সেই ১৫০০ ল্যাপটপ-প্রিন্টার ক্রয়ে অনিয়ম তদন্তের নির্দেশ সিইসির

  যুগান্তর রিপোর্ট ২৩ জুন ২০১৯, ২১:৪১ | অনলাইন সংস্করণ

সেই ১৫০০ ল্যাপটপ-প্রিন্টার ক্রয়ে অনিয়ম তদন্তের নির্দেশ সিইসির
গত ১৯ জুনে যুগান্তরের প্রথম পাতায় প্রকাশিত সংবাদ। ছবি: যুগান্তর

নির্বাচন কমিশনের (ইসি) ৫১৯টি উপজেলা ও থানা নির্বাচন অফিসের জন্য ল্যাপটপ ও প্রিন্টার কেনার টেন্ডারে অনিয়মের ঘটনা তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদা।

রোববার কমিশন সচিবকে এ নির্দেশ দেন সিইসি। এক লিখিত নির্দেশনায় সিইসি জানিয়ে দেন, কোনো রকম অনিয়মের মাধ্যমে যে কোনো ক্রয়-প্রক্রিয়া চলতে দেয়া যাবে না।

সিইসির নির্দেশনার কথা জানিয়ে ইসি সচিব মো. আলমগীর সাংবাদিকদের বলেন, গণমাধ্যমে প্রকাশিত এ সংক্রান্ত খবর আমাদের নজরে এসেছে। ওই ঘটনা সিইসি তদন্ত করতে বলেছেন।

গত ১৯ জুন বুধবার যুগান্তরে ‘সাজানো টেন্ডারে ১৫শ’ ল্যাপটপ-প্রিন্টার ক্রয়’ শীর্ষক সংবাদ প্রকাশিত হয়।

রোববার ওই সংবাদের বিষয়ে তদন্ত করতে সচিবকে নির্দেশনা দেন সিইসি। এতে সিইসি লিখেন, অভিযোগ সত্য হলে ব্যবস্থা নিন। কোনো রকম অনিয়মের মাধ্যমে যে কোনো ক্রয়-প্রক্রিয়া চলতে দেয়া যাবে না।

পরে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ইসি সচিব মো. আলমগীর এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদটি আমাদের নজরে এসেছে। বিষয়টি নিয়ে সিইসির সঙ্গে কথা হয়েছে। সিইসি আমাকে বিষয়টি তদন্ত করে দেখার জন্য বলেছেন। আমরা এসব জিনিসপত্র কেনার সঙ্গে যুক্ত কর্মকর্তাদের কাছে ব্যাখ্যা চাইব। এ প্রক্রিয়ার সঙ্গে যুক্ত কর্মকর্তাদের আত্মপক্ষ সমর্থন করার সুযোগ দিতে হবে। কোনো ধরনের আর্থিক অনিয়ম সহ্য করা হবে না।

বগুড়া-৬ আসনের উপনির্বাচনে ইসির প্রস্তুতি সম্পর্কে সচিব বলেন, উপনির্বাচনে সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। মাঠে রয়েছে স্ট্রাইকিং ফোর্স, মোবাইল কোর্টসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। নির্বাচনে কোনো অনিয়ম সহ্য করা হবে না। এমনকি অনিয়মের খবর আসলে ওই কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ বন্ধ করে দেয়া হবে।

তিনি বলেন, বগুড়া-৬ আসনে ইভিএম ব্যবহার করা হবে। ভোটারদের মধ্যে উৎসাহ ভালো তবে প্রযুক্তির সঙ্গে সবাই মানিয়ে নিতে না পারায় ফল পাঠাতে কিছুটা দেরি হয়। ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অতিরিক্ত সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×