ভাগ্নের মুঠোফোন থেকে কল এসেছিল: সোহেল তাজ

  যুগান্তর রিপোর্ট ১৯ জুন ২০১৯, ১৬:২২ | অনলাইন সংস্করণ

ভাগ্নের মুঠোফোন থেকে কল এসেছিল: সোহেল তাজ

‌'অপহৃত' ভাগ্নের মুঠোফোন থেকে কল এসেছিল বলে জানিয়েছেন সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী তানজিম আহমেদ সোহেল তাজ। বুধবার দুপুরে ফেসবুকে লাইভে এসে তিনি এই তথ্য জানান।

সোহেল তাজ জানান, মঙ্গলবার রাত ২টা ২০ মিনিটে অপহৃত ভাগ্নে সৈয়দ ইফতেখার আলম সৌরভের মুঠোফোন থেকে তারা বাবা ও মায়ের কাছে কল আসে। কিন্তু তারা ফোন ধরার পর কেউ কথা বলেনি।

সৌরভের মুঠোফোন এখনও খোলা বলে জানিয়েছেন তার মা ইয়াসমিন। সকালে তার ফোনে কল ঢুকেছে। বিষয়টি আইনশৃংখলা বাহিনীকে জানানো হয়েছে। আইনশৃংখলা বাহিনী ফোন ট্র্যাক করে সেৌরভের অবস্থান শনাক্ত করার চেষ্টা করছে।

বুধবার দুপুরে ফেসবুক লাইভে সোহেল তাজ বলেন, ভাগ্নের চিন্তায় আমরা সারারাত ঘুমাতে পারিনি। তার ফিরে আসার অপেক্ষায় আছি। মঙ্গলবার রাতে আমরা এক জায়গায় গিয়েছিলাম। সেখানে আমরা কিছু তথ্য পেয়েছি। তাতে আমরা সন্তুষ্ট।

তিনি বলেন, গতকাল রাত আড়াইটার দিকে আমার মামাতো বোন আমাকে ফোন করেন। আমি মানিক (সৌরভের বাবা) ভাইয়ের সঙ্গেও কথা বলি। তারা আমাকে জানান, সৌরভের ফোন থেকে হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে তাদের ফোনে কল এসেছে। দুতিনবার। কিন্তু কে অন্যদিকে ছিল, সেটা শোনা যায়নি। তারা অনেক চেষ্টা করেছেন, কিন্তু কোনো শব্দ শোনা যায়নি। পরে আপা ও মানিক ভাই কয়েকবার সৌরভের ওই নম্বরে কল করেছেন, কিন্তু কেউ ফোন ধরেনি।’

এ বিষয়ে সৌরভের বাবা মানিক ও মা ইয়াসমিন জানান, রাত ২টা ২০ মিনিটে ছেলের ফোন থেকে কল আসে। কল আসার সঙ্গে সঙ্গে তারা রিসিভ করেন। বারবার হ্যালো হ্যালো বলার পরও অপর প্রাপ্ত থেকে কোনো সাড়া পাওয়া যায়নি।

তারা পরে কল কেটে দিয়ে ফের ফোন দেন। তখন রিংও হচ্ছিল, কিন্তু কেউ সাড়া দেয়নি। এখনও কল করেছি, রিং হচ্ছে, কিন্তু কেউ ধরছে না। তার মানে সৌরভের ফোন খোলা রয়েছে।

ইয়াসমিন বলেন, আমি আমার ছেলেকে একটা ক্ষুদেবার্তা দিয়েছি। ‘বাবা তুমি কোথায়? কী অবস্থায় আছো? তুমি বলো কোথায় আছো? দরকার হলে আমরা গিয়ে তোমাকে নিয়ে আসবো।’ এই ক্ষুদেবার্তারও কোনো উত্তর পাইনি আমি।

এ ঘটনা কাউন্টার টেরোরিজমের ডিসি, ঢাকা উত্তরের ডিসি এবং থানার ওসিকে জানিয়েছে সেৌরভের পরিবার। আইনশৃংখলা বাহিনী ফোন ট্র্যাক করে সেৌরভের অবস্থান জানার চেষ্টা করছে বলে তার পরিবারকে জানিয়েছে।

সবশেষে সোহেল তাজ লাইভে বলেন, আমরা আইনশৃংখলা বাহিনীর প্রতি আস্থা রেখেই অপেক্ষা করছি।

সোহেল তাজ বলেন, এ ধরনের ঘটনা কাঙ্ক্ষিত না। এ ধরনের ঘটনা যেন আর না ঘটে, সেদিকে আমাদের মনোযোগ দিতে হবে। বাংলাদেশে আমরা সবাই মিলেমিশে সুখে শান্তিতে বেঁচে থাকতে চাই। সেটাই ছিল আমাদের মুক্তিযুদ্ধের লক্ষ্য।

প্রসঙ্গত, ৯ জুন চট্টগ্রামে চাকরির সিভি জমা দিতে গিয়ে নিখোঁজ হন সৈয়দ ইফতেখার আলম। তিনি সোহেল তাজের ভাগ্নে। তার খোঁজ এখনও মেলেনি। পরিবারের দাবি, তাকে চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে পরিকল্পিতভাবে অপহরণ করানো হয়েছে। ভাগ্নের সন্ধান দাবিতে নানা ততপরতা চালিয়ে যাচ্ছেন সোহেল তাজ। সেৌরভ ফিরে না আসা পর্যন্ত লাইভে থাকার ঘোষণা দিয়েছেন সাবেক এই স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×