখ গ্রাহকের সংযোগ ঝড়ের কারণে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছিল বলে গণমাধ্যমকে জানান অঞ্জন কান্তি দাশ।

পল্লী বিদ্যুতের দেয়া হিসাব অনুযায়ী, ফনির তাণ্ডবে আরইবির ৬৭১টি খুঁটি ভেঙে পড়েছে, হেলে পড়েছে ৮০১টি। এছাড়াও ৭৮৯টি ট্রান্সফরমার নষ্ট হয়েছে।

তাদের হিসাব মতে, ১০ হাজার ৩৫৮টি স্থানে তার ছিঁড়ে পড়েছে। ৫ হাজার ৭৯১টি।মিটার ও এক হাজার ৭৮৬টি ইনসুলেটর নষ্ট হয়েছে। এছাড়াও ১১৮৪টি ক্রস আর্ম নষ্ট হয়েছে।

সে হিসেবে ফনির কারণে পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের ১৮২ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে দাবি করেন সিস্টেম অপারেশন বিভাগের পরিচালক।

এসব খুঁটি, তার ও ট্রান্সফরমার মেরামতে মাঠে পল্লী বিদ্যুতের নিজস্ব ও ঠিকাদার মিলিয়ে ৪০ হাজার লোক নিয়োজিত রয়েছে বলে জানান অঞ্জন কান্তি দাস।

তিনি বলেন, আমরা দ্রুত লাইন মেরামত করে পুনর্সংযোগ দেয়ার চেষ্টা করে যাচ্ছি। আজ বিকালের মধ্যেই সব গ্রাহককে আবার বিদ্যুতের আওতায় নিয়ে আসা যাবে বলে আশা করছি।

পল্লী বিদ্যুতের কর্মকর্তারা জানান, সারা দেশজুড়েই বিদ্যুৎ ব্যবস্থা ক্ষতিগ্রস্ত। তবে সুনামগঞ্জ, কুড়িগ্রাম, ঠাকুরগাও, রংপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, পিরোজপুর, সাতক্ষীরা, যশোর-১, যশোর-২, এসব এলাকায় বিদ্যুতের লাইনের সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয়েছে।

এদিকে বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (পিডিবি) পরিচালক (জনসংযোগ) সাইফুল হাসান চৌধুরী জানিয়েছেন, ফনির আঘাতে পিডিবির ২৮ লাখ গ্রাহকের মধ্যে দুই লাখ ১০ হাজার সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়েছিল। রোববার দুপুরের মধ্যে সব সংযোগ পুনর্স্থাপন করা হয়েছে।

দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের জেলাশহরগুলোতে বিদ্যুৎ সরবরাহের দায়িত্বে আছে ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড-ওজোপাডিকো।

এ কেম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক শফিক উদ্দিন বলেন, ঝড়ের কারণে বিভিন্ন স্থানে ক্ষতিগ্রস্ত পোল, বিকল ট্রান্সমিটার ঠিক করে শনিবার বিকাল ৪টার মধ্যেই সরবরাহ ব্যবস্থা স্বাভাবিক করা গেছে।

তিনি জানান, পটুয়াখালী ও বরগুনার লাইন পুনর্স্থাপনে সময় বেশি লাগলেও পর্যাপ্ত লোকবল মজুত রাখায় শনিবারেই তা মেরামত করা গেছে।

ফনি চলাকালীন ওজোপাডিকোর নিয়মিত লোড ৫৫০ মেগাওয়াট থেকে কমে ১৭২ মেগাওয়াটে চলে এসেছিল বলে জানান শফিক উদ্দিন।

ওজোপাডিকোর অধীনে ১১ লাখ ৪৭ হাজার ৫৩০ জন গ্রাহক রয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, প্রায় সব সংযোগই পুনর্স্থাপন করা গেছে।

ঘটনাপ্রবাহ : ধেয়ে আসছে ফনি

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×