প্রাণের পণ্যে বিস্তর ভেজাল, মানুষ কোথায় যাবে: প্রশ্ন হাইকোর্টের

  যুগান্তর রিপোর্ট ১৬ জুন ২০১৯, ১৫:৩৭ | অনলাইন সংস্করণ

প্রাণের পণ্যে বিস্তর ভেজাল, মানুষ কোথায় যাবে: প্রশ্ন হাইকোর্টের

প্রাণ লাচ্ছা সেমাই, প্রাণ হলুদের গুঁড়াসহ ১৬টির লাইসেন্স বাতিলকৃত পণ্য বাজার থেকে দ্রুত সরাতে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরকে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

রোববার বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চে বিএসটিআইয়ের পরীক্ষায় মানহীন ৫২টি খাদ্যপণ্য অবিলম্বে বাজার থেকে সরাতে ও জব্দে হাইকোর্টের দেয়া নির্দেশনা প্রতিপালন না করার বিষয়ে শুনানিতে এ নির্দেশ দেয়া হয়।

এ সময় আদালত বলেন, মানুষ চোখ বন্ধ করে প্রাণের পণ্য কেনে। তাদের পণ্যে বিস্তর ভেজাল, মানুষ কোথায় যাবে?

সম্প্রতি ৪০৬টি খাদ্যপণ্যের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করে বিএসটিআই। এর মধ্যে ৩১৩টি পণ্যের পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়। ৩১৩টির মধ্যে ৫২টি পণ্য মানহীন বলে প্রতিবেদন দেয় মান নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা।

বাকি ৯৩ পণ্যের পরীক্ষার ফল প্রতিবেদন আজ রোববার জমা দেয়া হয়েছে। তবে ৯৩ পণ্যের মধ্যে ২২টিকে মানহীন বলে প্রতিবেদন দিয়েছে বিএসটিআই।

তবে এই ২২টি পণ্যকে অপসারণের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বিএসটিআইয়ের দাখিলকৃত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এর আগে বিএসটিআইয়ের পরীক্ষায় যে ৫২ পণ্য মানহীন ছিল, তার মধ্যে ৪২টি পণ্য পুনরায় মান পরীক্ষার জন্য আবেদন করেছিল।

এর মধ্যে ২৬টি পুনঃপরীক্ষায় মানোত্তীর্ণ হয়েছে। তবে ১৬টি পণ্য নিম্নমানের হওয়ায় সেগুলোর লাইসেন্স বাতিল করা হয়েছে। বাকি ১০টি পণ্য এখনও নমুনা দেয়নি। একই সঙ্গে মান পরীক্ষায় বাকি ৯৩টি পণ্যের মধ্যে ২২টি মানহীন।

বিএসটিআইয়ের আইনজীবী এমআর হাসান সাংবাদিকদের বলেন, ‘২৬টি প্রোডাক্ট তাদের মান উন্নয়ন করেছে। এবং ১৬টি প্রোডাক্টের অবনতি হয়েছে। এ জন্য এ ১৬টি প্রোডাক্ট বাতিল করেছি।’

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×